Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.5/5 (2 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-০৫-২০১৬

৫ পয়সা চুরির মামলা লড়ছেন ৪৩ বছর ধরে!

রণবীর সিং যাদব


৫ পয়সা চুরির মামলা লড়ছেন ৪৩ বছর ধরে!

নয়াদিল্লি, ০৫ মে- সত্যিই বিচিত্র! মাত্র ৫ পয়সা চুরির অভিযোগে চাকরি খুইয়ে দীর্ঘ ৪৩ বছর ধরে আইনি লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন দিল্লির বাসিন্দা ৭৩ বছরের বৃদ্ধ রণবীর সিং যাদব। এমনকি এই দীর্ঘ সময়ের মধ্যে ৫ পয়সাও অচল হয়ে গেছে। ভারতে বছরের পর বছর ধরে মামলা চলার নজির কম নেই। তবে রণবীর সিংয়ের মামলাটি যেন আগের সব নজিরকে ছাপিয়ে গেছে।

৪৩ বছর আগের কথা। সালটা ১৯৭৩। আজকের ৭৩-এর বৃদ্ধ রণবীর সিং যাদব তখন দিল্লি ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের (ডিটিসি) তরুণ বাস কন্ডাক্টর। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে, এক নারী যাত্রীর থেকে টিকিট বাবদ ৫ পয়সা বেশি নিয়েছিলেন। টিকিটের দাম ছিল ১০ পয়সা। রণবীর ওই নারীর থেকে ১৫ পয়সা নিয়ে ১০ পয়সার টিকিট তাঁকে দিয়েছিলেন। ৫ পয়সা নিজের পকেটে রেখে দেন।

ওই নারী ডিটিসি-তে অভিযোগ করেন। অভ্যন্তরীণ তদন্তে রণবীর দোষী প্রমাণিত হন। ১৯৭৬ সালে তাঁকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়। চাকরি চলে যাওয়ায় ডিটিসি'র বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন রণবীর। তারপর শুরু শুনানি। এ নিয়ে দীর্ঘ ৪৩ বছর কেটে গেছে। যুবক রণবীর এখন বৃদ্ধ। ৫ পয়সার মামলা চালাতে রণবীর সিং যাদবের খরচ হয়ে গেছে এ পর্যন্ত ৪৭ হাজার টাকা।

১৯৯০ সালে শ্রমিক আদালতে মামলা জিতে যান রণবীর। শ্রমিক আদালত জানায়, রণবীরকে বরখাস্ত করা ছিল বেআইনি। আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে উচ্চতর আদালতে যায় ডিটিসি। দিল্লি হাইকোর্টও মামলাটি চলতি বছরের জানুয়ারিতে খারিজ করে দিয়ে রণবীরকে ৩০ হাজার টাকা, গ্র্যাচুইটি বাবদ ১ লক্ষ ২৮ হাজার টাকা ও প্রভিডেন্ট ফান্ড বাবদ ১ লক্ষ ৩৭ হাজার টাকা দেওয়ার জন্য ডিটিসিকে নির্দেশ দেয়। কিন্তু ডিটিসি ৫ পয়সা আদায় করে ছাড়ার জন্য ফের মামলা করে।

বৃদ্ধের কথায়, '৫ পয়সা বা ২ পয়সা বড় নয়, আমার প্রতি যে অবিচার করা হয়েছে, তা কয়েক লক্ষ টাকার সমান। আমার নাতি-নাতনিরা ভাবে, আমি চোর। এভাবে বাঁচা যায়?' ২৬ মে মামলাটির ফের শুনানি।

- সূত্র: এইসময়।

এফ/১৬:৩৫/০৫মে

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে