Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৪-০১-২০১৬

‘ভোটারশূন্য’ ভোটকেন্দ্র

‘ভোটারশূন্য’ ভোটকেন্দ্র

চট্টগ্রাম, ০১ এপ্রিল- সকাল আটটা। চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের কুমিরা ইউনিয়নের উত্তর মছজিদ্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ছিল নারী ও পুরুষ ভোটারদের দীর্ঘ লাইন। কিন্তু উপজেলার আরও কয়েকটি ইউনিয়নের অন্তত ১০টি ভোটকেন্দ্রে গিয়ে দেখা গেছে বিপরীত চিত্র। কেন্দ্রগুলোতে ভোটারের উপস্থিতি ছিল না বললেই চলে।

উত্তর মছজিদ্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে লাইনে দাঁড়ানো ভোটার শ্যামল দত্ত বলেন, সকাল সাড়ে সাতটার দিকে তিনি লাইনে দাঁড়ান। ভোট দিতে আরও দুই ঘণ্টা লেগে যেতে পারে।

সকাল সোয়া নয়টার দিকে সোনাইছড়ি ইউনিয়নের ঘোড়মরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায় লাইনে কোনো ভোটার নেই।

এর আগে ওই কেন্দ্রে জাল ভোট দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই সদস্য পদপ্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে কেন্দ্রটি ভোটারশূন্য হয়ে যায়।

সকাল ১০টার দিকে সোনাইছড়ি উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর সমর্থকেরা ইটপাটকেল হাতে দাঁড়িয়ে আছেন। কিছুক্ষণ পর বিএনপির সমর্থকেরা একত্রিত হয়ে কেন্দ্রের দিকে আসতে চাইলে পুলিশ ধাওয়া করে দুই পক্ষকে সরিয়ে দেয়। এ সময় বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়।

এর আগে সকাল সাড়ে নয়টার দিকে ওই কেন্দ্রে দফায় দফায় ককটেল বিস্ফোরণ, ইটপাটকেল নিক্ষেপসহ পাল্টাপাল্টি ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ১০ জন আহত হন। সকাল ১০টার দিকে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মেজবাহ উদ্দিন, সীতাকুণ্ডের নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাজমূল ইসলাম ভুইয়া কেন্দ্র পরিদর্শনে আসেন। এ সময় কয়েকজন ভোটারকে কেন্দ্রে আসতে দেখা যায়।

বেলা ১১টার দিকে ভাটিয়ারী ইমাম নগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটার সোহরাব হোসেন অভিযোগ করেন, তিনি ভোট দিতে এসে দেখেন তিনটি ব্যালটের সব কটিতে আগে থেকে সিল মারা। তাঁকে ব্যালটগুলো ভাঁজ করে বাক্সে ভরে দিতে বলেন ভোট গ্রহণকারী কর্মকর্তা।

প্রিসাইডিং কর্মকর্তা লিয়াকত আলী চৌধুরী অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

বেলা একটার দিকে ভাটিয়ারী ইউনিয়নের মজিদিয়া ইসলামিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে গিয়ে দেখা গেছে কেন্দ্রটি ভোটারশূন্য। প্রিসাইডিং কর্মকর্তা তুষার কান্তি বড়ুয়া বলেন, ৪০ শতাংশ ভোট পড়েছে ওই কেন্দ্রে।

ওই কেন্দ্রে বিএনপির প্রার্থীর এজেন্ট আবু তাহের বলেন, এ কেন্দ্রে কোনো ধরনের সহিংসতার ঘটনা ঘটেনি। সুষ্ঠু ভোট হচ্ছে।

এ ছাড়া বাড়বকুণ্ড উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্র, মুরাদপুরের সাদেক মস্তান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র, বাঁশবাড়িয়া উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্র, মাদামবিবিরহাট শাহাজানিয়া উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শন করে ভোটারশূন্য দেখা গেছে।
ইউএনও নাজমূল ইসলাম ভুইয়া বলেন, বিচ্ছিন্ন কয়েকটি সহিংসতা ছাড়া তেমন কোনো গোলযোগ হয়নি। শান্তিপূর্ণভাবে ভোট হয়েছে।

এস/১৫:১৫/০১ এপ্রিল

চট্টগ্রাম

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে