Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 1.2/5 (6 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৪-২৪-২০১৬

ঘরে প্রবেশ করার আগে জুতো খুলুন অবশ্যই

সাদিয়া ইসলাম বৃষ্টি


ঘরে প্রবেশ করার আগে জুতো খুলুন অবশ্যই

ঘরে প্রবেশ করার আগে পা থেকে জুতো জোড়া খুলে রাখার শিক্ষা সেই ছোটবেলা থেকেই বাবা-মায়ের কাছে পেয়ে এসেছি আমরা। তা একদিক দিয়ে এটা বেশ দরকারি তো বটেই। বাইরে কত-শত নোংরা পড়ে থাকে আর হাঁটার সময় আমাদের জুতোয় জড়িয়ে যায় সেগুলো। ঘরে সেই জুতো না খুলে প্রবেশ করলে সেসব নোংরা-ময়লার মাধ্যমে আমাদের ঘর তো অপরিষ্কার হবেই। কিন্তু সম্প্রতি বিজ্ঞানীরা এই ছোট্ট ও প্রয়োজনীয় বিষয়টির ভেতরে কেবল সংস্কৃতি আর নোংরা থেকে দূরে থাকা নয়, খুঁজে পেয়েছেন আরো জোরালো একটি কারণ।

বিজ্ঞানীদের মতে জুতো পায়ে নিয়ে ঘরে ঢুকলে কেবল কিছু নোংরা আর জীবাণুই নয়, আরো বেশকিছু বিষাক্ত ও ক্ষতিকারক ব্যাপারকে ঘরে টেনে নিয়ে আসি আমরা। আমাদের নিজেদের জন্যে বটেই, ঘরের শিশুদের জন্য আরো অনেক বেশি ক্ষতিকারক হয়ে দাড়ায় সেগুলো। নিশ্চয় জানতে ইচ্ছে করছে কি এমন সেই ক্ষতিকারক উপাদান যাকে নিয়ে সবার ভেতরে এতটা আতঙ্ক? শুনলে অবাক হবেন যে সেটি তেমন কিছু নয়, বরং ছোট্ট একটি ব্যাকেটেরিয়া- সি. ডিফ বা ক্লসট্রিডিয়াম ডিফিসাইল।

গবেষকদের মতে, বাইরে থেকে ফিরে আসার সময় শতকরা প্রায় ৪০ শতাংশ মানুষের জুতোতেই দেখতে পাওয়া যায় এই ব্যাকটেরিয়াটির উপস্থিতি। যেটি কিনা ঘরে প্রবেশের সাথে সাথে ঘরের কোণায় লুকিয়ে থাকা নানারকম ধুলো-বালি, বাথরুম ও অন্ধকার স্থানে পৌঁছে যায়। সেখানে এরা টিকে থাকে বছরের পর বছর। বিজ্ঞানীরা জানান, শুষ্ক স্থানে বছরের পর বছর ধরে টিকে থাকার অসম্ভব শক্তি রয়েছে এই সি, ডিফদের। ফলে খুব সহজেই এটি ঘরের ভেতরে অবস্থান করে সবসময় আর ছড়িয়ে যায় মানুষের শরীরে। না, এ পর্যন্ত অতটা ভয়ঙ্কর হয়তো ছিলনা ব্যাকটেরিয়াটি। তবে এই ব্যাকটেরিয়ার সবচাইতে ভয়াবহ ব্যাপারটি হচ্ছে এর প্রতিরক্ষা ক্ষমতা।

প্রায় সব ধরনের অ্যান্টিবায়োটিকসের সাথে বেশ স্বচ্ছন্দ্যে বাস করতে পারে সি. ডিফ। ফলে কোন ধরনের ঔষধেই কাজ হয়না এদের। আর যে ব্যাকটেরিয়ার কোন প্রতিষেধক নেই, যেটি সব ক্ষেত্রেই নিজেকে বেশ মানিয়ে নিতে পারে সব অ্যান্টিবায়োটিকসের সাথে সেটি যতটাই ক্ষুদ্র হোক না কেন, কতটা বেশি ভয়ংকর তা নিশ্চয় আর বলে বোঝাতে হবেনা।

তবে কেবল এই একটি ব্যাকটেরিয়াই নয়। আমাদের জুতোর তলায় গবেষকেরা মোটমাট ৪২১,০০০ টি ভিন্ন ভিন্ন ব্যাকটেরিয়ার উপস্থিতি খুঁজে পান তাদের পরীক্ষায়। সম্প্রতি ইউনিভার্সিটি অব অ্যারিজনার চালানো একটি গবেষনায় বলা হয় যে, মানুষের জুতোর তলায় লেগে থাকা এই ব্যাকটেরিয়াগুলো কয়েক দিন থেকে শুরু করে কয়েক সপ্তাহ অব্দি বেঁচে থাকে। এদের ভেতরে ই.কোলি এবং ক্লেবসিলা নিউমোনিয়াকে মানুষের শরীরের পক্ষে সবচাইতে বেশি ক্ষতিকারক বলে মনে করেন তারা। যাদেরকে পরিষ্কার করাটাও অনেকটাই অসম্ভব।

তাই এখন থেকে সবসময় ঘরে প্রবেশের আগে একবার করে হলেও ভেবে নিন, জুতোটা কি খুলে রাখবেন, নাকি এতগুলো ব্যাকটেরিয়াকে যেচে আমন্ত্রণ জানাবেন নিজের প্রিয় ঘরটিতে?

লিখেছেন- সাদিয়া ইসলাম বৃষ্টি

জানা-অজানা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে