Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 1.3/5 (7 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৪-১২-২০১৬

পায়রা বন্দর চায় ভারত, আসছে উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধি দল

পায়রা বন্দর চায় ভারত, আসছে উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধি দল

ঢাকা, ১২ এপ্রিল- পটুয়াখালীর পায়রা বন্দর ব্যবহার করতে চায় ভারত। এই উদ্দেশ্যে উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দল খুব শিগগিরই ঢাকায় পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন দেশটির কেন্দ্রীয় সড়ক যোগাযোগ ও নৌ পরিবহণ মন্ত্রী নীতিন গড়করি।  

গতকাল সোমবার দিল্লিতে পররাষ্ট্র বিটের সাংবাদিকদের ক্লাবে এ কথা বলেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে একটি সমুদ্র বন্দর স্থাপন এবং আমাদের সম্পর্ক আরও মজবুত করার উপায় খুঁজছি আমরা। এই লক্ষ্যেই একটি কমিটি বাংলাদেশে পাঠিয়েছি।’

তিনি জানান, পটুয়াখালীর পায়রা বন্দরটি হবে দুই জাতির সৌহার্দ্যতার আরেকটি প্রতীক। তবে বাংলাদেশে পাঠানো কমিটির সুপারিশের ওপর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। এরপরই বিনিয়োগ প্রস্তাবনার চূড়ান্ত করা হবে।

মন্ত্রী জানান, উভয়পক্ষের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বন্দরের উন্নয়ন বিষয়ে প্রাথমিকভাবে আলোচনা করেছে। নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিবের নেতৃত্বাধীন একটি প্রতিনিধি দল আগামী সপ্তাহেই স্থান পরিদর্শন এবং বিস্তারিত প্রকল্প প্রতিবেদন তৈরির জন্য বাংলাদেশে যাবে।

ভারতের একজন জ্যেষ্ঠ সরকারি কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বাংলাদেশের পায়রাতে বন্দর স্থাপনের বিস্তারিত প্রকল্প প্রতিবেদন ইতিমধ্যে তৈরি হয়ে গেছে। 

বাংলাদেশের মতো ইরানের ছাবাহার বন্দরেও বিনিয়োগের কথা ভাবছে ভারত। এই উদ্দেশ্যে পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধানের নেতৃত্বে একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল ইরান সফরে রয়েছেন। এ দলে সড়ক যোগাযোগ ও নৌ পরিবহণ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারাও রয়েছেন।

গড়করি কিছুদিন আগে বলেছিলেন, ইরানে ভারত ২ লাখ কোটি রুপি বিনিয়োগ করার কথা ভাবছে। বিনিময়ে তারা ইরানের কাছ থেকে প্রাকৃতিক গ্যাস কম দামে চাচ্ছে। ইরানের বন্দর উন্নয়ন করলে তারা আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের জলসীমায় যোগাযোগ বৃদ্ধি করতে পারবে।      

একই সঙ্গে আফ্রিকা ও চীনের সঙ্গে সুসম্পর্ক গড়তে আগ্রহী ভারত। তাদের বন্দরও ব্যবহার করার চিন্তাভাবনা করছে দেশটির সরকার।

উল্লেখ্য, পায়রা বন্দর বাংলাদেশের পটুয়াখালী জেলায় অবস্থিত বাংলাদেশের তৃতীয় এবং দক্ষিণ এশিয়ার একটি সামুদ্রিক বন্দর। এটি পটুয়াখালী জেলার কলাপাড়া উপজেলার রাবনাবাদ চ্যানেলসংলগ্ন আন্ধারমানিক নদীর পাড়ের টিয়াখালী ইউনিয়নের ইটবাড়িয়ায় অবস্থিত। ২০১৩ সালের ১৯ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কলাপাড়া উপজেলার টিয়াখালী ইউনিয়নের ইটবাড়িয়া গ্রামে ভিত্তিফলক উন্মোচনের মধ্য দিয়ে এই বন্দরের উদ্বোধন করেন।

এটি আমদানি ও রপ্তানির জন্য একটি সরকারি রুট। ৫ নভেম্বর জাতীয় সংসদে পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষ আইন, ২০১৩ পাস হয়। পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষ একটি সরকারি স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা যা পায়রা সামুদ্রিক বন্দর পরিচালনা ও ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে নিয়োজিত।

ব্যবসা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে