Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৪-২১-২০১৬

এখন পর্যন্ত দশ টাকাও খরচ করিনি: পোটন

এখন পর্যন্ত দশ টাকাও খরচ করিনি: পোটন

ঢাকা, ২১ এপ্রিল- শেখ জামাল ধানমন্ডির পরিচালক নজিব আহমেদকে বিলাসবহুল প্রাডো গাড়ি ও মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের ডিরেক্টর ইনচার্জ লোকমান হোসেন ভূঁইয়াকে কোটি টাকা গিফট দেওয়ার খবরে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন আসন্ন বাফুফে (বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন) নির্বাচনে সভাপতি প্রার্থী কামরুল আশরাফ খান পোটন। তিনি জানান, গাড়ি-কোটি টাকা তো দূরের কথা, নির্বাচন উপলক্ষে এখন পর্যন্ত ১০ টাকাও খরচ হয়নি তার।

পোটন বলেন, ‘দেখেন, আমার সকাল হয় ফজরের নামাজ ও কোরআন তেলওয়াতের মধ্য দিয়ে। আমি ১৫/১৬ বার ওমরাহ হজ্ব করেছি। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ি। কাজেই মিথ্যা বলার মানুষ আমি নই। সব সময় সত্য বলার চেষ্টা করি। আমি আপনাকে বলছি, বিশ্বাস করুণ-বাফুফে নির্বাচনে এখনও পর্যন্ত ১০টি টাকাও আমি খরচ করিনি। বরং নির্বাচন উপলক্ষে বেশ কয়েকবার আমি ফ্রি ফ্রি ডিনার করেছি কাদের ভাইয়ের ওখানে।’

পোটনের বিরুদ্ধে ওই গুরুতর অভিযোগ আনেন তাঁরই দীর্ঘ দিনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু, সাবেক তারকা ফুটবলার ও আসন্ন বাফুফে নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী গোলাম রব্বানি হেলাল। হেলালের দাবি, পোটনের কাছ থেকে প্রাডো গিফট পেয়েছেন, সেটা নাকি তাঁর কাছে স্বীকার করেছেন নজিব।

দীর্ঘ দিনের বন্ধুর কাছ থেকে এমন অভিযোগ শুনে তিনি নিজে তো বটেই, তার পুরো পরিবার যারপরনাই মর্মাহত বলে জানান নরসিংদী থেকে নির্বাচিত স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য কামরুল আশরাফ খান পোটন। বলছিলেন, ‘হেলালের সঙ্গে আমার ২৫ বছরের বন্ধুত্বই শুধু নয়, সে আমার পরিবারের সদস্যের মতো। ছেলে মেয়েরা বিদেশ থেকে ফোন করছে। আমাকে জিজ্ঞাসা করছে, হেলাল আঙ্কেল এসব কথা বলছে কেন? তারা বিশ্বাসই করতে পারছে না, তাদের প্রিয় হেলাল আঙ্কেল এসব কথা বলতে পারেন। ওদের মতো আমারও বিশ্বাস করতে কষ্ট হচ্ছে। কিন্তু আমি হেলালের সমালোচনা করতে চাই না। তার জন্য আমার বুক সব সময়ই খোলা থাকবে। আমি তার মঙ্গল কামনা করি।’

অনেকেই বলছেন আপনি ঠিক ফুটবলের লোক নন। বাফুফে সভাপতি হিসেবে আপনার নির্বাচন করা ঠিক হচ্ছে না-এমন প্রশ্নের জবাবে পোটন বলেন, ‘দেখুন, ফুটবল না বোঝার কিছু নেই। সংগঠক হতে গেলে ফুটবলার হতে হবে, ব্যাপারটা এমনও তো নয়। পাপন সাহেবের সময় ক্রিকেটের অনেক উন্নতি হয়েছে। তিনি কি ক্রিকেটার ছিলেন? চেলসি কিংবা ম্যানসিটির মালিকরাও তো ফুটবলার নন। খেলোয়াড় হলেই যে ভাল সংগঠক হওয়া যায় সেটা ঠিক নয়। ম্যারাডোনার কথাই ধরেন, তিনি তো বিশ্বসেরা ফুটবলার। কিন্তু ম্যানেজার হিসেবে তিনি কি নামের প্রতি সুবিচার করতে পেরেছেন?’

পোটন মনে করেন, বাফুফের দায়িত্ব পেলে বাংলাদেশের ফুটবলকে সঠিক পথেই নিয়ে যেতে পারবেন। তিনি বলেন, ‘নিজের উপর আস্থা আছে আমার। আমি অসফল মানুষ নই। আশা করছি, ফুটবলের জন্য ভাল কিছু করতে পারব। এখান থেকে নেওয়ার আমার কিছুই নেই। আমি যদি ব্যর্থ হই তাহলে কারও বলা লাগবে না, নিজে থেকেই দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াব। এতটুকু শিষ্টাতার আমার মধ্যে আছে।’

বাংলাদেশ ফুটবল এই যে দিনদিন পেছনে চলে যাচ্ছে, এর কারণ সমন্বয়হীনতা। তিনি মনে করেন, সমন্বয়হীনতা দূর করে একযোগে কাজ করতে পারলে ফুটবলের উন্নতি সম্ভব। পোটন বলেন, ‘অল্প কয়েক দিনের যা অভিজ্ঞতা তাতে আমার কাছে মনে হয়েছে বাফুফেতে কোনও সমন্বয় নেই। এটা দূর করতে হবে। যে যার দায়িত্ব ঠিকঠাক পালন করতে হবে।’

সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বী কাজী সালাহউদ্দিন সম্পর্কে কামরুল আশরাফ খান পোটনের মূল্যায়ন, ‘সালাহউদ্দিন সাহেব অত্যন্ত বড় মাপের খেলোয়াড়। আমি তাকে শ্রদ্ধা করি। কিন্তু সত্য হলো- প্রশাসক হিসেবে তিনি সফল নন। সবাই তো এটাই বলছে। সবাই একটা পরিবর্তন চাইছে। আমারও তাই মনে হচ্ছে।

এফ/০৯:১৫/২১ এপ্রিল

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে