Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৪-১৫-২০১৬

আমাকে ডেকে নিয়ে অপমান করা হয়েছে : নাসরিন

মাজহার বাবু


আমাকে ডেকে নিয়ে অপমান করা হয়েছে : নাসরিন

ঢাকা, ১৫ এপ্রিল- পয়লা বৈশাখে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনে (বিএফডিসি) দিনব্যাপী ছিল নানা আয়োজন। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে ছিল আলাদা আয়োজন। 

তবে শিল্পী সমিতির অনুষ্ঠানে বিশৃঙ্খলার অভিযোগ উঠেছে। পরিচিত শিল্পীদের তেমন কোনো উপস্থিতি ছিল না সেখানে। এ ছাড়া আয়োজকদের অব্যবস্থাপনায় অনেকেই ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

অভিনেত্রী নাসরিন অভিযোগ করে বলেছেন, শিল্পী সমিতির অনুষ্ঠানে তাঁকে ডেকে নিয়ে অপমান করা হয়েছে। 

বর্ষবরণের দিন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি সকাল ৯টায় বৈশাখের খাবার বিতরণ করে সমিতির অফিস থেকে। সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত বিএফডিসির সাউন্ড কমপ্লেক্সের সামনে নির্মিত মঞ্চে চলচ্চিত্র শিল্পীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। 

সেই অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার কথা ছিল অভিনেত্রী নাসরিনের। এ বিষয়ে তাঁর কাছে জানতে চাইলে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

নাসরিন বলেন, ‘আমি আমার ২০ বছরের কাজের ফল পেয়েছি এফডিসি থেকে। আমাকে ডেকে নিয়ে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দিলেন অমিত হাসান। স্বামী-সন্তানের সামনে আমাকে অপমান করেছেন। হাজার হাজার দর্শকের সামনে আমাকে অপমান করে স্টেজ থেকে নামিয়ে দেওয়া হলো। এর পর আমি আর এফডিসিতে ঢুকতে পারব না। আমার মরে যেতে ইচ্ছা করছে।’

অনুষ্ঠানে কী হয়েছিল—জানতে চাইলে নাসরিন বলেন, ‘অনুষ্ঠানের দুদিন আগেই আমাকে অমিত হাসান ও শিবাশানু ভাই ফোন দিয়ে বারবার অনুষ্ঠানে পারফর্ম করতে বলছিলেন। আমিও অনেক আগ্রহী ছিলাম। চলচ্চিত্রের সব বিষয়েই আমার একটু বেশি আগ্রহ। তখন নায়িকা দিতি আপার একটি ছবির গানের সঙ্গে নাচার জন্য প্রস্তুতি নিই। আমার সঙ্গে আমার স্বামীরও মঞ্চে পারফর্ম করার কথা ছিল।’ 

আয়োজকদের অব্যবস্থাপনার বিষয়ে নাসরিন বলেন, ‘অনুষ্ঠানে অংশ নিতে গিয়ে কোথাও বসার কোনো জায়গা পাচ্ছিলাম না। এমনকি নৃত্য পরিচালক মাসুম বাবুল ভাইকেও বসার জায়গা না পেয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখেছি। মঞ্চে একের পর এক নাচ দেখছি, যাদের কেউই চলচ্চিত্রের সঙ্গে জড়িত নয়। এমনকি যারা যাত্রার নামে মঞ্চে অশ্লীল নৃত্য পরিবেশন করে, তাদের দিয়েও পারফর্ম করানো হয়েছে। এসব বিষয়ের প্রতিবাদ জানাতে আমি মঞ্চে উঠে কিছু কথা বলতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আমাকে কিছু বলতে দেননি অমিত হাসান। সবার সামনে অপমান করে মঞ্চ থেকে নামিয়ে দিয়েছেন। এর আগেও অনেক শিল্পী এভাবে অপমানিত হওয়ায় এখন আর শিল্পী সমিতির কোনো অনুষ্ঠানে প্রকৃত শিল্পীরা আসেন না।’

অনুষ্ঠানটি পরিচালনার দায়িত্ব ছিল নৃত্য পরিচালক সমিতির। অনুষ্ঠানের মঞ্চ ছিল নৃত্য পরিচালক জাকির হোসেনের দখলে। অব্যবস্থাপনার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমরা ৫০ জন শিল্পীর একটি তালিকা ও মোবাইল নম্বর শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অমিত হাসানের হাতে দিয়েছি অনুষ্ঠানের তিন দিন আগেই। কিন্তু আমাদের তালিকার কোনো শিল্পীকেই আমরা পাইনি।’  

অভিনেত্রী নাসরিনের অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে জাকির বলেন, ‘নাসরিন পারফর্ম করবেন, এটা আমি আগে থেকেই জানি। কিন্তু অনুষ্ঠানের সময় কিছু বলেননি। হঠাৎ করেই মঞ্চে এসে কথা বলা শুরু করলে অমিত হাসানের সঙ্গে তাঁর কথাকাটাকাটি হয়। একসময় তিনি কান্নাকাটি করে মঞ্চ থেকে নেমে বেরিয়ে যান।’ 

অভিযোগ সম্পর্কে জানতে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অমিত হাসানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ ব্যাপারে কিছু বলতে রাজি হননি।

আর/১৭:০৪/১৫ এপ্রিল

ঢালিউড

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে