Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.8/5 (25 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৪-২৭-২০১৬

বাংলাদেশি পেশাজীবীদের বৈশাখী উৎসব

রফিক আহমদ খান


বাংলাদেশি পেশাজীবীদের বৈশাখী উৎসব
সাংস্কৃতিক পরিবেশনা

কুয়ালালামপুর, ২৭ এপ্রিল- মালয়েশিয়ায় কর্মরত বাংলাদেশি পেশাজীবীদের নতুন সংগঠন বাংলাদেশি প্রফেশনাল কমিউনিটি, মালয়েশিয়ার উদ্যোগে উদ্‌যাপিত হলো বৈশাখী উৎসব ১৪২৩। ২৩ এপ্রিল শনিবার সন্ধ্যায় কুয়ালালামপুরে মাজু টাওয়ারের হলরুমে অনুষ্ঠিত হয় প্রবাসী পেশাজীবীদের এই বৈশাখী উৎসব। শুরুতে স্বাগত বক্তব্যে পেশাজীবী ড. এ কে এম নুরুল আমিন বলেন, সব পথ, সব মতকে এক করে তোলে বাঙালিদের বৈশাখী উৎসব। 

প্রবাসেও আমরা দল-মত নির্বিশেষ দেশের ভালোবাসায় অনুপ্রাণিত হয়ে পালন করছি এই বৈশাখী উৎসব। বাঙালি সংস্কৃতিকে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দেওয়াই আমাদের উদ্দেশ্য। বাংলাদেশ নিয়ে গর্ব করে তিনি বলেন, বাংলাদেশ এখন পৃথিবীতে ওয়ান অব দ্য রাইজিং টাইগার, তাই যারা মালয়েশিয়াসহ বিভিন্ন দেশে পড়ালেখা করেন তাদের পড়ালেখা শেষ করে দেশে ফিরে যাওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মালয়েশিয়ায় নিয়োজিত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মো. শহীদুল ইসলাম। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, পয়লা বৈশাখ বাঙালির সর্বজনীন উৎসব। পয়লা বৈশাখ আমাদের চিরন্তন অনুভূতি। বৈশাখী উদ্‌যাপন, রবীন্দ্র-নজরুল জয়ন্তীর মতো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আমাদের মাঝে চিন্তা-চেতনার বিকাশ ঘটে। ৩২ বছরের কূটনৈতিক জীবনের অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, আজকের বাংলাদেশ পৃথিবীতে মর্যাদাবান দেশ। কূটনীতিকদের অনুষ্ঠানে গেলে বুঝতে পারি বাংলাদেশের মর্যাদা। বিভিন্ন দেশের কুটনীতিকরা প্রশ্ন করেন বাংলাদেশ কীভাবে এত এগিয়ে যাচ্ছে? ছোট আয়তনের ভূমিতে খাদ্য উৎপাদন করে ষোলো কোটি মানুষের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রপ্তানি করছে আমাদের বাংলাদেশ। বাংলাদেশের এ উন্নতির পেছনে প্রবাসীদের অবদান অপরিসীম বলেন। তিনি বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি ও সরকারের প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে প্রবাসীদের বৈশাখের শুভেচ্ছা জানান।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রথমে কোরাস কণ্ঠে এসো হে বৈশাখ এসো এসো গেয়ে শুরু করেন প্রবাসী শিল্পীরা। পরে একক গান, কোরাস গান, একক নৃত্য, দলীয় নৃত্য, কৌতুক পরিবেশন করেন প্রবাসী পেশাজীবী ও তাঁদের ছেলেমেয়েরা। অনুপম পালের কবিতা আবৃতি, বাংলাদেশের ঋতুভিত্তিক ফুল প্রদর্শনীর সঙ্গে সুরের তালে তালে শিশুদের নৃত্য, কাওছারের কৌতুক এবং মো. রাজিবুল ইসলাম, মহুয়া ও আলী আকবরের গাওয়া গান দর্শকদের ভীষণ মুগ্ধ করে।

অনুষ্ঠানে পেশাজীবী ও তাদের পরিবারের সদস্য ছাড়াও দূতাবাসের কর্মকর্তারাসহ বিভিন্ন স্তরের প্রবাসীরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান শেষে সবার জন্য রাতের খাবারের ব্যবস্থা করা হয়। 

এফ/০৭:৫৭/২৭ এপ্রিল

মালয়েশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে