Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 5.0/5 (1 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-১২-২০১৬

সিনেমাজগতের মজার কিছু তথ্য

আফসানা সুমী


সিনেমাজগতের মজার কিছু তথ্য

সেই প্রাচীন সময়ের নির্বাক চলচ্চিত্র থেকে শুরু করে আজকের আধূনিক থ্রিডি চলচ্চিত্র পর্যন্ত সমাজের বিকাশের ধারায় বিভিন্নভাবে অবদান রেখেছে সিনেমা। বলিউডের সিনেমা হোক আর হলিউডের, জীবনের গল্পের চিত্রায়ণে বাস্তবতা থাক আর থাক অতিরঞ্জন, সিনেমা দেখতে ভালোবাসি আমরা সবাই। সিনেমা একটি জাতির সংকৃতিকে রূপ দেয় আবার সিনেমা দেখেই আপনি চিনতে পারেন জাতির সাংকৃতিক মান।
 
আমরা স্মরণ করতে পারি একুশের সিনেমা 'জীবন থেকে নেয়া'র কথা। আমরা স্মরণ করতে পারি 'ওরা ১১ জন', 'আলোর মিছিল' এইসব সিনেমার কথা। জাতীয় আন্দোলনে এভাবেই ভূমিকা রেখেছে সিনেমা। কখনো শিশুদের করেছে সৃজণমূখী, কখনো তরুণদের আগ্রহী করেছে রাজনীতিতে। আবার বিশৃংখলার জন্য দায়ী সিনেমাও আছে। ভুতের ভয় দেখিছে সিনেমা। আবার সেই ভুত কীভাবে তাড়াতে হবে তাও দেখিয়েছে। এমনকি ভুত যে অন্ধ বিশ্বাস, তাও চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়েছে এই সিনেমাই।
 
আমাদের জীবনে জ্ঞানে-অজ্ঞানে সিনেমার অবদান অনেক। আসুন জেনে নিই, সিনেমা এবং সিনেমাজগতের মানুষদের প্রসঙ্গে মজার কিছু তথ্য।
 
১। টাইটানিক সিনেমাটি বানাতে যা খরচ হয়েছিল তা টাইটানিক জাহাজ তৈরীর খরচের তুলনায় বেশী।
 
২। নাইজেরিয়া প্রকৃতপক্ষে যুক্তরাষ্ট্রের চেয়ে বেশী সিনেমা তৈরি করে।
 
৩। ডেভিড হলমাস, তিনি ডানিয়েল রেডক্লিফের স্টান্ট হেরি পটারের প্রথম ৬টি ছবিতে অভিনয় করেন। কিন্তু সপ্তম সিনেমায় তিনি আর অংশ নিতে পারেন নি। কারণ শুটিং চলাকালে দূর্ঘটনায় প্যারালাইজড হয়ে যান তিনি।
 
৪। মর্গান ফ্রিম্যান একজন বিখ্যাত আমেরিকান অভিনেতা। তিনি ৩৪ বছর পর্যন্ত কোন সিনেমায় আবির্ভূত হতে পারেন নি। ৫২ বছর বয়সের আগে কোন বড় চরিত্রই পান নি তিনি। সিনেমা জগতের অনেকেরই রয়েছে এমন কষ্টকর সংগ্রামের কাহিনী।
 
৫। বারোত ছিল একটি কমেডি সিনেমা, যা তৈরি করা হয়, কাজাকিস্তানকে আরও সুন্দর দিকনির্দেশনা দেওয়ার উদ্দেশ্য থেকে। তবে বাস্তবে এটি ছিল ইজরায়েলের উপর বড় একটি আঘাত। কারণ, কাজাকিস্তানকে নিয়ে লেখা প্রতিটি লাইন ছিল হিব্রু ভাষার!
 
৬। অটো ফ্রাঙ্ক অড্রে হেপবার্নকে চিঠি লিখেছিলেন তার মেয়ে আনা ফ্রাঙ্কের চরিত্রে অভিনয়ের জন্য। হেপবার্ন বিনয়ের সাথে প্রস্তাবটি ফিরিয়ে দেন। কারণ তার নিজের জীবনের কষ্টভারাক্রান্ত স্মৃতি জড়িত নাৎসিদের সংগে, নেদারল্যান্ডে। সেই স্মৃতি তার চরিত্রকে আরও চ্যালেঞ্জিং করতে পারে।
 
৭। জেমস ক্যামেরন যখন টার্মিনেটর সিনেমাটি লেখেন তখন তিনি ছিলেন বাস্তুহারা। তিনি তার স্ক্রিপ্ট বিক্রী করে দেন মাত্র ১ ডলারে, এই শর্তে যে, সিনেমা পরিচালনার দায়িত্ব দিতে হবে তাকেই।
 
৮। প্রথম টাইটানিক সিনেমাটি জাহাজ ডুবির ১ মাসেরও কম সময়ের মধ্যেই প্রকাশিত হয়। সিনেমাটি এমন একজনকে অভিনেত্রী হিসেবে সামনে নিয়ে আসেন যিনি প্রকৃতপক্ষে টাইটানিক ডুবিতে বেঁচে গিয়েছিলেন।
 
৯। ওয়াল্ট ডিজনি ষাটের দশকে আলফ্রেড হিচকককে ডিজনীল্যান্ড সিনেমাটি তৈরির অনুমতি দেন নি। কারণটি খুবই হাস্যকর। কারণ হল। হিচকক জঘন্য সিনেমা 'সাইকো' নির্মাণ করেছিলেন।
 
১০। সেন কনারি ২১ বছর বয়স থেকেই টাক হয়ে যাচ্ছিলেন। তাই তিনি তার সব জেমস বন্ড সিনেমাতেই একটি পরচূলা পরিধান করেন।
 
১১। এত জনপ্রিয় হওয়া স্বত্ত্বেও ব্রাড পিট, জনি ডেপ এবং হ্যারিসন ফোর্ড কখনো অস্কার জেতেন নি। এই লিস্টে থাকতেন লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও ও। তবে শেষমেশ এবছর অস্কার জেতেন তিনি।
 
১২। টার্মিনেটর ২ এ Arnold Schwarzenegger কে ২০,০০০ ডলারেরও বেশী অর্থ প্রদান করা হয়, তার উচ্চারিত প্রতিটি শব্দের জন্য!

লিখেছেন- আফসানা সুমী

এফ/০৮:৩৪/১২মে

জানা-অজানা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে