Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৪-০৯-২০১৬

হিটলারের জন্মভিটা দখলে নেবে অস্ট্রিয়া

হিটলারের জন্মভিটা দখলে নেবে অস্ট্রিয়া

ব্রাউনাউ, ০৯ এপ্রিল- অস্ট্রিয়ার ব্রাউনাউ শহরের যে বাড়িটিতে এডলফ হিটলার জন্মেছিলেন সেই বাড়িটি বাজেয়াপ্ত করতে চায় অস্ট্রিয়ার সরকার। ‘নব্য নাৎসিরা’ যাতে ওই বাড়িটিকে তীর্থস্থানে পরিণত না করতে পারে সেই জন্যই এই পরিকল্পনা নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। গত তিন বছর ধরে ঐতিহাসিক ওই বাড়িটির ভবিষ্যত নিয়ে আলোচনা চলছে বলে জানান তারা।

বাড়িটি ১৯৭২ সাল থেকে অস্ট্রিয়ার সরকারের ইজারায় রয়েছে। দীর্ঘদিন এটি প্রতিবন্ধী সেবাকেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছিল। তবে ২০১১ সাল থেকে বাড়িটি খালি পড়ে আছে। তখন থেকেই বাড়িটির ভবিষ্যত নিয়ে ভাবতে শুরু করে সরকার। এর আগে বাড়িটি সংস্কার করার প্রস্তাব দেয়া হলেও মালিক গার্লেন্ডের বিরোধীতার মুখে তা আর হয়ে ওঠেনি।

অস্ট্রিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্ল হেইঞ্জ এএফপিকে বলেন, ‘নতুন পরিকল্পনা অনুসারে বাড়িটির মালিককে ক্ষতিপূরণ দেয়ার একটি প্রস্তাব করা হবে। আমরা এ বিষয়ে একটি আইনের কথা ভাবছি, যা বাড়িটির মালিকানা পরিবর্তনে সহযোগিতা করবে। যাতে বাড়িটির মালিকানা সরকারের আওতায় চলে আসে।’ বাড়িটির বিষয়ে একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছে নাৎসিদের এর ব্যাপারে আগ্রহকে উপেক্ষা করার কথাও জানান তিনি।

অস্ট্রিয়ার ছোট্ট শহর ব্রাউনাউ’র এই বাড়িটি হিটলারের প্রতি সহাভূতিশীল মানুষের কাছে এখনো অনেক আগ্রহের বিষয়। বিশ্বের বিভিন্ন জায়গা থেকে হাজারো দর্শনার্থী বাড়িটিতে প্রতিদিন ভিড় করে। বাড়িটিকে ঘিরে হিটলারের তেমন কোনো স্মৃতি না থাকলেও পাথরে খোদাই করে লেখা রয়েছে, ‘আর নয় ফ্যাসিবাদ।’ আরো লেখা আছে, ‘এটি সেই বাড়ি যার সাথে লাখো মানুষের মৃত্যুর স্মৃতি জড়িয়ে।’


এর আগে বাড়িটিকে কী কাজে ব্যবহার করা যায়, তা নিয়ে বিস্তর আলোচনা হলেও কোনো প্রস্তাবই শেষ পর্যন্ত আলোর মুখ দেখেনি। বাড়িটিতে বয়স্ক শিক্ষাকেন্দ্র তৈরির একটি পরিকল্পনাও ছিল, তবে তাও হয়ে ওঠেনি। যাদুঘর করার পরিকল্পনাও ভেস্তে যায়। রাশিয়ার একজন সাংসদ বাড়ীটি কিনে তা ধ্বংস করে ফেলার প্রস্তাব দিলে তাও ফিরিয়ে দেন বাড়ির মালিক।

উল্লেখ্য, জার্মানির ফ্যাসিবাদী সমরনায়ক অ্যাডলফ হিটলার ১৯৩৩ সালে ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হন। আমৃত্যু তিনি জার্মানির ক্ষমতার একচ্ছত্র অধিকারী ছিলেন। তার নাৎসি বাহিনী ১৯৩৮ সালে পোল্যান্ড আক্রমণ করার মধ্যে দিয়ে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু করে। জার্মানির ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হওয়ার পর হিটলারের সবচেয়ে ভয়াবহ আক্রমণ ছিল ইহুদিদের ওপর। হলোকাস্টের (ইহুদি নিধন) মাধ্যমে তিনি ৬০ লাখ ইহুদিকে হত্যা করেন। ১৯৩৮ সালে হিটলার অস্ট্রিয়া দখল করে নেন।

আর/১১:৪৯/০৯ এপ্রিল

অস্ট্রেলিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে