Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-০২-২০১৬

‘শ্রমিকদের হয়রানি বন্ধে আলোচনা করা হবে’

‘শ্রমিকদের হয়রানি বন্ধে আলোচনা করা হবে’

ঢাকা, ০২ মে- শ্রমিকদের জীবন বীমার টাকা উত্তোলনের ক্ষেত্রে যেসব হয়রানির শিকার হতে হয় বীমা কোম্পানিগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে সেসব বিষয়ে সুরাহা করা হবে বলে জানিয়েছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব মিখাইল শিপার।

সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে শ্রমিক কল্যাণ: শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের ভূমিকা শীর্ষক জাতীয় সেমিনারে এ কথা বলেন। সেমিনারের আয়োজন করে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। ব্যবস্থাপনায় ছিল বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব লেবার স্ট্যাডিজ- (বিলস) ও কর্মজীবী নারী।

সেমিনারে শ্রম ও কর্মসংস্থান সচিব বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে শ্রমিকদের বিভিন্ন সময় সহযোগিতা করা হয়। এরপরও অভিযোগ করে বলা হয় শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের টাকা মেরে খাওয়া হচ্ছে। আমি বলতে চাই সরকারের ফান্ডে ১২৭ কোটি টাকা অনুদান এসেছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে। তা সুদে আসলে মোট ১৩০ কোটি টাকা শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের ফান্ডে জমা আছে।

সভাপতির বক্তব্যে নারী নেত্রী শিরীন আখতার বলেন, প্রত্যেক ফেডারেশনকে শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের অর্থের হিসাবগুলো জানানো দরকার। তিনি বলেন, কৃষি শ্রমিক, গৃহ শ্রমিক, নির্মাণ শ্রমিকদের জীবন বীমাসহ সকল দাবি সকলের কাছে দ্রুত পৌঁছে দিতে হবে। এগুলো মিডিয়ায় প্রচারের উদ্যোগ নেওয়া প্রয়োজন বলেও তিনি মনে করেন।

শিরীন আখতার তিনি আরও বলেন, শ্রমিক কল্যাণের যে ১২৭ কোটি টাকা তহবিল আছে তা সকলকে জানানো দরকার। নারীরা পিছিয়ে আছে দাবি করে মাতৃত্বকালীন ভাতা দেওয়া প্রয়োজন বলে তিনি মন্তব্য করেন।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের শ্রম শক্তি জরিপ ২০১৩ অনুসারে বর্তমানে দেশে শ্রম শক্তির পরিমাণ ৬ কোটি ৭০ লাখ টাকা। যার মধ্যে অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতে নিয়োজিত ৫ কোটি ৪০ লাখ শ্রমিক। এবং ৭৩ লাখ শ্রমিক প্রাতিষ্ঠানিক খাতে নিয়োজিত আছে। তবে অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতে নিয়োজিত শ্রমিক আইনি সুরক্ষার বাইরে অবস্থান করেছে। ২০০৬ সালে সরকার ‘শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন আইন ২০০৬’ নামে একটি আইন প্রণয়ন করছে যার মূল লক্ষ্য হল প্রাতিষ্ঠানিক ও অপ্রাতিষ্ঠানিক উভয় খাতে নিয়োজিত শ্রমিকদের কল্যাণ সাধন করা। সেমিনারে মাঠ পর্যায়ের শ্রমিকরা তাদের বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন।

কর্মজীবী নারীর সভাপতি শিরিন আখতার এমপির সভাপতিত্বে সেমিনারে আরও বক্তব্য দেন-কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান অধিদপ্তরের মহাপরিদর্শক (অতিরিক্ত সচিব) সৈয়দ আহমেদ, জীবন বীমা কর্পোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ফারহান হোসেন, বাংলাদেশ জাতীয় দক্ষতা উন্নয়ন কাউন্সিলের প্রধান নির্বাহী পরিচালক এ বি এম খোরশেদ আলম প্রমুখ।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে