Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৪-২২-২০১৬

শ্রমিক ধর্মঘটে দুইদিন ধরে অচল নৌপথ

শ্রমিক ধর্মঘটে দুইদিন ধরে অচল নৌপথ

ঢাকা, ২২ এপ্রিল- বেতন বৃদ্ধি ও নৌপথে চুরি-ডাকাতি বন্ধসহ ১৫ দফা দাবিতে বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের ডাকা দেশব্যাপী অনির্দিষ্টকালের নৌ ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিন আজ। গত বুধবার রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে চলা এই ধর্মঘটের কারণে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন এই পথে চলাচলকারী যাত্রীরা। বাধ্য হয়ে বিকল্প পথে অনেকে গন্তব্যে যান। এছাড়া ধর্মঘটের কারণে চট্টগ্রাম ও মংলাবন্দর থেকে পণ্য পরিবহনও বিঘ্নিত হচ্ছে।

এদিকে দাবি আদায়ে অনড় ধর্মঘট ডাকা বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন। আর শ্রমিকদের দাবি অযৌক্তিক ঘোষণা করে তাদের দাবি উপেক্ষা করে লঞ্চ চালানোর ঘোষণা দিয়েছেন মালিকরা। নৌমন্ত্রী শাজাহান খান জানিয়েছেন, এ সমস্যা শ্রমিক ও মালিকদের একসঙ্গে বসেই সমাধান করতে হবে।

নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি শাহ আলম ভূঁইয়া জানান, যতক্ষণ না নৌযান শ্রমিকদের বেতন কাঠামো নিয়ে ঘোষণা আসবে ততক্ষণ ধর্মঘট প্রত্যাহার হবে না। কোনো আশ্বাস দিয়ে লাভ হবে না।

সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী আশিকুল আলম জানান, সমস্যার কোনো সমাধান হয়নি। সমাধান না হওয়া পর্যন্ত ধর্মঘট অব্যাহত থাকবে। এই দাবিতে জানুয়ারিতেও এক দফা ধর্মঘট করেছিল নৌযান শ্রমিকদের আটটি সংগঠনের জোট বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশন। তখন নৌমন্ত্রীর আশ্বাসে একমাসের জন্য কর্মসূচি স্থগিত করে তারা। তিন মাসেও দাবি পূরণ হয়নি।

শুক্রবার সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতির কারণে সদরঘাট থেকে দক্ষিণাঞ্চলের দিকে যাওয়া সব নৌযান নোঙর করা আছে। এছাড়া কোনো নৌযানকেও সদরঘাটে আসতে দেখা যায়নি। নৌ ধর্মঘটের কথা শুনে যাত্রীর আনাগোনা কম থাকলেও বেশ কিছু যাত্রীকে অপেক্ষা করতে দেখা গেছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক আবুল কাশেম মাস্টার জানিয়েছিলেন, বেতন-ভাতা বৃদ্ধি, নৌপথে চুরি-ডাকাতি বন্ধ ও নদী খননসহ ১৫ দফা দাবি আদায়ের জন্য এ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। ঘোষণা অনুযায়ী বুধবার মধ্যরাত থেকে সারাদেশের প্রায় ১২ হাজার নৌযানের (কার্গো, কোস্টার, বার্জ) শ্রমিক-কর্মচারীরা তাদের কাজ বন্ধ রেখে কর্মবিরতি ও ধর্মঘট পালন করবেন।

তিনি আরও জানান, মালিকপক্ষ দীর্ঘদিন ধরে তাদের দাবি পূরণের আশ্বাস দিয়ে এলেও তা বাস্তবায়ন করছে না। সর্বশেষ গত এক মাসের মধ্যে সব দাবি বাস্তবায়নের কথা থাকলেও তা কার্যকর করেনি নৌযান মালিকপক্ষ। তাই দাবি আদায়ের লক্ষ্যে এ কর্মসূচির ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

এফ/১৫:৩৯/২২ এপ্রিল

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে