Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 1.4/5 (7 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৪-১৭-২০১৬

পোকামাকড় দূর করুন একদম প্রাকৃতিক উপায়ে

কে এন দেয়া


পোকামাকড় দূর করুন একদম প্রাকৃতিক উপায়ে

প্রচন্ড গরমের সাথে আরও একটি উৎপাত যোগ হয়েছে জীবনে, আর তা হলো বিভিন্ন ধরণের পোকামাকড়, ইঁদুর ইত্যাদি। বিশেষ করে ভেজা দিনগুলোতে তো পিঁপড়ার যন্ত্রণায় টেকা দায়। এতশত যন্ত্রণা এড়াতে হরেক রকমের রাসায়নিক ব্যবহার করাটা মোটেই স্বাস্থ্যকর নয়। বিশেষ করে বাড়িতে ছোট বাচ্চা, অসুস্থ মানুষ বা পোষা প্রাণী থাকলে তো অবশ্যই রাসায়নিক যত্রতত্র ব্যবহার করাটা ঠিক হবে না। এর বদলে আপনি একেবারেই ঘরোয়া কিছু উপকরণ ব্যবহার করে এসব বালাই দূর করতে পারেন। চলুন জেনে নেই প্রাকৃতিক উপায়গুলো।
 
১) স্টিলের স্ক্রাবার ব্যবহার করুন ইঁদুর রোধ করতে
ঘরের বিভিন্ন আসবাবপত্র বা দেয়ালে ফুটো থাকলে ইঁদুর সেখানে আরও বড় গর্ত করে ফেলে এবং আসবাবপত্রের ভেতরে ঢুকে পড়ে। এই যন্ত্রণা রোধ করতে এসব ফুটো হয় মেরামত করে ফেলুন নয়তো এখানে স্টিলের স্ক্রাবার গুঁজে দিন যাতে ইঁদুর এসব জায়গা দিয়ে যাতায়াত করতে না পারে।
 
২) বাধা তৈরি করুন পিঁপড়ার রাস্তায়
পিঁপড়া অনেক ছোট হবার কারণে তাদের থামিয়ে দেওয়াটা একটু সহজ বড় প্রাণী বা পোকার তুলনায়। মরিচের গুঁড়ো, গোলমরিচের গুঁড়ো অথবা লবণের একটা লাইন তৈরি করুন তাদের চলাচলের রাস্তার ওপরে। এছাড়াও সাধারণ চক দিয়েই দাগ টেনে দিতে পারেন তাদের রাস্তার ওপর। তারা এসব ওপর দিয়ে চলাচল করতে চাইবে না এবং অন্য পথে চলে যাবে। এছাড়াও পুদিনা রাখতে পারেন তাদের রাস্তায় অথবা যেখানে এদের উৎপাত বেশি সেখানে লবঙ্গ বা ইউক্যালিপটাসের তেল মেখে রাখতে পারেন।
 
৩) শসা দূর করে তেলাপোকা
শসা কাটার সময়ে দুপাশের অংশ আমরা ফেলেই দেই। এগুলো না ফেলে সংরক্ষণ করুন। এগুলোকে রেখে দিন বিভিন্ন কোনায়, কাপবোর্ডের ভেতরে, আলমারির ভেতরে। এগুলোতে থাকা প্রাকৃতিক উপাদান তেলাপোকা পছন্দ করে না ফলে তারা এসব জায়গায় আসবে না।
 
৪) জিনিসপত্র নাড়াচাড়া করুন
প্লাস্টিকের ব্যাগ, তোয়ালে, বিছানাপত্র, কসমেটিক্স, বাক্স- এসব হালকা জিনিস কিছুদিন পর পরই নেড়েচেড়ে অন্য জায়গায় রাখুন, ঝেড়েমুছে নিন। কারণ এগুলোর মাঝে তেলাপোকা এবং অন্যান্য বালাই বাসা বাঁধতে পারে যদি বেশি সময় একই জায়গায় থেকে ধুলো জমতে দেন।
 
৫) পাইপের ফুটো মেরামত করে ফেলুন দ্রুত
ঘরের বিভিন্ন পাইপ এবং কলে লিক বা ফুটো দেখা যেতে পারে। এগুলো দ্রুত সারিয়ে নিন। কারণ এই পানি চুইয়ে যে স্যাঁতস্যাঁতে অবস্থার তৈরি করে তা তেলাপোকা এবং অন্যান্য পোকাগুলোর খুব প্রিয় জায়গা। মেরামত না করলে এখানেই এরা বংশবৃদ্ধি শুরু করবে।
 
৬) কিচেন রাখুন পরিষ্কার এবং গোছানো
একটা দিন কিচেন পরিষ্কার না করলেই দেখবেন কী পরিমাণে পোকা এসে উপস্থিত হয়েছে। যে কোনো ময়লা পড়লে সেটা উঠিয়ে ফেলুন। উচ্ছিষ্ট খাবার ফ্রিজে অথবা মিটসেফে তুলে রাখুন। ওভেন এবং ফ্রিজ পরিষ্কার করুন নিয়মিত। এতে সারাবছর কিচেন থাকবে পোকামুক্ত।
 
৭) বাড়ির বাইরেও নজর দিন
বাড়ির আশেপাশে বড় গাছপালা থাকলে সেগুলোর ডাল যেন বাড়ি থেকে একটু দুরত্বে থাকে সেদিকে লক্ষ্য রাখুন। এই ডালপালা বেয়ে পোকা এবং ইঁদুর আসতে পারে বাড়িতে। এছাড়াও বাড়ির আশেপাশে ইঁদুরের গর্ত, পিঁপড়া বা উইয়ের ঢিবি আছে কিনা লক্ষ্য রাখুন।
 
এছাড়াও কিছু উপায় অবলম্বন করতে পারেন বালাই দূরে রাখতে-
১। পিঁপড়া তাড়াতে কাজে আসতে পারে লেবুর রসের স্প্রে অথবা দারুচিনি গুঁড়ো
২। বৃষ্টির সময়ে গান্ধী পোকা যেন বাসায় ঢুকতে না পারে তার জন্য দরজা-জানালায় নেট লাগাতে পারেন
৩। গান্ধী পোকা দূর করতে ব্যবহার করতে পারেন পানি ও ডিশওয়াশিং সাবানের দ্রবণ
৪। সমপরিমাণ পানি ও ভিনেগার মিশিয়ে তা স্প্রে করলে পিঁপড়া দূর হবে
৫। মশা কম রাখতে বাড়ির আশেপাশে ড্রেন, ডাস্টবিন পরিষ্কারের উদ্যগ নিন
৬। এছাড়াও ব্যবহার করতে পারেন পোকার ফাঁদ

আর/১৭:১৪/১৭ এপ্রিল

জানা-অজানা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে