Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৪-০১-২০১৬

যুক্তরাজ্যে পালিয়ে বেড়ানো আফগানরা

যুক্তরাজ্যে পালিয়ে বেড়ানো আফগানরা

লন্ডন, ০১ এপ্রিল- যুদ্ধ বিধ্বস্ত আফগানিস্তান থেকে অভিভাবকহীন অনেক শিশু একসময় যুক্তরাজ্যে পাড়ি দিয়েছিল নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে। তাদের বৈধ করেনি যুক্তরাজ্য সরকার। তাদের আশ্রয় আবেদন প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। এরকম কয়েকশো তরুণ আফগানকে দেশে ফেরত পাঠানোর আদেশ দিয়েছে যুক্তরাজ্যের একটি আদালত। 

বিবিসি জানিয়েছে, অবৈধ আফগানদের দেশে পাঠানোর কার্যক্রম ইতিমধ্যে শুরু করেছে কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এতে করে তরুণ আফগানদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে ভীতি। আফগানিস্তানে ফেরত যাওয়া এখন তাদের পক্ষে অতন্ত ঝুঁকিপূর্ণ।

লন্ডনে বসবাসরত এমনই একজন আফগান নাগরিক ইসমত। জোরপূর্বক লন্ডন থেকে ফেরত পাঠানোর ভয়ে সে এখন ভীত হয়ে আছে। পুলিশের সাইরেন শুনলেই তার ভয় হচ্ছে হয়তো তাকে ধরতে আসছে তারা।

২০ বছর বয়সী ইসমত একজন অবৈধ অভিবাসী। সে তিনবছর ধরে লুকিয়ে চুরিয়ে জীবন যাপন করছে। সে ১৪ বছর বয়সে আফগানিস্তান থেকে পালিয়ে একাই পাড়ি দেয় যুক্তরাজ্যে। আঠারো বছর পর্যন্ত তাকে যুক্তরাজ্যে থাকার অনুমতি দেয়া হলেও তার বৈধ হওয়ার আবেদন প্রত্যাখ্যাত হয়। কিন্তু ধরে বেঁধে দেশে পাঠানোর আগেই সে লুকিয়ে পড়ে।

ইসমত বলেন, ‘অবৈধ হওয়ায় আমি কোন কাজ করতে পারি না। বন্ধুদের বাসায় বাসায় লুকিয়ে থাকি। নিজে বাসা ভাড়া করতে গেলে ভিসা বা ইনস্যুরেন্স দেখাতে হয়। আফগানিস্তানে চলে গেলে যদি আমার জীবনের নিরাপত্তা থাকতো তাহলে আমি ঠিকই ফিরে যেতাম।’

২০০৭ সাল থেকে দুই হাজারের বেশি আশ্রয় প্রত্যাশীকে আফগানিস্তানে ফেরত পাঠানো হয়েছে। ২১ বছর বয়সী হিকমত এদেরই একজন। কিন্তু তিনি দেশে গিয়েও আবার পালিয়ে যুক্তরাজ্যে চলে আসেন হিকমত। অবৈধভাবে যুক্তরাজ্যে এসে এখন লুকিয়ে রয়েছেন।

যুক্তরাজ্যের স্বরাষ্ট্র দপ্তর থেকে এ ব্যাপারে একটি বিবৃতিতে দিয়ে বলা হয়েছে, তারা তাদের বর্তমান নীতি নিয়ে সন্তুষ্ট। কারণ কেউ যদি প্রমাণ করতে পারে যে, তার সত্যিই আশ্রয় দরকার, সেই আশ্রয় তারা দিয়ে থাকেন।

মানবাধিকার সংস্থাগুলোর সর্বশেষ জরিপ অনুযায়ী, গত বছর আফগানিস্তানে সবচেয়ে বেশি বেসামরিক মানুষ হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। এই কারণ দেখিয়ে কয়েকজন আফগান তাদের দেশে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করেন। এ রকমই একজন আফগান আইনজীবী হচ্ছেন তৌফিক হোসেইন।

হুসেইন বলছেন, ‘এখন থেকে স্বরাষ্ট্র দপ্তর বিমান ভাড়া করে আফগানদের দেশ ফেরত পাঠাতে শুরু করবে। কিন্তু আফগানিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিয়ে পুরনো তথ্য প্রমাণের উপর ভিত্তি করে সিদ্ধান্তটি নেয়া হয়েছে। এখনো প্রতি সপ্তাহেই সেখানে আত্মঘাতী হামলা ঘটছে।’

আইনজীবীরা আশা করছেন, তারা আফগানিস্তানের নিরাপত্তা হীনতার যে নতুন তথ্য প্রমাণ সংগ্রহ করছেন, সেগুলো আদালতে তুলে ধরা হবে, এরপর হয়তো আফগানদের দেশে ফেরত পাঠানোর এই প্রক্রিয়া বন্ধ হবে।

ইউরোপ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে