Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-১৭-২০১৬

বিশ্বনাথে লন্ডনির তৃতীয় বিয়ে নিয়ে তোলপাড়

বিশ্বনাথে লন্ডনির তৃতীয় বিয়ে নিয়ে তোলপাড়

সিলেট,  ১৭ মে- বিশ্বনাথে নাতনির বয়সী কন্যা স্বপ্নাকে বিয়ে করায় আকদ্দুস আলী নামের এক লন্ডন প্রবাসীকে নিয়ে তোলপাড় চলছে। এটি তার তৃতীয় বিয়ে। এর আগে তিনি দুই বিয়ে করলেও তৃতীয় বিয়েতে স্ত্রীদের অনুমতি নেননি। এ কারণে আকদ্দুস আলীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিয়েছে দ্বিতীয় স্ত্রী রাহেলা বেগম। 

আর নববধূ স্বপ্না জানিয়েছেন, বিয়ের আগে আকদ্দুস জানিয়েছেন তার পূর্বের স্ত্রীরা মারা গেছেন। এবং বিয়ের আগে তিনি প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তাকে লন্ডনে নিয়ে যাবেন। 

বিশ্বনাথ উপজেলার বিশ্বনাথ ইউনিয়নের মুফতিরগাঁও গ্রামের মৃত হরমুজ আলীর পুত্র আবিদ আলী ওরফে আকদ্দুস আলী  তারই স্বজন ইদ্রিস আলীকে পিতা দেখিয়ে  দীর্ঘ প্রায় তিন দশক পূর্বে লন্ডনে পাড়ি জমান। আর সেই সুবাদে বর্তমানে তিনি বৃটেনের একজন স্থায়ী নাগরিক। যুবক বয়সে আকদ্দুস আলী দেশে এসে বিয়ে করেন কল্যাণপুর গ্রামের কাছামালা বেগমকে।  

প্রথম স্ত্রীর ঘরে আকদ্দুস আলীর রয়েছে ৬ সন্তান ও প্রায় এক ডজন নাতি-নাতনি। সন্তানরা প্রায় সকলেই বিবাহিত। এরপর আকদ্দুস আলী প্রথম স্ত্রী কাছামালার  অনুমতি না নিয়ে আপন খালাতো বোন রাহেলা বেগমকে বিয়ে করেন। এই স্ত্রীর ঘরে রয়েছে তার ৩ সন্তান।

পূর্বের স্ত্রীর সন্তানদের মতো এই স্ত্রীর সন্তানরাও বৃটেনের স্থায়ী নাগরিক। দুই স্ত্রী থাকা সত্ত্বেও গত প্রায় ৩ বছর পূর্বে আকদ্দুস আলী দেশে এসে তৃতীয়বারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে বসেন।

এবার তার পছন্দ হয় নাতনির বয়সী সুন্দরী কিশোরী স্বপ্না বেগমকে। দিনমজুর পরিবারের মেয়ে স্বপ্না প্রবাসী আকদ্দুস আলীর মিষ্টি কথায় আর স্বপ্নের দেশ লন্ডনের কথা ভেবে বিয়েতে সম্মতি দেয়। প্রবাসী আকদ্দুস আলী এই স্ত্রীকে উপজেলার নতুন বাজারে নিজ বাসায় তুলতে না পারায় তার পিত্রালয় পূর্ব শ্বাসরাম গ্রামে রেখে দেন। 

এ দফায় প্রায় দুই মাস আগে দেশে আসেন আকদ্দুস আলী। এসেই তিনি দ্বিতীয় স্ত্রী রাহেলাকে বিয়ের কথা জানান। এবং স্বপ্নাকে বাসায় তুলতে অনুমতি চান। এতে বাধ সাধেন স্বপ্না। তিনি স্বামীর উপর ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন। বিশ্বনাথ থানায় দিয়েছেন এজাহার। 

এতে তিনি উল্লেখ করেছেন, গত কয়েক বছর ধরে আকদ্দুস আলী বিয়ের অনুমতি দেয়ার জন্য চাপ দিয়ে আসছেন। এতে তিনি সম্মতি না দেয়ায় তাকে লন্ডনে থাকা তার ৩ বৃটিশ সন্তানদের যোগাযোগের কোনো সুযোগ দিচ্ছেন না আকদ্দুস আলী। বরং বিভিন্নভাবে মানসিক নির্যাতন করছেন এবং তাকে তালাক দিয়ে বাসা ছাড়ার হুমকি এমনকি মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে আসছেন। এতে তিনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। 

এদিকে, আকদ্দুস আলীর নতুন স্ত্রী স্বপ্না বেগম জানিয়েছেন, বিয়ের পূর্বে আমাকে লন্ডন নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। এবং বর্তমানে আমি ছাড়া তার আর কোনো স্ত্রী নেই। লিখিত অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার এসআই মো. তোফাজ্জল হোসেন বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এফ/১৬:৩১/১৭মে

সিলেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে