Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.5/5 (6 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৪-২৫-২০১৬

দেশে আইএসআই’র অস্তিত্ব নেই

দেশে আইএসআই’র অস্তিত্ব নেই

ঢাকা, ২৫ এপ্রিল- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘দেশে আইএসআই’র কোনো অস্তিত্ব নেই। একটি জঙ্গিগোষ্ঠী পরিকল্পিতভাবে এসব হত্যাকাণ্ড চালাচ্ছে। দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য একটি বিশেষ মহলের ষড়যন্ত্রে এসব ঘটনা ঘটছে।’ সোমবার (২৫ এপ্রিল) বিকেলে দশম জাতীয় সংসদে জাসদের নাজমুল হক প্রধানসহ ৪ জন সংসদ সদস্যের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সংসদকে এ তথ্য জানান।

সরকার দলীয় সংসদ সদস্য পঙ্কজ দেবনাথ ও ফজিলাতুনেসা ইন্দিরার পৃথক দুই সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘এসব হত্যাকাণ্ডের পর যারাই গ্রেপ্তার হয়েছে তারা স্বীকারোক্তি দিয়েছে- তাদের কেউ আইএসআই-এর সঙ্গে সম্পৃক্ত নয়। তারা ‘হোম গ্রোন’ কিছু জঙ্গিগোষ্ঠীর সঙ্গে থেকে এসব তৎপরতা চালাচ্ছে। আমাদের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তাদের সব ষড়যন্ত্র বানচাল করেছে, আমরা তাদের ষড়যন্ত্র ব্যর্থ করেছি।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘জঙ্গি দমনে আমরা নিরাপত্তা বাহিনীকে ঢেলে সাজাচ্ছি। আমরা কাউন্টার টেরোরিজম নামে একটি নতুন ইউনিট চালু করেছি। যার দায়িত্ব থাকবে এই সমস্ত সন্ত্রাস, জঙ্গিদের নিয়ন্ত্রণ করা। অ্যাটাক করার আগেই তাদের আস্তানা দখল করা, তাদের গ্রেপ্তার করে আইনের হাতে সোপর্দ করা। এছাড়া সাইবার ক্রাইম নামে আরো একটা ইউনিট গঠন করেছি। কাউন্টার টেরোরিজম বলেন আর সাইবার ক্রাইম বলেন সবগুলোই জঙ্গি দমনে করা হয়েছে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘এসব জঙ্গিগোষ্ঠী মাঝে মাঝে মাথাচাড়া দেয়ার জন্য প্রচেষ্টা করে। তাবেলা সিজার হত্যাকাণ্ড, নেভির মসজিদে অ্যাটাক, শিয়া মসজিদের মুয়াজ্জিনকে হত্যা- এর সবগুলো একটা পরিকল্পনার অংশ। আমরা এগুলো চিহ্নিত করে সমস্ত জঙ্গিদের ধরেছি। দেশেই এসব জঙ্গিদের উত্থান। এখান থেকেই তারা এ ধরনের কর্মকাণ্ড করে যাচ্ছে। আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী যথার্থভাবেই এদের চিহ্নিত করেছে। জনগণ সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ পছন্দ করে না বলে জনগণকে সাথে নিয়েই আমরা জঙ্গিদের সব কিছুই ব্যর্থ করেছি। এ জন্যই আমরা জঙ্গি দমনে সক্ষম হচ্ছি।’

সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য বেগম আকতার জাহানের এক সম্পূরক প্রশ্নের উত্তরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘মাদক আমাদের দেশে তৈরি হয় না। পাশ্ববর্তী দেশ থেকে মাদক আসে। আমরা ভারত সরকারের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা বিভিন্ন সময়ে আমাদেরকে আশ্বাস দিয়েছে- মাদক সরবরাহ না করার ব্যাপারে। মিয়ানমারের সঙ্গেও আমরা কথা বলেছি, তারাও বিভিন্ন সময়ে আমাদেরকে আশ্বাস দিয়েছে। আমরা ভারতের সাথে নতুন চুক্তি করছি এ চুক্তি বাস্তবায়ন হলে পাশের দেশ ভারত থেকে আর মাদক আসবে না।’

সংসদ সদস্য আবুল কালাম আজাদের অপর এক সম্পূরক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বলেন, ‘সীমান্তে চোরাচালান রোধকল্পে আমরা সীমান্ত চৌকি বসানোর উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। সীমান্ত চৌকির পাশাপাশি বিজিবির টহল বৃদ্ধি করা হলে এসব বিষয় নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে।’ 

এফ/২৩:২৯/২৫এপ্রিল

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে