Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৪-২৭-২০১৬

আ.লীগের সহযোগী ও অঙ্গ সংগঠনগুলো এখন বাস্তুহারা!

আ.লীগের সহযোগী ও অঙ্গ সংগঠনগুলো এখন বাস্তুহারা!

ঢাকা, ২৭ এপ্রিল- এক মাসের মধ্যে ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের কেন্দ্রীয় অফিস ভবনটি খালি করার জন্য কেন্দ্র থেকে নির্দেশ দেয়ার পর বিপাকে পড়েছে মহা-নগর আওয়ামী লীগসহ দলটির সব সহযোগী ও অঙ্গ সংগঠনগুলো। কারা কোথায় অফিস নেবে এ নিয়ে কোনো সিদ্ধান্তে আসতে পারছে না কেউ। স্থান সঙ্কুলানে সমস্যা থাকলেও এই সংগঠনগুলো এই পুরাতন জরাজীর্ণ ভবনটিতেই ঠাসাঠাসি করে অবস্থান করছিল। এমনকি কক্ষ খালি না পেলে সপ্তাহে অন্তত একদিন কার্যালয়ে বসতো কিছু সংগঠন।

কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের ভবনটিতে অফিস রয়েছে ঢাকা-মহানগর আওয়ামী লীগ, দলটির সহযোগী সংগঠন মধ্যে কৃষক লীগ, আওয়ামী যুবলীগ, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ, তাঁতী লীগ। নির্দিষ্ট কোন রুম না থাকায় সপ্তাহে একদিন এখানে অফিস করেন মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগ। ছাত্রলীগেরও অফিস রয়েছে এখানে। এছাড়া রিকশা মালিক-শ্রমিক সমিতির মতো সংগঠনেরও এখানে বসতে দেখা গেছে।
 
এ বিষয়ে ঢাকা-মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ বলেন, আমরা অফিস দেখতেছি। এখন পর্যন্ত কোথায় স্থানান্তর করবো বলতে পারছি না। সিদ্ধান্ত হলে আপনাদেরকে জানাব।
 
শ্রমিক লীগের  সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমরা এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নিতে পারি নাই কোথায় অফিস নিবো। তবে চাচ্ছি কোনো খালি বাড়ি পেলে সবাই এক জায়গাতে অফিস নিব।
 
যুবলীগ শিগগির বৈঠক করে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা মনিরুল ইসলাম হাওলাদার।

আর যুব মহিলা লীগ ধানমন্ডি-৩ এ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ের আশেপাশে কোথাও খুঁজছে। না পাওয়া গেলে সভাপতির কার্যালয়ের তিন তলায় একটি কক্ষে সাময়িকভাবে সংগঠনের কার্যক্রম পরিচালনা করার চিন্তাভাবনা আছে বলে জানান সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল।
 
কৃষক লীগ আওয়ামী লীগের সঙ্গেই থাকতে চায়। আর না হলে গুলিস্তানেরই কোথাও তারা অফিস নেবেন বলে জানালেন সাধারণ সম্পাদক খন্দকার শামসুল হক রেজা।
 
ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ বলেন, তারা গুলিস্তানের আশেপাশে কোথাও অফিস নেয়ার চিন্তা-ভাবনা করছেন। যদিও এখন পর্যন্ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি।

গতকাল মঙ্গলবার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম দলটির এক যৌথসভায় বলেন, আগামী ৩০ মে তারিখের মধ্যে ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের ভবনটি খালি করা হবে। আগামী জুন মাসে পুরতন ভবনটি ভেঙে নতুন ভবনের নির্মাণ কাজ শুরু হবে। দুই বছরের মধ্যে নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে তারা আশা করছেন। সভা সূত্রে জানা গেছে, ১০তলা বিশিষ্ট ভবন নির্মিত হবে এ স্থানে।

মঙ্গলবারই রাজউকের কাছে পাঠানো সভাপতি শেখ হাসিনার নির্বাচিত নকশাটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এটি কর্তৃপক্ষ জানানোর পরই সৈয়দ আশরাফ ভবন খালি করে দেয়ার নির্দেশ দেন।

আর/১৭:২৪/২৭ এপ্রিল

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে