Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-২০-২০১৬

পশ্চিমবঙ্গে কনিষ্ঠ বিধায়ক ইব্রাহিম আলী

পশ্চিমবঙ্গে কনিষ্ঠ বিধায়ক ইব্রাহিম আলী

কলকাতা, ২০ মে- পশ্চিমবঙ্গ বিধান সভায় কনিষ্ঠতম বিধায়ক সিআইএমের ইব্রাহিম আলী। রাজ্যের পূর্ব পাঁশকুড়ার আসন থেকে নির্বাচিত হয়েছেন তিন বারের বিধায়ক প্রবীণ তৃণমূল নেতা বিপ্লব রায় চৌধুরীকে হারিয়ে। ভোটের লড়াইয়ে তৃণমূল প্রার্থীর সঙ্গে শক্ত লড়াইয়ের ইঙ্গিত ছিল। হাল ছাড়েননি ইব্রাহিম আলী।

মমতা ব্যানার্জির নেতৃত্বাধীন তৃণমূলের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, অনিয়মের নানা অভিযোগের মধ্যে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। টানা দ্বিতীয় দফায় তৃণমূলের ক্ষমতায় ফেরা নিয়ে সংশয়, সন্দেহও জানিয়েছিলেন বিশ্লেষকরা। কিন্তু সব হিসাব-নিকাশ পেছনে ফেলে দাপুটে এক জয়ে টানা দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় ফিরলেন মমতা ব্যানার্জি।

নির্বাচনে বিধান সভার ২৯৪ আসনের মধ্যে তৃণমূলের ‘জোড়াফুল’ পেয়েছে ২১১ আসন। কংগ্রেস পেয়েছে ৪৪ আসন। বামফ্রন্টের আসন ৩২। এর আগে রাজ্যে বিজেপির কোনো আসন না থাকলেও এ নির্বাচনে জিতেছে ৭ আসনে। 

বামফ্রন্টের সঙ্গে জোট করেও ফলাফল অনুকূলে আনতে ব্যর্থ হয়েছে কংগ্রেস। তবে সান্তনা এইটুকু যে, ৪৪ আসনে জিতে শরিক ব্রামফন্টকে পেছনে ফেলেছে। বিধান সভায় বিরোধী দলের আসন নিশ্চিত করতে সক্ষম হয়েছে। 

উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, ২০১১ সালে অনুষ্ঠিত বিধান সভা নির্বাচনে ১৮১ আসনে জিতেছিল তৃণমূল কংগ্রেস। এবার ২১১টিতে। এতে আসন সংখ্যা বাড়লো ৩০টি। 

তৃণমূল কংগ্রেসের এ জয় জয়কারের মধ্যেও বিধায়ক হয়েছেন সিপিআইয়ের ২৭ বছরের যুবনেতা ইব্রাহিম আলী। রাজ্যের পূর্ব পাঁশকুড়ার হারিয়েছেন তিন বারের বিধায়ক প্রবীণ তৃণমূল নেতা বিপ্লব রায় চৌধুরীকে।

ইব্রাহিম আলীর ভোটের লড়াই শুরু হয়েছিল ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচন দিয়ে। হেরেছিলেন তৃণমূল যুব কংগ্রেসের প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারীর কাছে। পরাজয়েও  এ যুবককে ঘিরে ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখে দলের শীর্ষ নেতারা। কোলাঘাট জোনাল কমিটির সাংগঠনিক দায়িত্ব দেয়া হয় ইব্রাহিমকে।

পাঁশকুড়ার গোবিন্দনগরের বাসিন্দা ইব্রাহিমের রাজনীতি শুরু কলেজে। এসএফআইয়ের নেতা পরবর্তী সময়ে সংগঠনের জেলা সভাপতি পদ পান। ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে তমলুকের সাবেক সংসদ সদস্য লক্ষ্মণ শেঠকে সরিয়ে সিপিআই প্রার্থী করে ইব্রাহিমকে। 

বৃহস্পতিবার ভোট ঘণনায় সকালের দিকে খানিকটা এগিয়েই ছিলেন তৃণমূলের প্রবীণ নেতা বিপ্লব রায় চৌধুরী। সময় গড়ানোর সঙ্গে উল্টে যেতে শুরু করে ভোটের ফলাফল। দুপুরের দিকে ভোটের চিত্র পাল্টাতে শুরু করে। এগোতে থাকেন সিপিএমের ইব্রাহিম আলি। বিকেলে পুরো মাত্রায় পাল্টে যায় ভোটের চিত্র। শেষ পর্যন্ত জিতেই গেলেন রাজ্যের অন্যতম কনিষ্ঠ প্রার্থী সিপিএমের ইব্রাহিম আলি।

বৃহস্পতিবার ফলাফল ঘোষণার পর  কোলাঘাটে দলীয় কর্মী-সমর্থকদের কাঁধে চেপেই ইব্রাহিম বলেন, ‘ভোটে জয়-পরাজয় আছে। মানুষ যাকে চাইবে সেই জয়ী হবে। তাই লোকসভার ভোটে হারের পরও আমি ভেঙে পড়িনি। তৃণমূলের নীতি ও দলের নেতাদের দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ছিলাম।’

পশ্চিমবঙ্গ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে