Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৪-২৩-২০১৬

‘পপস্টার প্রিন্সের মৃত্যু আত্মহত্যা নয়’

‘পপস্টার প্রিন্সের মৃত্যু আত্মহত্যা নয়’

ওয়াশিংটন, ২৩ এপ্রিল- যুক্তরাষ্ট্রের পপ সুপারস্টার প্রিন্স আত্মহত্যা করেছেন এটি বিশ্বাস করার কোনো কারণ নেই বলে জানিয়েছেন মিনেসোটা কাউন্টি শেরিফ। বিবিসি বলছে, প্রিন্সের মরদেহের ময়নাতদন্তের পর শেরিফ এই কথা জানিয়েছেন।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার সকালে মিনেসোটার  পেইসলি পার্কে এই শিল্পীর স্টুডিও কমপ্লেক্সের একটি  লিফটে তাকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। ঠিক কীভাবে ৫৭ বছর বয়সী প্রিন্সের মৃত্যু হয়েছে তা এখনো স্পষ্ট নয়। তবে বেশ কিছুদিন ধরে তার অসুস্থতার গুঞ্জন চলছিল।

শেরিফ জিম অলসন জানান, তার শরীরে মানসিক ভীতি বা সমস্যাজনিত কোনো লক্ষণ খুঁজে পাওয়া যায়নি। জনপ্রিয় এই সংগীতশিল্পী নিঃসঙ্গ অবস্থাতেই মৃত্যুবরণ করেছে বলে মনে হচ্ছে। প্রিন্সের মৃত্যুতে ভক্ত ও অনুরাগীরা গাঢ় বেগুনী রঙের পোশাক পরিধান করে শোক ও শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন। রক্তবেগুনী এই রঙটি কিংবদন্তী এই শিল্পীর সঙ্গে সম্পর্কিত।

শেরিফ অলসন সতর্ক করে জানিয়েছেন, ময়নাতদন্তের পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন পেতে কয়েক সপ্তা লেগে যেতে পারে। প্রিন্সের আকস্মিক মৃত্যুর ঘটনা এখনো তদন্তাধীন। অলসন আরও বলেন, প্রিন্স ছাড়া তার বাসভবনে আর কেউ ছিলেন না এমনটি ঘটা অস্বাভাবিক কিছু নয়।


সাতটি গ্র্যামিজয়ী এই শিল্পীর রেকর্ড বিক্রি হয়েছে দশ কোটির বেশি।

বুধবার রাতে স্থানীয় সময় ৮টায় প্রিন্সকে সর্বশেষ দেখা গিয়েছিল। পরদিন সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তার একজন কর্মী তাকে লিফটে পড়ে থাকা অবস্থায় খুঁজে পান। ছয়দিন আগে প্রিন্সকে অসুস্থতার কারণে ইলিনয়িসের একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। জর্জিয়ায় একটি কনসার্ট শেষে ফেরার পথে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। কিন্তু কয়েক ঘণ্টা পরই তাকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, বিশ্ব একজন সৃজনশীল আইকনকে হারালো। প্রিন্স রজার্স নেলসসের নাম ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে গত শতকের আশির দশকে। তার অ্যালবাম ১৯৯৯, পারপল রেইন, ও দ্য টাইম তাকে এনে দেয় বিশ্বজোড়া খ্যাতি।  

১৯৫৮ সালে জন্ম নেওয়া প্রিন্স তার গাওয়া প্রায় সব গান নিজেই লিখেছেন। মঞ্চে তার পরিবেশনা শ্রোতাদের মধ্যে যেন বিদ্যুৎ সঞ্চার করতো। ৩৫ বছরের সংগীতজীবনে রক, ফাংক, জ্যজের জগতে প্রিন্সের উদ্ভাবনী বিচরণ ভক্ত-শ্রোতাদের দিয়েছে ৩৯টি অ্যালবাম। সাতটি গ্র্যামিজয়ী এই শিল্পীর রেকর্ড বিক্রি হয়েছে দশ কোটির বেশি। ১৯৮৪ সালে ‘পার্পল রেইন’ ছবির গানের জন্য অস্কার এবং ২০০৭ সালে ‘হ্যাপি ফিট’ এর ‘সং অব দ্য হার্ট’ গানটির জন্য গোল্ডেন গ্লোব পেয়েছেন প্রিন্স।

এফ/২২:৪৫/২৩ এপ্রিল

সংগীত

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে