Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৫-২৩-২০১৬

সাম্প্রতিক হত্যা নিয়ে ইইউ’র উদ্বেগ, বিভিন্ন মহলে প্রতিক্রিয়া

সাম্প্রতিক হত্যা নিয়ে ইইউ’র উদ্বেগ, বিভিন্ন মহলে প্রতিক্রিয়া

ঢাকা, ২৩ মে- বাংলাদেশে সংঘটিত সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করে এসব ঘটনায় দোষীদের ধরে আইনের আওতায় এনে দেশের প্রতিটি নাগরিককে সুরক্ষার আহ্বান জানিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।

রোববার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলীর সঙ্গে দেখা করে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত সাত দেশের রাষ্ট্রদূতেরা এই আহ্বান জানান। খবর-রেতে।

সভায় উপস্থিত কূটনীতিকরা জানান, বাংলাদেশে এ ধরনের আক্রমণ মানবাধিকার ও মত প্রকাশের স্বাধীনতার ওপর একটি বিরাট বড় ঝুঁকি।

তারা মনে করেন, জঙ্গিবাদ মোকাবেলার জন্য একটি কার্যকর ও ব্যাপক প্রস্তুতি দরকার এবং এজন্য গণতান্ত্রিক দায়িত্বশীলতা, মত প্রকাশের স্বাধীনতা, শক্তিশালী মিডিয়া, সহনশীল সুশীল সমাজের প্রয়োজন।

এ প্রসঙ্গে বিএনপি জোটের শরীক বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মোহাম্মদ ইব্রাহিম রেডিও তেহরানকে বলেন, দেশের আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ে বিদেশিরা যখন কথা বলে তখন তাকে কেবল ‘আভ্যন্তরীণ ব্যাপারে নাগ গলানো’ বলে এড়িয়ে যাবার সুযোগ নেই। সরকার বিদেশি রাষ্ট্রের উদ্বেগের মর্মার্থটা বুঝে যদি পরিস্থিতির উন্নতি ঘটাতে না পারে তাহলে দীর্ঘমেয়াদে রাষ্ট্রেরই ক্ষতি হবে।

এ প্রসঙ্গে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, বাংলাদেশের আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি যে উদ্বেগজনক তা দেশের প্রতিটি নাগরিক যেমন বুঝতে পারছেন, তেমনি বিদেশিরাও তা স্পষ্ট করে বুঝতে পারছে। আর এটাই বেশী উদ্বেগের ব্যাপার যে সরকার পরিস্থিতির উন্নতি ঘটাতে ব্যর্থ হচ্ছে।

সাইফুল হক মনে করেন, প্রতিটি ঘটনায় প্রতিপক্ষকে জড়িয়ে ঘায়েল করার কৌশল শেষ পর্যন্ত সরকারকে রক্ষা করতে পারবে না।

গতকালকের সভায় বাংলাদেশে নিযুক্ত ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর দূতদের সামগ্রিক রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা পরিস্থিতি অবহিত করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রীমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

পেশাদার কুটনীতিক থেকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হওয়া মাহমুদ আলী রাষ্ট্রদূতদের বলেছেন, বাংলাদেশের সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জামায়াতে ইসলামী ও তার বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের মধ্যে জামায়াতুল মুজাহেদিন (জেএমবি), হিজবুত-তাহরীর, আনসার আল ইসলাম, আনসারুল্লাহ বাংলা টিম, হরকাতুল জিহাদ আল ইসলাম (হুজি-বি), হিজবুত তাহরীর বাংলাদেশ এবং আল-মুজাহিদ জড়িত রয়েছে। বিএনপি এ দলগুলোকে আশ্রয় (শেল্টার)ও সহযোগিতা করছে।

সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ডগুলোর সঙ্গে জামায়াত জড়িত এবং বিএনপি তাদেরকে সেল্টার দিচ্ছে- পররাষ্ট্রমন্ত্রী কুটনীতিকদের এমন তথ্য দিলেও সরকারের শিল্পমন্ত্রী বলেছেন ভিন্ন কথা।

রোববার সচিবালয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভা শেষে কমিটির সভাপতি শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু সাংবাদিকদের বলেছেন, সম্প্রতি যে ৩৭টি হত্যার ঘটনা ঘটেছে, তার মধ্যে ২৫টির সঙ্গে সরাসরি জঙ্গি সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি) জড়িত। আর আটটির সঙ্গে আনসারুল্লাহ বাংলা টিম এবং বাকি চারটির সঙ্গে অন্যান্য জঙ্গি ও সন্ত্রাসী সংগঠন জড়িত। এসব ঘটনায় আইএসের জড়িত থাকার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিএনপি-জামায়াতের নাম উল্লেখ করলেও শিল্পমন্ত্রী বিএনপি-জামায়াতের নাম উচ্চারণ করেননি।

এদিকে, বিএনপি-চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া শনিবার রাতে বৌদ্ধ নেতাদের সাথে এক সভায় অভিযোগ করেছেন বান্দরবনে বৌদ্ধভিক্ষুসহ সাম্প্রতিক হত্যা ও সন্ত্রাসের সঙ্গে খোদ আওয়ামী লীগ সরকারই জড়িত। তাই সরকার প্রকৃত খুনিদের আড়াল করতেই হত্যাকাণ্ডের দায়ভার বিএনপি-জামায়াতের ওপর চাপানোর চেষ্টা করছে।

আর/১১:০৪/২৩ মে

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে