Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-০৮-২০১৬

প্রধানমন্ত্রীর ই-বোট চলছে দাঁড়ের জোরেই

প্রধানমন্ত্রীর ই-বোট চলছে দাঁড়ের জোরেই

বারাণসী, ০৮ মে- সৌরশক্তির বদলে প্রধানমন্ত্রীর ই-বোট চলছে বাহুর জোরেই৷ এক সপ্তাহ আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বারাণসীতে গঙ্গার পারানি মাঝিদের সৌরশক্তিসম্পন্ন নৌকা উপহার দিয়েছিলেন৷ যেগুলি বাইতে মাথার ঘামও পায়ে ফেলতে হবে না, আবার ডিজেল ব্যবহার করে মোটরেও চালাতে হবে না৷ মোদী প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, এ রকম ১১টি নৌকা তিনি উপহার দেবেন৷পয়লা মে তার মধ্যে পাঁচটা তিনি উপহার দেন৷

কিন্তু ১১টি তো পরের কথা, আপাতত পাঁচটি ই-বোট চালাতে গিয়েই পারানিদের মাথায় হাত৷ এই ধরনের সৌরশক্তিচালিত জলযান যে ব্যাটারিতে চলে, সেগুলি রিচার্জ করতে হয় সোলার প্যানেলের মাধ্যমে৷ কিন্তু গত এক সপ্তাহ যাবৎ বারাণসীর কোনও ঘাটে চার্জ দেওয়ার উপযুক্ত কোনও সোলার প্যানেলই লাগানো হয়নি! অনেকটা সেই ঘোড়া না দিয়ে জুড়িগাড়ি দেওয়ার মতো ব্যাপার!  অগত্যা ই-বোটগুলির এখন সেই মাঝিদের হাতের জোর আর দাঁড়ই ভরসা৷ প্রাচীন ভারতের ঐতিহ্য ধরে রেখেছে যে কটি জনপদ, তার মধ্যে বারাণসী সর্বাগ্রগণ্য৷ সেই বারাণসীর স্মৃতি সব থেকে বেশি ধরা আছে তার ঘাটগুলিতে৷ অথচ, সেখানে ধুমধাম করে ই-বোট দিলেন প্রধানমন্ত্রী, যিনি আবার এখন সেখানকার সাংসদও বটে, অথচ সেগুলির জন্য কোনও চার্জিং পয়েন্টের কথাই ভাবলেন না৷ স্থানীয় প্রশাসনের সাফাই, বোটেই সোলার প্যানেলের ব্যবস্থা করা হয়েছিল, কিন্তু তা কাজ না করাতেই এই বিপত্তি৷ এছাড়াও ই-বোটগুলি নিয়ে মাঝিদের রয়েছে আরও অভিযোগ৷ চালকের হাল ধরার জায়গাটি যেখানে, সেটি প্লাস্টিকের হওয়ায় ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কা প্রবল৷ অভিজ্ঞ মাঝিদের মতে, এই বোটগুলি একদমই বারাণসীতে চলাচল করার উপযুক্ত নয়, বিশেষত বর্ষাকালে৷

যখন প্রধানমন্ত্রী বারাণসীর পারানিদের এই বোট উপহার দিয়েছিলেন তখন বুক বাজিয়ে বলেছিলেন, এতে দিনে তাঁদের ৫০০ টাকা করে ডিজেল খরচা কমে যাবে৷ কিন্তু সেসব একেবারেই হয়নি, বরং খরচা আরও বেড়ে গিয়েছে৷ ঘটা করে উপহার পাওয়া ই-বোট তাঁদের কাছে হয়ে দাঁড়িয়েছে কার্যত নাকের বদলে নরুণ মেলার শামিল৷

তবে পারানিরা জানিয়েছেন, বংশ পরম্পরায় বহু ঝড়জল তাঁরা সামলেছেন৷ অতএব ই-বোটের ক্ষেত্রেও তাঁরা অত সহজে হাল ছাড়ছেন না৷ বিষয়টি নিয়ে তাঁরা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও কেন্দ্রীয় শক্তি প্রতিমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের কাছে নালিশ জানাবেন৷ বিজেপি-র বারাণসীর মুখপাত্র অশোককুমার পাণ্ডে অবশ্য মাঝিদের অসুবিধা নিয়ে অত মাথা ঘামাতে নারাজ৷ তাঁর মতে, এই অসুবিধার অনুযোগ নিতান্তই ‘মনগড়া’৷ বোটে সোলার প্যানেলের ব্যবস্থা করা সম্ভব নয়৷ তার জন্য ঘাটেই বন্দোবস্ত রাখতে হবে৷ সেটা যত তাড়াতাড়ি করা যায়, করার চেষ্টা চলছে৷

দক্ষিণ এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে