Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-১০-২০১৬

আংশিক নিষেধাজ্ঞা উঠল শাহাদাতের

আংশিক নিষেধাজ্ঞা উঠল শাহাদাতের

ঢাকা, ১০ মে- ‘অনাকাঙ্ক্ষিত’ ঘটনার জন্য দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চাওয়া শাহাদাত হোসেনকে ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলার অনুমতি দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তবে শিশু গৃহকর্মী নির্যাতনের মামলার নিষ্পত্তি হওয়া পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষিদ্ধই থাকবেন এই পেসার।

শাহাদাতের আবেদনে সাড়া দিয়ে মঙ্গলবার বিসিবি তার ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা সাময়িকভাবে তুলে নেয়। পরে সংবাদ মাধ্যমকে এর ব্যাখ্যা দেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন চৌধুরী।

“একটা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার কারণে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড় শাহাদাত হোসেন রাজিবকে নিষিদ্ধ করা হয়েছিলো। পরে আমরা জেনেছি, শাহাদাত ও বাদীর মধ্যে একটা সমঝোতা হয়েছে। এর একটা ডকুমেন্ট সে বোর্ডে জমা দিয়েছে।”

“এ সব ব্যাপারে বিসিবির ‘জিরো টলারেন্স’ অবস্থান বদলাবে না। শাহাদাত একটা ভুল করে ফেলেছে। এর মাশুল কিন্তু সে দিচ্ছে। সে যেহেতু অনুতপ্ত এবং দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চেয়েছে, এ ছাড়া বাদীর সঙ্গে সে সমঝোতা করেছে; সব কিছু বিবেচনা করে আমরা তাকে খেলতে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।”

অপরাধ প্রমাণ না হলেও নিষিদ্ধ করা হয়েছিল শাহাদাতকে। এখনও নির্দোষ প্রমাণ না হলেও খেলার অনুমতি পেলেন তিনি। বিসিবির অবস্থান পাল্টে ফেলার বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, “বিসিবি অবস্থান বদলায়নি। আমরা কেবল ঘরোয়া ক্রিকেটে তাকে অনুমতি দিচ্ছি। তাকে কিন্তু জাতীয় দলে খেলার অনুমতি দেয়া হয়নি। আদালত থেকে পুরোপুরি রায় বা সিদ্ধান্ত না আসার আগ পর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত বহাল থাকবে, শুধু সে ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলতে পারবে। মানবিক কারণেই তাকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে।”

এ দিকে কঠিন সময় পেছনে ফেলে সামনে এগিয়ে যেতে প্রত্যয়ী শাহাদাত। বিপদে পড়ে জীবন দর্শনও পাল্টেছে এই ক্রিকেটারের।

“আমার বয়স এখন ২৮ বছর। আগে মন মানসিকতা অন্য রকম ছিল। পেসার হিসেবে আমার জীবনটা খুব ভালো ছিল না, নানা রকম অনিয়ম ছিল। এখন আমি কীভাবে এগোব, তা আমার মাথায় আছে। আমি সব কিছু বদলে ফেলতে চাই।”

গত ২৮ এপ্রিল মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দেশ ও জাতির কাছে ক্ষমা চেয়ে ক্রিকেটে ফেরার অনুমতি চান শাহাদাত। মঙ্গলবার ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের ম্যাচ দেখতে এসে নিজের প্রতিক্রিয়া জানান তিনি।

“আমি বলে বোঝাতে পারবো না। সব সময় খেলতে মন চাইতো। বিপিএল খেলতে পারি নাই। আমি যখন বাইরে ছিলাম, আমার জন্য ব্যাপারটা অনেক কষ্টদায়ক ছিল।”

মোহামেডানের সঙ্গে গত কিছু দিন ধরে অনুশীলন করা শাহাদাত জানান, মুশফিকুর রহিমের নেতৃত্বাধীন এই দলেই খেলতে পারেন তিনি।   

“আমি কিন্তু জেলের ভিতরে সুযোগ পেলে খেলেছি। অনুশীলনও করেছি। জেলে তো জিম নাই। যতোটা সম্ভব চেষ্টা করেছি। আমার জেদ ছিলো দ্রুত ফিট হওয়ার। আজ ফিটনেস টেস্ট দিলাম। আপনারা জানতে পারবেন, কেমন হলো। এখন আমি পুরো শক্তিতে বোলিং করতে পারছি।”

আর/১৭:৩৪/১০ মে

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে