Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-১১-২০১৬

কোলেস্টেরল কি স্বাস্থ্যের জন্য ভালো? জানুন আরও তথ্য

আফসানা সুমী


কোলেস্টেরল কি স্বাস্থ্যের জন্য ভালো? জানুন আরও তথ্য

কোলেস্টেরল। আমাদের কাছে খুবই দূর্নাম খাবারের এই উপাদানটির। কারণ আমাদের পছন্দের তালিকার অনেক প্রায় সব খাবারই কোলেস্টেরল বাড়ায়। আবার নানান স্বাস্থ্য সমস্যার জন্যও দায়ী কোলেস্টেরল। কিন্তু এই জৈব অণুটি আমাদের জানার চেয়েও বেশী জটিল এবং মজার সব কাজ করে। আবার সব কোলেস্টেরল শরীরের জন্য খারাপও নয়। আসুন জেনে নিই কোলেস্টেরল সম্পর্কিত কিছু তথ্য। কারণ স্বাস্থ্য সচেতনতায় থাকা চাই পরিপূর্ণ জ্ঞান।
 
১। মায়ের বুকের দুধে ভাল কোলেস্টেরলের মাত্রা অনেক বেশি। প্রাকৃতিকভাবেই এই দুধে থাকা স্নেহ পাদার্থ শিশুর শরীর সহজে এবং দ্রুত গ্রহণ করতে পারে। বাচ্চাদের ক্ষেত্রে, কোলেস্টেরল কার্ডিওভাস্কুলার ডিজিজ থেকে মুক্ত থাকতে সাহায্য করে এবং শিশুর মস্তিষ্কের বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
 
২। অস্বাস্থ্যকর খাবার, জেনেটিক প্রিডিস্পোজিশন এবং শারীরিক কর্মক্ষমতার ঘাটতি, ধূমপানের কারণে যেসব সমস্যা হয়, অতিমাত্রায় এলকোহল গ্রহণ এমনকি স্ট্রেস আপনার রক্তের কোলেস্টেরল বাড়িয়ে দিতে পারে। বুঝে নিন আপনার কোন অভ্যাসটি বদলানো প্রয়োজন!
 
৩। একটি জুটির নারী এবং পুরুষ উভয়েরই যদি অতিমাত্রায় কোলেস্টেরল থাকে তাহলে সন্তান নেওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে তাদের। এমনকি, যদি যে কোন একজনের কোলেস্টেরল লেভেল বেশী থাকে তাহলেও সন্তান ধারণে সময় বেশী লাগতে পারে জুটিটির।
 
৪। গর্ভবতী নারীদের প্রকৃতিগতভাবেই অন্য নারীদের তুলনায় কোলেস্টেরল বেশী থাকে। এটা খুবই স্বাভাবিক যে, একজন গর্ভবতী নারীর এল ডি এল এর মাত্রা এ সময় সর্বোচ্চ পর্যায়ে চলে যেতে পারে। একটি সন্তানের শরীর গর্ভে গড়ে উঠতে প্রচুর কোলেস্টেরল প্রয়োজন হয়। প্রয়োজন হয় শিশুটিকে জন্মদানের জন্যেও।
 
৫। খারাপ কোলেস্টেরল কমাতে এবং ভাল কোলেস্টেরল বাড়াতে চাইলে সবচেয়ে সহজ এবং কার্যকরি পথ হল স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া। এক্সারসাইজ করাও এক্ষেত্রে উপকারী হিসেবে প্রমাণিত। ডাক্তাররা এজন্যই হাই কোলেস্টেরলের রোগীদের প্রতিদিন অন্তত ৩০ মিনিট শারীরিক কসরত করার পরামর্শ দেন।
 
৬। আপনি কি জানেন, কোলেস্টেরল ত্বকের জন্য ভাল? কোলেস্টেরল আপনার ত্বককে সুরক্ষা দেয়, ময়েশ্চারাইজার এবং অন্যান্য স্কিন কেয়ার পণ্যে বাড়তি উপাদান হিসেবে যুক্ত করা হয় এটি। ত্বককে ইউভি ড্যামেজ থেকে রক্ষা করতে এবং পর্যাপ্ত ভিটামিন ডি সরবরাহ করতে কোলেস্টেরলের জুড়ি নেই।
 
৭। আমাদের শরীরে যে পরিমাণ কোলেস্টেরল থাকে তার মাত্র ৩ ভাগের ১ ভাগ আমরা খাবার থেকে গ্রহণ করি। গবেষণায় দেখা গেছে, আপনি যদি কোন প্রকার কোলেস্টেরল বাড়ায় এমন খাবার গ্রহণ নাও করেন তবু আপনার শরীর নিজেই প্রয়োজনীয় পর্যাপ্ত কোলেস্টেরল উৎপাদন করতে সক্ষম হবে এবং তা দিয়ে সানন্দে চলবে সব শারীরিক কার্যক্রম।
 
৮। বাজারে যেসব খাবার যেমন, আলুর চিপস, কেক, কুকি ইত্যাদি বিক্রীর সময় যদিও বলা হয় এসব খাবারে কোন কোলেস্টেরল নেই, আসলে এগুলোতে কোলেস্টেরল বাড়ায় এমন ফ্যাট থাকতে পারে। এমনকি হাইড্রোজেনেটেড ভেজিটেবল ওয়েলেও থাকে এই ফ্যাট। যা আপনার খারাপ কোলেস্টেরলকে বাড়ায় এবং ভাল কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়।
 
৯। শরীরে কোলেস্টেরল বাড়তে থাকলে তা ধমনীতে স্তর ফেলে দেয়। এর মাত্রা যতই বাড়ে হলুদ রঙের ফ্যাটের স্টোর তত ভারি হতে থাকে। আপনি যদি আপনার শরীরের অভ্যন্তরের কোলেস্টেরলের স্তর দেখতে পেতেন, তাহলে দেখতেন ভারি লেয়ারের মাখন!
 
১০। কোলেস্টেরলের উচ্চ মাত্রা যেমন ভাল নয় তেমনি কোলেস্টেরল কমে যাওয়াও স্বাস্থ্যের জন্য খারাপ। ১৬০ mg/dl (মিলিগ্রাম পার রক্তের ডেসিলিটার) এর চেয়ে কম কোলেস্টেরল অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যার তৈরীর পাশাপাশি ক্যান্সারের ঝুকিও বাড়ায়। গর্ভবতী নারীদের কোলেস্টেরলের মাত্রা কম থাকলে প্রি-ম্যাচিউর সন্তান জন্মদানের ঝুঁকি থাকে।

আর/১০:১৪/১১ মে

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে