Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (22 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৪-০৪-২০১৬

তনুর এক বন্ধুকে সিআইডির জিজ্ঞাসাবাদ

তনুর এক বন্ধুকে সিআইডির জিজ্ঞাসাবাদ

কুমিল্লা, ০৪ এপ্রিল- সোহাগী জাহান তনু হত্যার ঘটনায় তাঁর এক বন্ধুকে গতকাল রোববার জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিআইডি। তাঁর নাম পেয়ার আহমেদ (২১)। তিনি ঢাকার এক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ প্রথম সেমিস্টারের ছাত্র। তনু ও এই ছেলেটি একই এলাকায় বড় হয়েছেন এবং তাঁদের মধ্যে মুঠোফোনে যোগাযোগ ছিল বলে তদন্তসংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো থেকে জানা গেছে। এ ছাড়া কুমিল্লার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) একজন গাইনি চিকিৎসক এবং সিএমএইচে তনুর প্রথম সুরতহালের সময় উপস্থিত নার্সদের জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিআইডি।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একটি সূত্র জানায়, পেয়ার একজন অনারারি লেফটেন্যান্টের ছেলে। তিনি ও তনু কুমিল্লা সেনানিবাস এলাকায় একসঙ্গে বড় হয়েছেন। দুজনের মধ্যে যোগাযোগ ছিল। যে কারণে তাঁকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তনু হত্যার দিন পেয়ার ঢাকায় ছিলেন বলে তাঁর পারিবারিক সূত্রগুলো দাবি করছে।

তনুর মা আনোয়ারা বেগম গত ২৭ মার্চ বলেছিলেন, পেয়ার ও তনু কাছাকাছি বয়সের। তাঁরা একই এলাকায় বড় হয়েছেন। একে অন্যকে চেনেন।

কুমিল্লা জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মনজুর আলম গতকাল সকাল ১০টার দিকে পেয়ারকে কুমিল্লা সেনানিবাস এলাকা থেকে শহরে সিআইডির কার্যালয়ে নিয়ে আসেন। বেলা দুইটা পর্যন্ত তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ করেন তনু হত্যা মামলার তদন্ত-সহায়ক দলের প্রধান সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার আবদুল কাহার আকন্দ, বিশেষ পুলিশ সুপার নাজমুল করিম খান ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক গাজী মো. ইব্রাহীম।

পরে সিআইডির তদন্ত দলটি পেয়ারকে নিয়ে কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের গেস্টহাউসে যান। সেখানে পরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় কুমিল্লা সিএমএইচের একজন গাইনি চিকিৎসক ও প্রথম সুরতহালের সময় উপস্থিত নার্সদের।

এর আগে সিআইডি গত দুই দিনে কুমিল্লা সেনানিবাসের একজন সার্জেন্ট ও একজন সৈনিককেও জিজ্ঞাসাবাদ করে। এই দুজনের বাসায় তনু টিউশনি করতেন।

এসব জিজ্ঞাসাবাদের বিষয়ে সিআইডির কর্মকর্তারা এখনই কিছু বলতে রাজি হননি। তবে তদন্তসংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, তনু নিয়মিত ডায়েরি লিখতেন। তাঁর লাশ উদ্ধারের পর বাসা থেকে ওই ডায়েরি একটি সংস্থার লোকজন নিয়ে গেছেন।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী ও নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনু গত ২০ মার্চ খুন হন। ওই দিন রাত সাড়ে ১০টার দিকে সেনানিবাসের পাওয়ার হাউসের অদূরে কালভার্টের পাশের ঝোপ থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়।
হাইকোর্টে রিট: বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিশন গঠন করে তনু হত্যার তদন্ত এবং ২৪ ঘণ্টার মধ্যে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে গতকাল একটি রিট আবেদন করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. ইউনূছ আলী আকন্দ। পরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আজ সোমবার বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি এ কে এম সাহিদুল হকের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে এই আবেদনের ওপর শুনানি হতে পারে।

ইউনূছ আলী বলেন, ১৩ দিন পার হয়ে গেলেও তনু হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের এখন পর্যন্ত গ্রেপ্তার করা যায়নি। এ ব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিষ্ক্রিয়তা চ্যালেঞ্জ করে রিট আবেদনটি করা হয়েছে। এতে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে হত্যাকাণ্ডে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তার, উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন বিচার বিভাগীয় কমিশন গঠন করে তদন্ত, তদন্তের নামে তনুর পরিবারের সদস্যদের হয়রানি না করা এবং তনুর পরিবারকে ৩০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রসচিব, প্রতিরক্ষাসচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি), কুমিল্লার পুলিশ সুপার ও কুমিল্লা কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ সাতজনকে রিট আবেদনে বিবাদী করা হয়েছে।

এস/১৫:৪০/০৪ এপ্রিল

কুমিল্লা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে