Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৩-২৫-২০১৬

ইতিহাস বিকৃতিতে যাবে নাগরিক অধিকার

জাকির হোসেন


ইতিহাস বিকৃতিতে যাবে নাগরিক অধিকার

ঢাকা, ২৫ মার্চ- বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করলে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য আদালত দণ্ডিত ব্যক্তির নাগরিক অধিকার স্থগিত করতে পারবে— এ বিধান রেখে ‘বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতিকরণ অপরাধ আইন-২০১৬’-এর খসড়া প্রস্তুত করা হয়েছে। খসড়ায় বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস অস্বীকার ও এর কোনোপ্রকার বিকৃতি নিরোধকল্পে এ আইন প্রণয়ন করা হচ্ছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

১৯৪৭ সালের ১৪ আগস্ট হতে ১৯৭১ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যবর্তী সময়ে মুক্তিযুদ্ধের ক্ষেত্র প্রস্তুতকারী ঘটনা অস্বীকার, ১৯৭১ সালের ১ মার্চ হতে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চের মধ্যবর্তী ঘটনাসমূহ অস্বীকার এবং ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ হতে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বরের মধ্যবর্তী সময়ে মুক্তিযুদ্ধের ঘটনাসমূহকে অস্বীকার করাকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতকরণ অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে।

অপরাধ হিসেবে আরও গণ্য হবে— মুক্তিযুদ্ধের কোনো ঘটনাবলীকে হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে দেশি-বিদেশি গণমাধ্যমে বিদ্বেষমূলক বক্তব্য প্রচার, সরকার কর্তৃক এ যাবৎকালে প্রকাশিত মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সংক্রান্ত যে কোনো ধরনের প্রকাশনার অপব্যাখ্যা, পাঠ্যপুস্তকসহ যে কোনো মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে ভ্রান্ত বা অর্ধসত্যের উপস্থাপন, মুক্তিযুদ্ধে শহীদ, বীরাঙ্গনা, জনগণকে হত্যা, অগ্নিসংযোগ, ধর্ষণ এবং লুটতরাজ সংক্রান্ত যে কোনো তথ্যের অবমানানা। 

এ ছাড়া মুক্তিযুদ্ধ সংক্রান্ত কোনো ঘটনা, তথ্য বা উপাত্ত ব্যাঙ্গাত্মকভাবে উপস্থাপন, মুক্তিযুদ্ধকে জাতীয় মুক্তির জন্য ঐতিহাসিক সংগ্রাম ভিন্ন অন্য কোনো নামে অবনমন বা অসম্মান, ১৯৭১ সালের পাকিস্তান দখলদার বাহিনী, বিভিন্ন সহায়ক বাহিনী যেমন রাজাকার, আরবদর, আলশামস ও শান্তি কমিটি ইত্যাদির বিভিন্ন অপরাধমূলক কার্যক্রমের পক্ষে কোনো যুক্তি প্রদর্শন বা প্রচারণা এবং মুক্তিযুদ্ধে সংগঠিত মানবতাবিরোধী অপরাধ, শান্তিবিরোধী অপরাধ, গণহত্যা, যুদ্ধাপরাধকে সমর্থন বা উক্তরূপ অপরাধের বিচার কার্যক্রমকে প্রশ্নবিদ্ধকরণ বা এতদবিষয়ে কোনো ধরনের অপপ্রচার অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে।

খসড়ায় বলা হয়েছে, ওইসব অপরাধ করলে অন্যূন ৩ মাস এবং অনূর্ধ্ব ৫ বছর কারাদণ্ডে দণ্ডিত হবে এবং এর সঙ্গে ১ কোটি টাকা অর্থদণ্ডও হবে। কোনো ব্যক্তি অপরাধ করে দণ্ডিত হওয়ার পর আবার যদি একই অপরাধ করে তাহলে তার পূর্বের দণ্ডের দ্বিগুণ দণ্ড হবে।

একাধিক অপরাধের জন্য দণ্ডিত ব্যক্তির দণ্ড পর্যায়ক্রমে কার্যকর হবে। এ ছাড়া নির্দিষ্ট সময়ের জন্য আদালত দণ্ডিত ব্যক্তির নাগরিক অধিকার স্থগিত বা মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক গবেষণা প্রতিষ্ঠান বা অন্য কোনো প্রতিষ্ঠানে বিনা পারিশ্রমিকে খণ্ডকালীন সেবা প্রদানের আদেশ দিতে পারবে।

এ ছাড়া দণ্ডিত ব্যক্তির স্থাবর বা অস্থাবর বা উভয়বিধ সম্পত্তির তালিকা প্রস্তুত করে ক্রোক ও নিলাম বিক্রয় বা ক্রোক ছাড়াই সরাসরি নিলাম করে ওই অর্থ রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমার নির্দেশ প্রদানের বিধান রয়েছে। এদিকে আদালতের কোনো আদেশ, রায় বা দণ্ডের বিরুদ্ধে রায় প্রদান বা আদেশ বা দণ্ড ঘোষণার ৩০ দিনের মধ্যে সুপ্রিম কোর্টের হাই কোর্ট বিভাগে আপিল করা যাবে।

বিচারকর্যের বিষয়ে খসড়ায় বলা হয়েছে— দায়রা আদালত, ক্ষেত্রমতো মহানগর দায়রা আদলত কর্তৃক বিচার হবে। এ বিচার ৪৫ কার্যদিবসের মধ্যে সম্পন্ন করতে হবে। এই ৪৫ দিনের মধ্যে সম্পন্ন না হলে আরো ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে বিচারকার্য সম্পন্ন করতে হবে। তবে নির্ধারিত সময়ে বিচারকার্য সম্পন্ন করতে ব্যর্থতার সঙ্গে জড়িতের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আদালত উপযুক্ত কর্তৃপক্ষকে আদেশ দিতে পারবে।

এ ছাড়া কোনো অডিও, অডিও-ভিডিও, ইন্টারনেটভিত্তিক দলিল, তথ্য, লিখিত বা মুদ্রাক্ষরিক দলিল, আদালতের আদেশ বা রায়, তদন্ত প্রতিবেদন বা সরকারি ঘোষণা উপযুক্ত কর্তৃপক্ষ দ্বারা যথাযথভাবে সরবরাহকৃত এবং স্বাক্ষরিত এবং প্রমাণীকৃত হলে তা সাক্ষ্য হিসেবে আদালতে গ্রহণযোগ্য হবে।

খসড়ায় আরও বলা হয়েছে,  আদালত এই আইনের অধীনে সংঘটিত অপরাধের বিচার সংক্ষিপ্ত পদ্ধতিতে করবে। এই আইনের অধীন অপরাধসমূহ আমলযোগ্য, জামিনযোগ্য এবং অ-আপসযোগ্য হবে। আদালত সরাসরি অপরাধ বিচারকার্য গ্রহণ না করলে, অনুসন্ধান প্রতিবেদন অথবা পুলিশ কর্মকর্তার প্রতিবেদন ব্যতিরেকে আদালত কোনো অপরাধ বিচারকার্য গ্রহণ করবে না।

অনুসন্ধান বা তদন্ত সংক্রান্ত কয়েকটি নিয়মও রয়েছে এ খসড়ায়। এর একটিতে বলা হয়েছে, পুলিশের নিকট এই আইনের অধীন কোনো অপরাধ সংঘটনের সংবাদ আসলে সংশ্লিষ্ট থানার পরিদর্শকের নিচে নন, এমন একজন পুলিশ কর্মকর্তা এই আইনের অধীন তদন্তকার্য সম্পাদন করবেন। খসড়ায় এ আইন সমগ্র বাংলাদেশে প্রযোজ্য বলা হয়েছে। অবিলম্বে এ আইন কার্যকর হবে বলেও উল্লেখ আছে খসড়ায়।

এফ/১৬:০৫/২৫মার্চ

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে