Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৫-১৮-২০১৬

এবার আসলামের বিরুদ্ধে মাঠে নামছে দুদক

এবার আসলামের বিরুদ্ধে মাঠে নামছে দুদক

ঢাকা, ১৮ মে- ইসরায়েলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদ সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে এখন ব্যাপক আলোচিত বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব আসলাম চৌধুরী।  সেই আলোচনায় ও সমালোচনায় ঘি ঢাললো দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। অনেকটা ঢাকঢোল পিটিয়ে বিএনপি এ নেতার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ অনুসন্ধান করতে যাচ্ছে সংস্থাটি।
 
বুধবার দুদকের প্রধান কার্যালয়ে আসলামের বিরুদ্ধে আসা শত শত কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন। এজন্য একজন অনুসন্ধানী কর্মকর্তাও নিয়োগ দেয়া হয়েছে। তবে অন্য সব ধরনের অভিযোগ অনুসন্ধান শুরুর সময় গোপনীয়তা রক্ষা করা হলেও, আসলাম চৌধুরীর এ অভিযোগ দুদক স্ব-প্রণোদিত হয়ে গণমাধ্যমে জানিয়ে দিচ্ছে।
 
দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য জানান, আসলাম চৌধুরীর বিরুদ্ধে তার মালিকানাধীন রাইজিং গ্রুপ, একাধিক সিএনজি স্টেশন ও লবণ কারখানাসহ শত শত কোটি টাকার অবৈধ অর্জনের অভিযোগ আসে। যা আমলে নিয়ে যাচাই-বাছাই শেষে অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন। এজন্য দুদকের উপ-পরিচালক নাসির উদ্দিনকে অনুসন্ধান কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।
 
দুদকে আসা অভিযোগে আসলাম চৌধুরীরকে ‘মোসাদের এজেন্ট’ উল্লেখ করে বলা আছে, সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর হাত ধরে বিএনপি রাজনীতে আসেন আসলাম চৌধুরীর। এরপর অল্প দিনেই তারেক রহমানের সঙ্গে তার সখ্য গড়ে ওঠে। জোট সরকারের আমলে তাকে দেশের বৃহত্তম আদমজী জুটমিল ভাঙার কাজ দিয়েছিলেন তারেক রহমান। সেই সঙ্গে চট্টগ্রাম ও ঢাকার বেশ কয়েকটি রুগ্ন শিল্প কারখানা কিনেন আসলাম চৌধুরী।  অল্প সময়ে তিনি রাইজিংগ্রুপ নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন।  সীতাকুণ্ডসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে তার রয়েছে একাধিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও সিএনজি স্টেশন।  চট্টগ্রামের বোয়ালখালিতে রয়েছে কনফিডেন্ট সল্ট নামের একটি লবণ কারখানা। কক্সবাজারে রয়েছে শত শত বিঘা জায়গাজমি এবং চকরিয়ার ইনানী রিসোর্টের মালিকও তিনি।  চট্টগ্রামের নাসিরাবাদ ও সাগরিকা সড়কে তার রয়েছে ফিশ প্রিজার্ভাস নামে দুটি মৎস কারখানা। এছাড়া ঢাকার গুলশান ও বনানীতে রয়েছে অভিজাত ফ্ল্যাট।
 
অভিযোগে আরো বলা হয়, অল্প সময়ে আসলাম চৌধুরী বিএনপি রাজনীতি করার সুবাদে শূন্য থেকে হাজার কোটি টাকার অবৈধ সম্পদের মালিক হয়েছেন। এর মধ্যে মোসাদের এজেন্ট হিসেবে বিভিন্ন সন্ত্রাসী তৎপরতা চালানোর জন্য বিভিন্ন পরিকল্পনায় লিপ্ত রয়েছেন। তার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান করলেই আসল তথ্য বেরিয়ে আসবে এবং তার অবৈধ সম্পদের বাস্তব চিত্র উন্মোচিত হবে।

উল্লেখ্য, সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র নিয়ে ভারতের ইসরায়েলি এক নেতার সঙ্গে বৈঠক করার অভিযোগে বিএনপি নেতা আসলাম চৌধুরীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ৫৪ ধারায় তাকে সাত দিনের রিমান্ডেও নিয়েছে পুলিশ। এখন তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

আর/১৭:১৪/০১ মে

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে