Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-১৮-২০১৬

আমার অনুশোচনা হয়, কিন্তু উপায় ছিল না : ট্রাম্প

আমার অনুশোচনা হয়, কিন্তু উপায় ছিল না : ট্রাম্প

ওয়াশিংটন, ১৮ মে- অজস্র বর্ণবাদী, মুসলিম বিদ্বেষী, নারী বিদ্বেষী ঘৃণামূলক বিতর্কিত বক্তব্যের পরও রিপাবলিকান শিবিরের ১৬ জন প্রেসিডেন্ট প্রতিদ্বন্দ্বীকে হারিয়ে মনোনয়নের জন্য দলের একমাত্র সাম্ভাব্য প্রার্থীতে পরিণত হয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যে কারণে জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে দ্রুত সুর পাল্টে ফেলেছেন তিনি। এখন তিনি এমন কথা বলছেন যেটা দাম্ভিক পুঁজিপতি ট্রাম্পের চরিত্রের সম্পূর্ণ বিপরীত। 

মার্কিন সংবাদ মাধ্যম ফক্স নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেছেন, নির্বাচনী প্রচারণা চলাকালে তিনি যা করেছেন তার জন্য অনুশোচনায় ভুগছেন তিনি। কিন্তু সেটা না করেও তার উপায় ছিল না, তিনি কিছুতেই জিততে পারতেন না।   

গত সপ্তাহ থেকেই ট্রাম্প মুসলিম ও লাতিনদের উদ্দেশ্যে সুর নরম করেছেন। আগে তিনি বলেছিলেন মুসলিমদের যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকতে না দেয়ার কথা, এখন তিনি ঐ নীতি থেকে সরে এসে বলছেন সেটা ছিল সাময়িক একটা প্রস্তাবনা মাত্র।  

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনী প্রচারণার শুরু থেকেই বিশ্ববাসীকে চমক দেখিয়ে আসছেন ট্রাম্প। এতদিন তার যে মূর্তি বিশ্ববাসী দেখিয়ে এসেছে সেটা হঠাৎ বদলে গেছে। আবার চমকিত হয়েছে মানুষ। কারণ তিনি ভালো করেই জানেন নির্বাচনী প্রচারণায় রিপাবলিকানদের মুষ্টিমেয় দর্শকশ্রোতা এবং জাতীয় নির্বাচনের দর্শকশ্রোতা সম্পূর্ণ আলাদা।

গত আগস্ট মাস থেকেই মার্কিন সংবাদ মাধ্যম ফক্স নিউজের টিভি সাংবাদিক ও উপস্থাপিকা মেগান ক্যালির সাথে তার কথা কাটাকাটি এবং ঝগড়া চলছে। রিপাবলিকান প্রার্থীদের নিয়ে একটি টিভি বিতর্ক চলাকালে ক্যালির সাথে ঝামেলা হয় ট্রাম্পের। ক্যালির আগ্রাসী এবং স্পষ্টভাষী আচরণের কারণে তাকে অসংখ্যবার সামনাসামনি ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে আক্রমণ করে আপত্তিজনক কথাবার্তা বলেছেন ট্রাম্প।

ক্যালিকে দেয়া নতুন এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প স্বীকার করেছেন তিনি তার কৃতকর্মের জন্য অনুশোচনায় ভুগছেন। এ সময় ক্যালি ট্রাম্পকে তার সম্বন্ধে আপত্তিজনক মন্তব্য করার ব্যাপারে সরাসরি প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেও তিনি ‘এক্সকিউজ মি’ বলে ক্ষমা চান। ক্যালির সাথে ট্রাম্পের এই সাক্ষাতকারকে দেখা হচ্ছে মানুষের কাছে নিজেকে নতুনভাবে প্রতিষ্ঠা করার একটা প্রচেষ্টা হিসেবে। 

ট্রাম্প সাম্প্রতিক সময়ে এই জাতীয় আরও কর্মকাণ্ড এবং মন্তব্য শুরু করেছেন যেটার সাথে তার পূর্বের চরমপন্থি আচরণের কোন মিল নেই।এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের শত্রু দেশ বলে বিবেচিত উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে সরাসরি আলোচনায় আগ্রহ ব্যক্ত করেছেন ট্রাম্প।

জাতীয় নির্বাচনের আগ পর্যন্ত যে কোন ইস্যুতেই তিনি সংবাদমাধ্যমের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে যেমন থাকতে চান, তেমনি মার্কিন আপামর জনগণের হৃদয় জয় করতে চান। জেতার জন্য এতক্ষণ পর্যন্ত ট্রাম্প বিচক্ষণতা দেখিয়েছেন। তিনি মানুষের ভিড় দ্রুত চিনতে পারেন। তিনি জানেন কোন ভিড়ের মন কিভাবে জয় করতে হবে। ট্রাম্পের এবারের ভিড় বদলে গেছে, কাজেই তিনিও বদলে গেছেন। দেখা যাক, এবার জিততে পারেন কিনা।  

আর/১৭:১৪/০১ মে

উত্তর আমেরিকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে