Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (21 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৩-৩১-২০১৬

‘আফ্রিকা’র বাসিন্দা অপবাদ ঘোচাতে চান ভোটাররা

সুমন মোল্লা


‘আফ্রিকা’র বাসিন্দা অপবাদ ঘোচাতে চান ভোটাররা

কিশোরগঞ্জ, ৩১ মার্চ- কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার লোহাজুরী ইউনিয়ন পরিষদের মাঠে বসে কথা বলছিলেন বেশ কয়েকজন। প্রধান বিষয় নির্বাচন। কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি কেমন হবে? সহিংসতার আশঙ্কা কতটুকু? সুষ্ঠু ভোট নিয়ে সংশয় রয়েছে কি না? কাকে এবং কেন ভোট দেবেন? সব আলোচনা ছাপিয়ে লোহাজুরী আর কত দিন আফ্রিকার মতো উন্নয়নবঞ্চিত থাকবে, আলোচনায় উঠে আসে ইস্যুটি। শেষে লোহাজুরীকে আফ্রিকা অঞ্চলের সঙ্গে তুলনা করার অপবাদ দূর করা সম্ভব হবে—এমন প্রার্থীর পক্ষে রায় দেওয়ার মত দেন তাঁরা। 
আলোচনাকারীদের একজন দক্ষিণ লোহাজুরী গ্রামের আজিজুর রহমান (৫৫)। তিনি বাংলাদেশ রেলওয়ের সাবেক হিসাবরক্ষক। আজিজুর বলেন, সারা দেশ কমবেশি এগিয়ে যাচ্ছে। আর আমাদের এখনো ‘আফ্রিকা’র বাসিন্দা করে রাখা হয়েছে। এবার যে প্রার্থী আফ্রিকার অপবাদ ঘোচাতে পারবেন, আমরা তাঁকে ভোট দেব। 

লোহাজুরীতে বসতি ব্রিটিশ আমল থেকে। মনোহরদী, বেলাব, কুলিয়ারচর ও বাজিতপুর এই চার উপজেলার মাঝের ইউনিয়ন হওয়ায় শুরু থেকে ইউনিয়নটির আইনশৃঙ্খলা বলতে কিছু ছিল না। যখন-তখন দুর্বৃত্তরা এসে লোহাজুরীতে হানা দিত এবং সর্বস্ব লুটে নিত। গাছ আর জঙ্গলে আচ্ছাদিত পুরো অঞ্চলটি ঝোপ ও জঙ্গলে ঘেরা। স্বাধীনতার ৪৪ বছর পর উপজেলাটির বাকি আটটি ইউনিয়নে উন্নয়ন হলেও লোহাজুরী আছে আগের মতোই। পুরো ইউনিয়নে এখনো আধা কিলোমিটার ছাড়া পাকা সড়ক নেই। ঝোপ-জঙ্গলের মধ্য দিয়েই চলাফেরা করতে হয়। 

সরেজমিন দেখা যায়, দক্ষিণ লোহাজুরীর মোড়লবাড়ি-ঈদগাহ মাঠ সড়ক, আরিয়াদর বাজার থেকে পাইকান গুদারাঘাট, আফতাব মুন্সির মোড় থেকে মুন্সি আবদুল হেকিম কারিগরি মহাবিদ্যালয়, ইউনিয়ন পরিষদ থেকে দক্ষিণ লোহাজুরী কাঁচাবাজার, লোহাজুরী উচ্চবিদ্যালয় থেকে রাজগুপাট ও রসুলপুর বাজার থেকে নাথের বাজার সড়ক কাঁচা। পুরো ইউনিয়নে রিকশা কিংবা যান্ত্রিক বাহন চলে না। বাহন বলতে সাইকেল। সাইকেলে করে এখানকার মানুষ তাদের উৎপাদিত পণ্য বাজারজাত করে আসছে। 

উত্তর লোহাজুরী গ্রামের রিকশাচালক রইছ উদ্দিন (৪০) বলেন, ‘১৭ বছর ধরে রিকশা চালাই। রাস্তা না থাকায় আমার ইউনিয়নে চালাতে পারি না। মানুষ আমরারে আফ্রিকা কইত না তো কী কইব, সিঙ্গাপুর কইব? ভোট এবার হিসাব করেই দিমু।’ 

অরিয়াদর বাজারে গিয়ে দেখা যায় বেশ কিছু মানুষ নির্বাচন নিয়ে কথা বলছেন। হাবিব মিয়া (৩০) নামে বাজারসংলগ্ন বাড়ির বাসিন্দা বলেন, আমাদের ইউনিয়নে তথ্যসেবাকেন্দ্রটির সেবা নেই। প্রায় সময় বন্ধ থাকে। কষ্ট করে সদরে গিয়ে সমস্যার সমাধান করতে হয়। 

স্থানীয় বাসিন্দাদের প্রত্যাশার বিষয়ে বিএনপির প্রার্থী সাইফুল মতিন বলেন, ‘আমি বিজয়ী হলে আফ্রিকার গৌরবও রাখব আবার প্রতিকূলতা দূর করে সমৃদ্ধ অঞ্চল প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করব।’ একই মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতাউর উদ্দিন ভূঁইয়া। 

টানা ২৭ বছর চেয়ারম্যান গোলাম হায়দার মারুয়া। এবার তিনি স্বতন্ত্র হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আফ্রিকা ইস্যুতে তিনি বলেন, সত্যিই আমার ইউনিয়ন একসময় আফ্রিকার মতো ছিল। তবে আমার চেষ্টায় কিছুটা পরিবর্তন এসেছে। আবার সুযোগ পেলে তিনি ইউনিয়নের আরও উন্নয়ন করতে চান। 

এই ইউনিয়নের ভোট আজ বৃহস্পতিবার। চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ছয়জন। আওয়ামী লীগের আতাউর উদ্দিন ভূঁইয়া, দলটির বিদ্রোহী খায়রুল আমিন, বিএনপির সাইফুল মতিন, দলটির বিদ্রোহী গোলাম হায়দার মারুয়া, ইসলামী আন্দোলনের সিরাজুল ইসলাম, স্বতন্ত্র এ কে এম ফজলুল হক জোয়ারদার।

এস/১৪:৫০/৩১ মার্চ

কিশোরগঞ্জ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে