Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-০৪-২০১৬

দুর্দান্ত জয়েও একাদশ নিয়ে বিভ্রান্তিতে কেকেআর

দুর্দান্ত জয়েও একাদশ নিয়ে বিভ্রান্তিতে কেকেআর

বেঙ্গালুরু, ০৪ মে- বেঙ্গালুরুর মাঠে তারকা-সমৃদ্ধ বেঙ্গালুরুকে হারিয়ে বেশ আত্মবিশ্বাসী কলকাতা নাইট রাইডার্স। এ জয়ে আইপিএলের পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান সাকিবদের।

তবে আত্মবিশ্বাসের পাশাপাশি আতঙ্কে রয়েছি দলটি। এ দলের সবচেয়ে বড় আতঙ্কের কারণ ইডেনের পিচ। চলতি আইপিএলে নাইটদের এখনও খেলতে হবে আরও ছ’টি ম্যাচ।

তার মধ্যে পাঁচটিই ইডেনে গার্ডেনে। যার প্রথমটি আজ বুধবার প্রীতি জিন্তার কিংগস ইলেভেন পঞ্জাবের বিপক্ষে। তবে এটা অপেক্ষাকৃত সহজ ম্যাচ মনে হতে পারে তাদের জন্য।

যেহেতু প্রতিপক্ষ কিংগস ইলেভেন এখন পর্যন্ত মাত্র দু'টা ম্যাচ জিতেছে। কিন্তু তারপরেই গুজরাট লায়ন্স, রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর, সানরাইজার্স হায়দরাদের মতো কঠিন প্রতিপক্ষকে খেলতে হবে।

সাধারণত ঘরের মাঠে গুরুত্বপূর্ণ শেষ পর্বের সব ম্যাচ খেলতে পারছে জেনে যে কোনও দল খুশিতে আত্মহারা হয়। এখানে কেকেআর শিবিরে ততটা খুশির হাওয়া নেই।

এর মূল কারণ ইডেনে পছন্দের পিচ পাওয়া নিয়ে নানা অনিশ্চয়তা তৈরি হয়ে থাকা। এটা জানার জন্য কোনও ক্রিকেট এক্সপার্ট হওয়ার প্রয়োজন নেই যে, কেকেআরের বোলিং শক্তি স্পিন-নির্ভর।

একে তো সুনীল নারাইন ফিরে এসেছেন। নারাইনের সংগ্রহে এখন ছয় ম্যাচ থেকে ছয় উইকেট। ধীরে ধীরে তিনি ছন্দে ফিরছেন বলেই মনে হচ্ছে।

এর সঙ্গে বাংলাদেশি অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান, পীযূষ চাওলা ও ব্র্যাড হগ আছেন। স্বভাবতই ঘরের মাঠের জন্য কলকাতার পছন্দ ছিল ঘূর্ণি উইকেট।

বেঙ্গালুরুতে বসে টিমের কয়েকজনকে বেশ গজগজই করতে শোনা গেল যে, পছন্দের উইকেটের হদিশ এখনও তারা পাননি। এ নিয়ে কিউরেটরের সঙ্গে বারবার কথা বলেছেন তারা।

ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের (সিএবি) প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলির কাছেও যাওয়া হয়েছিল বলে শোনা গেল কিন্তু তারপরেও গৌতম গম্ভীররা ইডেনে পছন্দের উইকেট পেয়েছেন বলে কোনও ব্রেকিং নিউজ কলকাতা শিবিরে কারও থেকে পাওয়া গেল না।

উল্টো জানা গেছে, ব্যাটিং উইকেটই দিয়ে যাওয়া হচ্ছে তাদের। সিএবির তরফে অবশ্য একটা বক্তব্য আছে। সেটা মোটেও ফেলে দেওয়ার মতো বক্তব্য নয়। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকেই পিচ নিয়ে নানা বিতর্ক হয়েছে। ইডেনের বাইশ গজ নিয়েও কথা উঠেছে এবং সেটা উঠেছে বল বেশি ঘুরছিল বলেই। সেই কারণে সিএবি কর্মকর্তারা আর ঝুঁকি নিতে চান না। তারা নিরাপদ উইকেট বানানোর রাস্তা নিচ্ছেন।

তাহলে ঘরের মাঠের অ্যাডভ্যান্টেজ? কেকেআর কি তাদের পছন্দের মতো উইকেট বানাতে পারে না ইডেনে? উত্তর এককথায় হ্যাঁ এবং না।

নিয়ম অনুযায়ী, পিচ তৈরির দায়িত্ব ভারতের রাজ্য সংস্থার ওপরেই। তারা যেরকম পিচ দেবে তাতেই খেলতে হবে সেই রাজ্য বা শহরের টিমকে।

এবার সংশ্লিষ্ট টিমের অনুরোধ মেনে দেশটির রাজ্য সংস্থা যদি নির্দিষ্ট একটা ধরনের পিচ বানিয়ে দিতে রাজি হল তো হল। সৌরভ গাঙ্গুলি-পরিচালিত সিএবি আর শাহরুখ খানের কেকেআরের মধ্যে এরকম কোনও সন্ধি হওয়ার খবর এখনও নেই।

যদিও পিচ নিয়ে গজগজ করলেই শুধু হবে না। কেকেআরের দিকে পাল্টা প্রশ্ন ছুড়ে দেওয়াই যায় যে, টুর্নামেন্টের মাঝপথ অতিক্রম করে এসেও প্রথম একাদশ নিয়ে বিভ্রান্তি দূর করা যাচ্ছে না কেন?

সবচেয়ে বিস্ময়কর মর্নি মর্কেলের প্রতি কলকাতা টিম ম্যানেজমেন্টের মনোভাব। মর্কেলকে দলের এক নম্বর পেসার ধরবেন যে কেউ।

বেঙ্গালুরুতেও সোমবার তিনিই গেইলের উইকেট নেন। কিন্তু তাকে খেলাব কি খেলাব না— এই দ্বিধা প্রত্যেকটি ম্যাচের আগে তৈরি হচ্ছে।

বেশিরভাগ ম্যাচে এই টালবাহানার শেষে মর্কেলকে বসিয়ে দেওয়া হচ্ছে। জানা যায়, বেঙ্গালুরুতেও তাকে বসিয়ে দেওয়া হচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত টিম ম্যানেজমেন্টের কয়েকজন সদস্য চাপাচাপি করে মর্কেলকে খেলান।

শেষের এই ছয় ম্যাচে মোটামুটি সেট হয়ে যাওয়া প্রথম একাদশ খেলানো উচিত বলেও অনেকের মনে হচ্ছে। সতীশের মতো আনকোরা কাউকে আর খেলানোর দরকার নেই।

ব্যাটিং অর্ডারেও খুব বেশি পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করে ধারাবাহিকতা আনা দরকার। সূর্য যাদব তিন নম্বরে রান করে ম্যাচ জেতানোর পরেও তাকে নীচে নামিয়ে দেওয়া হল। তিনে পাঠানো হল পীযূষ চাওলাকে। এখন আবার তিনে পাঠানো হচ্ছে ক্রিস লিনকে।

খেলার নিয়ম। জিতলে সব ভাল। হারলেই সব খারাপ। জেতার আবহে তাই হয়তো নাইটদের ফাঁক-ফোঁকরগুলো অনুচ্চারিত থেকে যাচ্ছে। কিন্তু টি-টোয়েন্টির অনিশ্চিত পৃথিবীতে উল্টো হাওয়া বইতেই বা কতক্ষণ লাগে!

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে