Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-১৯-২০১৬

ফাইল নিষ্পত্তি ৩ কর্মদিবসে, নইলে ব্যবস্থা

ফাইল নিষ্পত্তি ৩ কর্মদিবসে, নইলে ব্যবস্থা

ঢাকা, ১৯ মে- সরকারি কাজে বিঘ্ন ঘটার প্রেক্ষিতে সিদ্ধান্ত গ্রহণে গতি আনতে সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। নির্দেশ অনুযায়ী যে কেনো নথি বা ফাইল তিন কর্ম দিবসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে হবে। অন্যথায় দায়ীদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) শিক্ষাসচিব মো. সোহরাব হোসাইন স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত নির্দেশ (ইউনোট) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সকল উইং প্রধানদের দেওয়া হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, বিভিন্ন দপ্তরে প্রশাসনিক কাজে গতি আনতে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শিক্ষাসচিব।

সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে তাৎক্ষণিকভাবে উইংভিত্তিক সভাও অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সচিবালয় নির্দেশমালা অনুযায়ী, শিক্ষাসচিব এ নির্দেশ দিয়েছেন বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।

নির্দেশমালার উদ্ধৃতি দিয়ে শিক্ষাসচিবের নোটে বলা হয়, এই নির্দেশনা প্রতিপালন করা এবং বিভিন্ন দপ্তর ও ব্যক্তি থেকে প্রাপ্ত চিঠি-পত্রাদি মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন শাখা হতে যথাসময়ে উপস্থাপন করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। যথাসময়ে পত্রাদি উপস্থাপন না হওয়ায় সরকারি কাজে বিঘ্ন ঘটছে এবং যথাসময়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণে অসুবিধা হচ্ছে, যা মোটেই কাম্য নয়।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সকল অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন ও অর্থ, উন্নয়ন, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, মাধ্যমিক, কারিগরি, মাদ্রাসা, অডিট ও আইন) এবং যুগ্ম প্রধানকে (পরিকল্পনা) এই চিঠি দেওয়া হয়।

সচিবের নির্দেশে আরও বলা হয়, এমতাবস্থায় তার অনুবিভাগে চিঠি-পত্র প্রাপ্তির পর সচিবালয়ের নির্দেশমালা অনুসরণ করে নিষ্পত্তি করার জন্য প্রত্যেক কর্মকর্তাকে নির্দেশ প্রদানের জন্য অনুরোধ প্রদান করা হলো।
 
“নির্ধারিত সময়ের মধ্যে পত্রটি উপস্থাপন করা না হলে দায়ী কর্মকর্তা/কর্মচারীদের বিরুদ্ধে অদক্ষতার অভিযোগে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। নিয়ন্ত্রণকারী কর্মকর্তা হিসেবে উল্লিখিত ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে নিয়ন্ত্রণকারী কর্মকর্তা এর জন্য দায়ী হবেন।”
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একাধিক কর্মকর্তা জানান, মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন দপ্তর এবং সারা দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন কাজের বিভিন্ন চিঠিপত্র আসে। সেগুলো যথা সময়ে নিষ্পত্তি না হওয়ায় সিদ্ধান্ত গ্রহণেও বিলম্ব হয়। এতে কাজের বোঝা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কাজেও ধীর গতি নেমে আসে। এর প্রেক্ষিতে সচিবালয় নির্দেশনামা অনুযায়ী সচিবেরও ওই নির্দেশনা।
 
সচিবালয় নির্দেশমালা-২০১৪ এর ৩৮(১) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, শাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তিন কর্মদিবসের মধ্যে কোন কারণে প্রাপ্ত পত্রাদির বিষয়ে নিষ্পত্তি করতে অসমর্থ হলে তিনি ব্যক্তিগতভাবে তার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার নির্দেশ গ্রহণ করিবেন। তবে বিলম্বের কারণ নথিতে উল্লেখ করতে হবে।
 
আর ৩৮(২) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, উপসচিব যদি তার কাছে অসম্পন্ন কোন কার্য তিন কর্মদিবসের মধ্যে কোন কারণে নিষ্পত্তি করতে অসমর্থ হন তা হলে সেটি ব্যক্তিগতভাবে তিনি তার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার গোচরীভূত করবেন এবং নির্দেশ গ্রহণ করবেন।

আর/১০:১৪/১৯ মে

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে