Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.9/5 (16 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৪-২৫-২০১৬

বন্ধুর গুলিতে নিহত হয়েছেন আ’লীগ নেতা

বন্ধুর গুলিতে নিহত হয়েছেন আ’লীগ নেতা

রাজশাহী, ২৫ এপ্রিল- রাজশাহী মহানগরীতে ব্যবসায়ীক চেম্বারে নিজের পিস্তলের গুলিতে নিহত হন জেলা আওয়ামী লীগের অর্থ সম্পাদক ও রাজশাহী চেম্বার অব কমার্সের সাবেক প্রশাসক ব্যবসায়ী জিয়াউল হক টুকু (৫২)। রবিবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

নিজের পিস্তল পরিস্কার করতে গিয়ে দুর্ঘটনায় টুকু মারা গেছে বলে প্রথমে প্রচার হলেও পরে জানা যায়, টুকুর পিস্তল দিয়েই সঙ্গে থাকা ব্যবসায়ীক পার্টনার নয়ন তাকে গুলি করে হত্যা করেছে। জানা গেছে, চেম্বারে বসে তার পিস্তল নিয়ে নাড়াচাড়া করতে করতে বুকে গুলি করে তারই ব্যবসায়ীক পার্টনার ঢাকার ব্যবসায়ী নয়ন নামে এক যুবক।

জানা যায়, বিকেলে রাজশাহী নগর ভবনের সামনে নিজ চেম্বারে ঢাকার পার্টনার নয়ন ও স্থানীয় আরও চার বন্ধুকে নিয়ে বসেছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা জিয়াউল ইসলাম টুকু। এক সময় অপর তিন বন্ধু জসিম উদ্দিন, রবিউল ইসলাম ও তরিকুল চেম্বারের বাইরে আসলে গুলির শব্দ পান। এ সময় টুকুকে বাইরে নিয়ে এসে নয়ন জানান, নিজের পিস্তল পরিস্কার করতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন টুকু। ঘটনার পর তিন বন্ধু রক্তাক্ত টুকুকে হাসপাতালে ভর্তি করলে বিকেল সাড়ে চারটার দিকে তার মৃত্যু হয়। তবে ঘটনার পর নয়ন পালিয়ে যায়। এরপর থেকেই শহরে প্রচার শুরু হয় নিজের পিস্তল পরিস্কার করতে গিয়েই অসাবধানতাবশত টুকু নিহত হয়েছেন। প্রথমে পুলিশও এ তথ্য জানায়।

গুলির ঘটনার পর থেকে নয়ন পলাতক আছেন। সন্ধ্যায় নয়ন নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদকে ফোন করে হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেন। এরপর পুলিশ তাকে ধরতে অভিযান শুরু করে।

পুলিশ ঘটনার পর ওই চেম্বার থেকে টুকুর লাইসেন্স করা পিস্তল, ব্যবহৃত গুলির খোসা, রক্তমাখা তোয়ালে উদ্ধার করেছে। জানা যায়, গুলি তার ডান বগলের নিচে বিদ্ধ হয়ে পিঠ ভেদ করে বেরিয়ে যায়। জিয়াউল হক টুকুর বাড়ি নগরীর ষষ্ঠিতলা এলাকায়।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের ডেপুটি কমিশনার (ডিসি) পশ্চিম একেএম নাহিদুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। তাকে ধরার চেষ্টা চলছে। রাতে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত টুকুর লাশ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছিল। সেখানে দলীয় নেতাকর্মী ও স্থানীয়রা ভীড় জমিয়েছেন। তার চেম্বারও ঘিরে রেখেছে পুলিশ।

ব্যক্তিগত জীবনে টুকু দুই ছেলে সন্তানের জনক ছিলেন। তার স্ত্রীর নাম লতা বেগম। তার দুই ছেলের মধ্যে বড় ছেলে রওনক এবার এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। আর ছোট ছেলে রনু রাজশাহী ক্যান্টমেন্ট বোর্ড স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র।

এফ/০৯:২৭/২৫ এপ্রিল

রাজশাহী

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে