Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.9/5 (11 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৪-২০-২০১৬

তারাগঞ্জে দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩

তারাগঞ্জে দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩

রংপুর, ২০ এপ্রিল- রংপুরের তারাগঞ্জে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩ জনে দাঁড়িয়েছে। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৬৬ জন বাসযাত্রী। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বুধবার বেলা ১১টা থেকে রাত পর্যন্ত রংপুর মেডিকেল কলেজ (রমেক) হাসপাতাল ও পুলিশসহ বিভিন্ন সূত্রে এই ১৩ জনের মৃত্যুর খবর জানা গেছে। নিহত ১৩ জনের মধ্যে দশজন পুরুষ ও তিনজন নারী রয়েছেন বলে জানা গেছে। এদের মধ্যে ১০ জনের পরিচয় জানা গেছে। 

পরিচয় শনাক্ত হওয়া নিহতরা হলেন- নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার ইউনুস আলীর ছেলে মুহাম্মদ আলী (৪৫), একই এলাকার সাবেদ মিয়ার ছেলে আব্দুল মতিন (৩২), ইকরচালী ফারুকিয়া মাদরাসার সহকারী শিক্ষিকা জিন্নাত আরা (৩৫), সায়মন পরিবহনের চালক সৈয়দ আলী (৪৮), দিনাজপুরের চিরিরবন্দর এলাকার অতুল চন্দ্র রায়ের ছেলে চন্দন রায় (৩০), তৃপ্তি পরিবহনের চালক তৈয়ব আলী (৪৫), রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার চেংমারি এলাকার আবু বকরের ছেলে অকুল মিয়া (৩০), মাহবুবুর রহমান (২৬), নীলফামারীর কুঠিমারি কাচারীপাড়া এলাকার বছির উদ্দিনের ছেলে আতোয়ার হোসেন (৪৩), একই এলাকার ছকমল আলীর ছেলে লিটন মিয়া (২২)। অন্য তিনজনের পরিচয় এখনো জানা যায়নি।


প্রসঙ্গত, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা সায়মন পরিবহনের একটি যাত্রীবাহি বাস বুধবার বেলা ১১ টার দিকে ইকরচালীর বরাতি ব্রিজ এলাকায় পৌঁছালে সামনের ডানদিকের চাকা পাংচার (লিক) হয়। এসময় চালক চলন্ত গাড়িটির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিপরীত দিকে দিনাজপুর থেকে আসা রংপুরগামী তৃপ্তি পরিবহনে মুখোমুখি ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ৮ জন এবং রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও ৪ জন নিহত হন। 

এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ৬৬ জন বাসযাত্রী। আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। এ ঘটনায় নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তারা।

তারাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিলুফা সুলতানা জানান, জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসন এবং উপজেলা চেয়ারম্যানের পক্ষ থেকে নিহতদের পরিবারকে প্রাথমিকভাবে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।  

জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ার বলেন, আহতদের চিকিৎসার ব্যাপারে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। তাদের যথাযথ চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তারাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক হাসান আলী জানিয়েছেন, তারা ঘটনার পর আহত ১৫ জন রোগীকে চিকিৎসা দিয়েছেন। বাকিদের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছে।

রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. আ.স.ম বরকতুল্লাহ জানান, রমেক হাসপাতালে প্রায় ৪৫ জন রোগী ভর্তি আছে। বাদবাকিরা চিকিৎসা নিয়ে চলে গেছেন। এছাড়া আহতদের উন্নত চিকিৎসা দিতে চিকিৎসকদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।


দুর্ঘটনায় আহতদের মধ্যে যাদের পরিচয় জানা গেছে তারা হলেন- মুজাহিদ (৪০), মোসলেমা বেগম (৩৫), শামিমা বেগম (৫০), জাহাঙ্গির আলম (৩৫), পূর্ণিমা রানী (৪৫), আজমা বেগম (৪২), জান্নাতি বেগম (৩), জাকারিয়া মামুন (৫০), মফিকুল ইসলাম (৩০), মহির উদ্দিন (৫০), মোকছেদুল ইসলাম (৪০), জিকরুল (৫০), সফিয়ার রহমান (৩০), মাহমুদ মামুন (৪০), মকসেদুল হক (৩০), আনজিনা বেগম (৪), আবুতালেব মিয়া (৩০), রবিউল ইসলাম (২৮), নাসরিন বেগম (৩৫), ফাহিম (২৮), বাঁধন (২২), মতিয়ার রহমান (৩৫), আজমা খাতুন (২২), খোকন মিয়া (২৩), সাজু মিয়া (৩৫), আকবর আলী (৪০), কামরুজ্জামান (৩৫), সাহিদুল মিয়া (৪৮), লিপি বেগম (২২), আলবিরুনী (৪০) ও সোহাগী বেগম (১৭)।

এদিকে হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঈদুল ইসলাম জানান, এই ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধান করতে হাইওয়ে পুলিশের ডিআইজি ফকরুল আলমগীর রংপুরে আসছেন। তিনি দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করবেন এবং আহতদের সঙ্গে কথা বলে এ দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কে জানবেন।

অন্যদিকে রংপুর জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ার বলেন, দুর্ঘটনার কারণ জানতে অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট মারুফুল হাসানের নেতৃত্বে তিন সদস্যের তদন্ত টিম গঠন করা হয়েছে। দ্রুত তাদের রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

এফ/২২:৪০/২০ এপ্রিল

রংপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে