Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.2/5 (6 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-১৮-২০১৬

হিলারির সরকারে অর্থনীতির নেতৃত্ব দেবেন ক্লিনটন

হিলারির সরকারে অর্থনীতির নেতৃত্ব দেবেন ক্লিনটন

ওয়াশিংটন, ১৮ মে- একটা সময় হোয়াইট হাউজে প্রেসিডেন্টের চেয়ারে বসে যখন বিল ক্লিনটন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করছেন, সে সময়টা ফার্স্ট লেডি হিসেবেই আলোচিত ছিলেন হিলারি। তবে এবার সম্ভবত সেই চেয়ারে বসতে যাচ্ছেন হিলারি ক্লিনটনই। তাহলে বিল ক্লিনটনের পদটি কী হবে- ‘ফার্স্ট জেন্টলম্যান’?

নাহ, সেরকম কোনো নিয়ম নেই যুক্তরাষ্ট্রে। তবে স্বামীর জন্য ঠিকই একটি গুরুত্বপূর্ণ পদ ঠিক করে রেখেছেন হিলারি। প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে ক্লিনটনকে ‘অর্থনৈতিক সংস্কার বিষয়ক প্রধান’ হিসেবে একটি পদ দেবেন তিনি। যদিও এটা এক ধরনের অনানুষ্ঠানিক পদ হিসেবেই থাকবে। তবে যথেষ্ট ক্ষমতা দেয়া হবে ক্লিনটনকে।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম ইন্ডিপেনডেন্ট জানিয়েছে, ভোটারদের জন্য এটা একটা গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিকে পুনরুজ্জীবিত করার জন্য দায়িত্ব দেয়া হবে ক্লিনটনকে। বিশেষ করে দরিদ্র এলাকাগুলোর অর্থনতির জন্য। ভোটারদের ওপর ক্লিনটনের জনপ্রিয়তা কাজে লাগাতেই এমন পদক্ষেপ নিয়েছেন হিলারি।

মার্কিন অঙ্গরাজ্য কেন্টাকির ফোর্ট মিশেলে এক র‌্যালিতে হিলারি বলেন, ‘আমার স্বামী, যাকে আমি অর্থনীতি পুনরুজ্জীবনের দায়িত্ব দিতে যাচ্ছি; এর কারণে আপনারা জানেন, তিনি কতটা ভালোভাবে এটা করতে পারবেন। বিশেষ করে সেসব অঞ্চলে দায়িত্ব দেয়া হবে, যেখানে কয়লাখনি আছে, ছোট-খাটো শহরগুলোতে এবং দেশের সেসব অঞ্চলে, যেগুলো অর্থনৈতিকভাবে বঞ্চিত।’

মার্কিন ক্যাবিনেটের ১৯৬৭ সালের আত্মীয়পোষণ-বিরোধী নীতি অনুসারে ক্লিনটনকে মন্ত্রী নিয়োগ দিতে পারবেন না হিলারি। তবে সরকারে ক্লিনটনের ব্যাপক প্রভাব থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে এখনো হিলারির দল ডেমোক্রেটদের পক্ষ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়নি।

যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্য পুর্তো রিকোতে ক্লিনটন বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে থাকা অঞ্চলগুলোর উন্নয়নের জন্য একটি পদ দেয়া হবে বলে আমাকে জানানো হয়েছে। আমি মনে করি এটা খুব, খুব গুরুত্বপূর্ণ।’

সিএনএন’র এক প্রতিবেদন অনুসারে, বিল ক্লিনটন প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন দুই কোটি ২০ লাখ নতুন চাকরি সৃষ্টি করা হয়েছে। তার আগের চার রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট মিলেও এত বেশি চাকরির সুযোগ সৃষ্টি করতে পারেননি। ইন্টারনেট এবং ওয়েব সম্পর্কিত জায়গাগুলোতেই সবচেয়ে বেশি চাকরি সৃষ্টি করা হয়েছিল তখন।

আর/১৭:১৪/০১ মে

উত্তর আমেরিকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে