Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৪-২৭-২০১৬

ময়মনসিংহে শিক্ষাবোর্ড : হাসিনাকে রওশনের অনুরোধ

ময়মনসিংহে শিক্ষাবোর্ড : হাসিনাকে রওশনের অনুরোধ

ঢাকা, ২৭ এপ্রিল- ময়মনসিংহকে বিভাগ ঘোষণা করা হয়েছে গত বছর। এবার শিক্ষাবোর্ড করারও দাবি জানালেন সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ। সংসদ চলাকালে মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) সন্ধ্যায় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর লবিতে তার সঙ্গে আকস্মিক বৈঠকে বসেন রওশন। সেখানেই ওঠে আসে ময়মনসিংহে নতুন শিক্ষাবোর্ড করার বিষয়টি। 

প্রায় আধাঘণ্টা ব্যাপী চলা এ বৈঠক শেষে রওশন এরশাদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘ময়মনসিংহের উন্নয়নে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে গিয়েছিলাম। ব্রহ্মপুত্র নদ শুকিয়ে গেছে, সেটি তাকে (প্রধানমন্ত্রী) অবহিত করেছি। পাশাপাশি ময়মনসিংহে একটি শিক্ষাবোর্ড করার জন্যও প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করেছি।’

ইতিহাস, ঐতিহ্য, শিল্প-সাহিত্য, সংস্কৃতি ও জাতীয় জাগরণের প্রায় প্রতিটি পর্বে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে বৃহত্তর ময়মনসিংহ। এ অঞ্চলটিকে বিভাগ ঘোষণা করার জন্য বিভিন্ন সরকারের সময়ে অল্প-বিস্তর আলোচনা শোনা গেলেও শেষ পর্যন্ত যেন তা হয়েই উঠছিল না। অবশ্য দেরিতে হলেও ২৫ বছরের অপেক্ষা ঘুচেছে। গত বছরের ১৪ সেপ্টেম্বর ময়মনসিংহ, জামালপুর, শেরপুর ও নেত্রকোনা এই ৪ জেলা নিয়ে গঠিত হল দেশের ৮ম বিভাগ ময়মনসিংহ। সরকার ৬ জেলা নিয়ে ময়মনসিংহ বিভাগ ঘোষণা করতে চাইলেও কিশোরগঞ্জ ও টাঙ্গাইলের আপত্তির মুখে ৪ জেলা নিয়েই গঠিত হয় ব্রহ্মপুত্র তীরবর্তী নতুন এ বিভাগটি। 

প্রশাসনের এ বিকেন্দ্রীকরণের ফলে প্রায় দুই কোটি মানুষের দীর্ঘদিনের আশা-আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটে। এমনকি বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ এক বিবৃতিতে এ জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছিলেন।

তবে ময়মনসিংহকে বিভাগ ঘোষণার পাশাপাশি একে সিটি করপোরেশন ও আলাদা শিক্ষাবোর্ড করারও গুঞ্জন উঠে আসে সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের আলোচনায়। সরকারের একাধিক পর্যায় থেকে নবগঠিত বিভাগে একটি শিক্ষাবোর্ড করার কথা শোনা যায়। কিন্তু বিভাগ ঘোষণার প্রায় সাড়ে ৭ মাস পেরিয়ে গেলেও শিক্ষাবোর্ডের বিষয়টি এখনো স্পষ্ট করা হচ্ছে না, কিংবা এ সংক্রান্ত কোনো পদক্ষেপও লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। 

এমতাবস্থায় ময়মনসিংহে একটি শিক্ষাবোর্ড করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর শরাণাপন্ন হলেন সংসদে বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ। 

৮ম বিভাগ ঘোষণা করায় দীর্ঘ ২৫ বছরের অপেক্ষার অবসান হলো ময়মনসিংহবাসীর। এখন নবগঠিত বিভাগটিতে একটি শিক্ষাবোর্ড করা হলে একদিকে যেমন সোয়া কোটি মানুষ শিক্ষাব্যবস্থার সুফল পাবে, অপরদিকে এ অঞ্চটিতে শিক্ষার গুণগত মানও আরো বাড়বে বলেই আশা করছেন একাধিক শিক্ষাবিদসহ বিশিষ্টজনরা। 

তবে প্রশ্ন থেকে যায় এ পরিকল্পনার বাস্তবায়ন নিয়ে। কেননা ১৯৯৪ সালে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে ময়মনসিংহের একটি জনসভায় দল ক্ষমতায় এলে ময়মনসিংহকে বিভাগ করার অঙ্গিকার করেছিলেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর পর একাধিকবার শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দল ক্ষমতায় এলেও ময়মনসিংহ বিভাগ হয়নি। এজন্য অন্তত ২০ বছর (২০১৫ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর) অপেক্ষা করতে হয়েছে সে অঞ্চলের জনসাধারণকে। 

শেষ পর্যন্ত দেশের ৮ম বিভাগ হিসেবে ময়মনসিংহের নাম ঘোষিত হলেও নতুন শিক্ষাবোর্ডের তালিকায় যতক্ষণ না ময়মনসিংহের নাম উঠে আসছে ততক্ষণ পর্যন্ত কবে নাগাদ এটি বাস্তবায়ন হবে সে ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছুই বলা যাচ্ছে না। অতীত ইতিহাস এমন সাক্ষ্যই দিচ্ছে।

তবে দেশের ৯ম শিক্ষাবোর্ড হিসেবে অচিরেই ময়মনসিংহের নাম উঠে আসলে কিংবা এ-সংক্রান্ত কোনো তৎপরতা দৃষ্টিগোচর হলে সেক্ষেত্রে আজকের বৈঠকটি (হাসিনা-রওশন) ময়মনসিংহে শিক্ষাবোর্ড হওয়ার ক্ষেত্রে ভবিষ্যতে আরো তাৎপর্যবহ হয়ে উঠবে- এটিই স্বাভাবিক।

এফ/০৮:৪৭/২৭ এপ্রিল

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে