Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 1.0/5 (1 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৩-২৬-২০১৬

নিরাপত্তা ইস্যুতে একসাথে চলবে ইরান ও পাকিস্তান

নিরাপত্তা ইস্যুতে একসাথে চলবে ইরান ও পাকিস্তান

ইসলামাবাদ, ২৬ মার্চ- দুই দিনের সফরে বর্তমানে পাকিস্তানে রয়েছেন ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। গত ১৪ বছরে ইরানের কোনো প্রেসিডেন্টের এটাই প্রথম পাকিস্তান সফর। সফরে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের সাথে বৈঠক করেছেন রুহানি। এতে আঞ্চলিক নিরাপত্তা ইস্যুতে সহযোগিতা বাড়ানোর প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন দুই দেশের রাষ্ট্রপ্রধানই। 

শুক্রবার পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে দুই দেশের মধ্যকার বাণিজ্যিক সম্পর্ক বাড়ানোর কথাও বলা হয়। পাকিস্তানের গণমাধ্যমকে রুহানি জানান, পাকিস্তানে এবং ইরান-পাকিস্তান সীমান্তে চরমপন্থী এবং সন্ত্রাসী গোষ্ঠিগুলোর বিরুদ্ধে লড়তে তিনি এবং নওয়াজ শরিফ একমত হয়েছেন। এছাড়া দীর্ঘদিন ধরে অবরোধের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত দুই দেশের মধ্যকার বাণিজ্যিক সম্পর্ককে এগিয়ে নেয়ার কথা হয়েছে বলেও জানান রুহানি। 

জ্বালানি, গ্যাস এবং বিদ্যুৎ রপ্তানির বিষয়ে কথা হয়েছে জানিয়ে রুহানি বলেন, ‘আঞ্চলিক নিরাপত্তার বিষয়ে দুই দেশের সহযোগিতার প্রয়োজনীয়তা বিষয়ে আমরা জোর দিয়েছি।’

নওয়াজ শরিফ গণমাধ্যমকে জানান, পর্যটক খাতের উন্নয়ন এবং জনগণের মধ্যে আন্তঃসম্পর্ক বাড়ানোর মাধ্যমে দুই দেশের অর্থনীতিই উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। 

একটি সুন্নিপ্রধান দেশ হিসেবে সৌদি আরবের সাথে গভীর সম্পর্ক আছে পাকিস্তানের। শিয়াপ্রধান দেশ ইরানের সাথে বৈরিতা আছে সৌদি আরবের। ইয়েমেনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের স্বীকৃত সরকারের বিরুদ্ধে যুদ্ধরত হুতি বিদ্রোহীদের ইরান সহায়তা করে বলে অভিযোগ করে আসছে সৌদি আরব।

চলতি বছরের শুরুর দিকে সৌদি আরব সরকার শিয়া নেতা শেখ নিমরসহ শিয়া সম্প্রদায়ের আরো তিন সদস্যের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করলে দুই দেশের সম্পর্কের অবনতি ঘটে। ওই ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় ইরানী বিক্ষোভকারীরা তেহরানে সৌদি আরবের দূতাবাসে আগুন দিলে ইরানের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে দেশটি।   

সৌদি আরবের দাবি, শিয়া নেতা নিমর সৌদি আরবে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত ছিল। তবে ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনির মতে, সৌদি রাজতন্ত্রের সমালোচনা করার কারণেই নিমরকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে।

এছাড়া সম্প্রতি সৌদি আরব ও ইরানের মধ্যকার উত্তেজনার সময় ৩৪টি মুসলিম দেশকে সাথে নিয়ে সৌদি আরবের সামরিক জোট গঠনকে শর্তহীন সমর্থন দেয়ার ঘোষণা দিয়েছিল পাকিস্তান। তাছাড়া সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে পাকিস্তানের গণমাধ্যম দুনিয়া নিউজ জানিয়েছে, মুসলিম দেশগুলোকে সাথে নিয়ে ন্যাটোর মতো একটি সামরিক জোট করতে চাইছে সৌদি আরব। আর এর সমন্বয়ের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে পাকিস্তানকে।

এফ/১৬:৩০/২৬মার্চ

দক্ষিণ এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে