Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-০৩-২০১৬

অভিনয় আমার প্রথম প্রেম, ডান্স প্যাশন : মাধুরী

মনোজ বসু


অভিনয় আমার প্রথম প্রেম, ডান্স প্যাশন : মাধুরী

কলকাতা, ০৩ মে- ‘অভিনয় আমার প্রথম প্রেম, আর ডান্স আমার প্যাশন।’ সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে এমনটাই জানালেন একসময়ের বলিউডকাঁপানো জনপ্রিয় নায়িকা মাধুরী দীক্ষিত। আজও ডান্স নিয়ে স্বপ্ন দেখেন তিনি। তাঁর বরাবরের স্বপ্ন ছিল নিজে একটি ডান্স অ্যাকাডেমি খুলবেন। কিন্তু সেই স্বপ্ন পূরণ হয়নি। তাই তো আফসোস করে জানালেন, ‘ডান্স অ্যাকাডেমি খুলতে পারলে অন্তত ৩০০ ছাত্রছাত্রীকে নাচ শেখাতে পারতাম। কিন্তু সেটা আর হয়ে ওঠেনি।’

তবে  বর্তমানে কিছুটা হলেও সেই আক্ষেপ পূরণ হতে চলেছে ‘এক দো তিন’ খ্যাত বলিউডি এই তারকার। ‘সো ইউ থিংক ইউ ক্যান ডান্স’ নামক একটি টিভি রিয়্যালিটি শোয়ের মুখ্য বিচারক হতে পেরে এতদিনের সেই অপূর্ণ আশা অনেকটাই সার্থকতা পেতে চলেছে তাঁর।  গত ২৪ এপ্রিল থেকে শুরু হওয়া এই রিয়্যালিটি শোতে থাকতে পেরে রীতিমতো উৎফুল্ল মাধুরী। জানালেন, ‘এই শোয়ে যারা স্টেজ এবং স্ট্রিট, দুই মঞ্চেই ভালো পারফর্ম করবে তারা এগিয়ে থাকবে। কারণ বলিউডে জায়গা করে নিতে হলে সব কিছুই জানা থাকতে হয়।’  

উত্তরণের সিঁড়ি বেয়ে বলিউড আজ এগিয়ে গেছে অনেক। সেখানে দাঁড়িয়ে বলিউডে মেয়েদের জন্য ইন্টারেস্টিং সময় এসেছে বলে মনে করেন মাধুরী। বললেন, ‘মেয়েরা কেবল শো পিস হিসেবে নেই এখন, সামাজিক জীবনে নানাভাবে যেমন গুরুত্ব বেড়েছে মেয়েদের, তেমনি বলিউডে আজ মেয়েদের কেন্দ্র করে চরিত্র লেখা হচ্ছে। পর্দায় সামনের দিকে উঠে আসতে শুরু করেছে মেয়েরা। ইট ইজ ওয়ান্ডারফুল।’

মাধুরী জানালেন, ‘শুধু সিনেমার চরিত্রেই নয়, ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতেও এখন অনেক মেয়ে কাজ করছেন। আগে তো প্রথম বলিউডে এসে যখন ছবি করা শুরু করেছিলাম। সেই সময় যাঁরা অভিনয় করছেন, তাঁদের পাশাপাশি হেয়ার ড্রেসার আর খুব বেশি হলে কস্টিউম ডিজাইনার ছাড়া মেয়ে খুব একটা দেখা যেত না ইন্ডাস্ট্রিতে। এখন অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর, ক্যামেরাপারসন, স্ক্রিপ্ট রাইটার, ডিরেক্টর বহু ক্ষেত্রেই মেয়েরা কাজ করছেন, যা অবশ্যই নারীদের জন্য ইতিবাচক।’

আজ বলিউডের মূলধারা থেকে অনেকটা দূরে থাকলেও এখনো অপর্ণা সেন, গৌরী শিন্ডে, জোয়া আখতার, রিমা কাগতির মতো ব্রিলিয়ান্ট পরিচালকদের সঙ্গে কাজ করতে চান তিনি। তবে আগামী দিনে তিনি যে পর্দায় ফিরে আসতে চান, সে ব্যাপারে কোনোরকম রাখঢাক না রেখে সাফ জানিয়ে দিলেন, ‘ভালো স্ক্রিপ্ট পেলে নিশ্চয়ই অভিনয় করব।’  

কথা প্রসঙ্গে নিজের পারিবারিক জীবন নিয়েও কথা বলেন মাধুরী। বললেন, ‘আমার হাজব্যান্ড শ্রীরাম নেনের সঙ্গে বিয়ের পর আজ প্রায় সতেরো বছর পার হতে চলল। সফল দাম্পত্য আমাদের। আর এই সফলতার মূল চাবিকাঠি হিসেবে মাধুরী মনে করেন, বিয়েটা আসলে ব্যালেন্সিং অ্যাক্ট। অনেকটা পায়ে পায়ে তাল মিলিয়ে চলার মতো ব্যাপার।’ যে কোনো প্ল্যান তৈরি করার আগে পরিবারের অবস্থাটা দেখে দেখে নেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি। জানালেন, ‘আমি আর আমার স্বামী একটা টিমের মতো কাজ করি। পরিবারের দেখাশোনায় আমরা একসঙ্গে কাজ করি। নেনে বাইরে থাকলে আমি বাচ্চাদের সামলাই, আর আমি না থাকলে ও সামলায়। সুতরাং দাম্পত্যে বন্ডিং ঠিকঠাক থাকলে কোনো সমস্যা হওয়ারই কথা নয়।’

আর/১০:৩৪/০৩ মে

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে