Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৪-১৬-২০১৬

১৫ লাখ টাকা করে অনুদান পেল নিহত চারজনের পরিবার

১৫ লাখ টাকা করে অনুদান পেল নিহত চারজনের পরিবার

চট্টগ্রাম, ১৬ এপ্রিল- চট্টগ্রামের বাঁশখালীর গণ্ডামারা ইউনিয়নে গুলিতে নিহত চারজনের পরিবারকে সরকারের পক্ষ থেকে ১৫ লাখ টাকা করে অনুদান দেওয়া হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে নিহত ব্যক্তিদের বাড়িতে গিয়ে অনুদানের চেক তুলে দেন চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন। এ সময় তিনি বলেন, জনগণের মতামত উপেক্ষা করে কোনো প্রকল্প করবে না সরকার।

সংঘর্ষে গুরুতর আহত ১১ জনকে এক লাখ টাকা করে এবং আহত আরও ৪৭ জনকে ২৫ হাজার টাকা করে চেক দেওয়া হয়।

এস আলম গ্রুপের মালিকানাধীন এসএস পাওয়ার লিমিটেড ও চীনের দুটি প্রতিষ্ঠানের যৌথ উদ্যোগে গণ্ডামারা ইউনিয়নে ২৫০ কোটি ডলার ব্যয়ে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প স্থাপন করা হচ্ছে। ৪ এপ্রিল গণ্ডামারার হাদিরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের পক্ষে-বিপক্ষের লোকজন সমাবেশ ডাকেন। এ নিয়ে সংঘর্ষে দুই ভাইসহ চারজন নিহত হয়।

গতকাল বিকেলে গণ্ডামারা ইউনিয়নের চরপাড়ার আশরাফ আলীর বাড়িতে গুলিতে নিহত দুই ভাই আনোয়ারুল ইসলাম ও মর্তুজা আলীর পরিবারের সদস্যদের ১৫ লাখ টাকা করে চেক তুলে দেন জেলা প্রশাসক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার এ কে এম হাফিজ আক্তার, অতিরিক্ত চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার (দক্ষিণ) মো. হাবিবুর রহমান, বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. শামসুজ্জামান, বাঁশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদার, গণ্ডামারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফ উল্লাহ প্রমুখ।

নিহত ব্যক্তিদের পরিবারের সদস্যদের সান্ত্বনা জানিয়ে জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন বলেন, স্থানীয় জনগণের মতামত উপেক্ষা করে কোনো প্রকল্প করবে না সরকার। পরিবেশের ক্ষতি না করেই বিদ্যুৎকেন্দ্র করা হবে। কিন্তু মানুষকে ভুল বোঝানো হচ্ছে।

পরে জেলা প্রশাসক চরপাড়া মসজিদ মাঠে নিহত জাকের আহমেদ ও জাকির হোসেনের পরিবারকে ১৫ লাখ করে ৩০ লাখ টাকা দেন। এ সময় আহত ১১ জনকে এক লাখ টাকা করে এবং আরও ৪৭ জনকে ২৫ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়া হয়। নিহত চারজনের পরিবার ও আহত ব্যক্তিদের ৮২ লাখ ৭৫ হাজার টাকা অনুদান দেওয়া হয় বলে জানান জেলা প্রশাসক।

বাঁশখালীতে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র রুখে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে সচেতন নাগরিক ফোরাম গতকাল বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে। ফোরামের ব্যানার লেখা ছিল ‘অন্ধকার নয়, আলো চাই, আরও আলো চাই’।

মানববন্ধনে সচেতন নাগরিক ফোরামের সভাপতি জসীম উদ্দিন বলেন, চট্টগ্রামকে নিয়ে ষড়যন্ত্র হচ্ছে। কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ, বাঁশখালীর কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্পসহ নানা উন্নয়ন কর্মসূচি সরকার হাতে নিলেও একশ্রেণির লোক ষড়যন্ত্রে নেমেছে। বাঁশখালীর সহজ-সরল মানুষকে ভুল বুঝিয়ে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটানো হয়েছে। মানববন্ধনে বক্তব্য দেন অমূল্য ভূষণ বড়ুয়া, আমিনুল ইসলাম, মফিজুর রহমান, মঈনুল ইসলাম খান প্রমুখ।

এদিকে বাঁশখালীতে কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প স্থাপন নিয়ে আজ শনিবার চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়েছে।নায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে নিহত ব্যক্তির পরিবার। ছয় বছর আগে জহিরুলের বাবাকেও একইভাবে হত্যা করা হয়।

এস/১৮:১৫/১৬ এপ্রিল

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে