Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৫-১০-২০১৬

নেতাদের ক্ষোভ, খালেদার নাকচ

নেতাদের ক্ষোভ, খালেদার নাকচ

ঢাকা ১০ মে- বিএনপির স্থায়ী কমিটির বৈঠকে উপস্থিত বেশিরভাগ সদস্য ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে মনোনয়ন বাণিজ্যের অভিযোগ নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। একইসঙ্গে তাঁরা অভিযোগ তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ারও কথা বলেছেন।

তবে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া এ বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত জানাননি। তিনি মনে করেন, সরকার বিএনপির ভাবমূর্তি নষ্ট করতে এসব করাচ্ছে।

সোমবার রাতে গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে খালেদা জিয়ার সভাপতিত্বে স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকের বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বিএনপির পক্ষ থেকে কিছু জানানো হয়নি।

পৌণে দশটার দিকে শুরু হয়ে বৈঠক সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চলে।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন এমন দুজন নেতা জানান, বৈঠকে মূল আলোচনা ছিল মনোনয়ন বাণিজ্য অভিযোগ নিয়ে। খালেদা জিয়া ও স্থায়ী কমিটির দুজন সদস্য ছাড়া বাকি আটজন এটি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

তাঁরা বলেছেন, প্রতিনিয়ত পত্রপত্রিকায় মনোনয়ন বাণিজ্য এবং বিএনপির গুলশান ও নয়াপল্টন কার্যালয় সংশ্লিষ্ট কিছুসংখ্যক নেতা ও কর্মকর্তাকে নিয়ে লেখালেখি হচ্ছে। এক নেতার অ্যাকাউন্টের টাকা নিয়েও পত্রিকায় লেখালেখি হয়েছে। এসবের মাধ্যমে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে।

এতে দলে একধরণের সংকট তৈরী হচ্ছে।  এসবের তদন্ত করে দোষিদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

বৈঠক সূত্র জানায়, নীতি নির্ধারণী ফোরামের নেতাদের এমন বক্তব্যের জবাবে খালেদা জিয়া তদন্ত করার বিষয়ে সরাসরি কোনো সিদ্ধান্তের কথা জানাননি। তবে তিনি বলেছেন, তাঁর ধারণা সরকার এসব করাচ্ছে।

তখন স্থায়ী কমিটির একজন সদস্য বলেন, বিএনপির কেউ জড়িত না থাকলে বা সুযোগ না দিলে সরকার এসব করানোর সুযোগ পেত না।

বৈঠক সূত্র জানায়, বৈঠকে যথাযোগ্য মর্যাদায় দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী পালন করা, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে শেষ পর্যন্ত থাকার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে প্রয়োজন মনে করলে চেয়ারপারসন নিজেই ইউপি নির্বাচন বর্জনের সিদ্ধান্ত নেবেন।

বৈঠকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, মাহবুবুর রহমান, জমির উদ্দীন সরকার, হান্নান শাহ, আব্দুল মঈন খান, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায় ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর  উপস্থিত ছিলেন।

আর/১৭:৩৪/১০ মে

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে