Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.9/5 (16 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৩-২৫-২০১৬

খুলনায় এক বছরে যক্ষ্মা রোগী বেড়েছে ১২ শতাংশ

খুলনায় এক বছরে যক্ষ্মা রোগী বেড়েছে ১২ শতাংশ

খুলনা, ২৫ মার্চ- এক বছরে খুলনা সিটি করপোরেশনসহ জেলার নয় উপজেলায় যক্ষ্মায় আক্রান্ত রোগী বেড়েছে ১২ শতাংশের বেশি। আর সিটি করপোরেশনে বেড়েছে ১৮ শতাংশ।

কর্মকর্তারা বলছেন, এতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। কারণ, পর্যাপ্ত ওষুধ ও জনবল নিয়োগ করা আছে।
খুলনা সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৪ সালে জেলার নয় উপজেলায় যক্ষ্মায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয় ২ হাজার ১০৬ জন। ২০১৫ সালে প্রায় ১০ শতাংশ বেড়ে এই সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৩০৭ জনে। আর ২০১৪ সালে সিটি করপোরেশনের মধ্যে ৯৩৮ জন রোগী শনাক্ত করা হয়। গত বছর এই সংখ্যা দাঁড়ায় ১ হাজার ১১০ জনে। বেড়েছে প্রায় ১৮ শতাংশ।

সূত্রটি জানায়, গত বছর সিটি করপোরেশনসহ খুলনা জেলায় মোট যক্ষ্মায় আক্রান্ত রোগী ৩ হাজার ৪১৭ জনের মধ্যে প্রায় ৪৫ শতাংশই নারী।

খুলনায় বর্তমানে যক্ষ্মা নির্মূলে সরকারের সহযোগী হিসেবে কাজ করছে পাঁচটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে একমাত্র ব্র্যাক কাজ করছে উপজেলাগুলোতে।

কর্মকর্তারা জানান, জেলার প্রতিটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে একটি করে যক্ষ্মা চিকিৎসাকেন্দ্র আছে। আর সিটি করপোরেশনের মধ্যে রয়েছে যক্ষ্মা চিকিৎসার দুটি হাসপাতাল। এর পাশাপাশি যক্ষ্মা চিকিৎসায় কাজ করছে আরও পাঁচটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। ফলে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

ব্র্যাকের টিবি কন্ট্রোল প্রোগ্রামের খুলনা জেলা শাখার ব্যবস্থাপক রফিকুল ইসলাম বলেন, ২০০৪ সালে যক্ষ্মার চিকিৎসা কার্যক্রম শুরু হওয়ার পর থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত খুলনার নয় উপজেলায় মোট ২০ হাজার ৩৭৭ জন যক্ষ্মায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ১৯ হাজার ৭৬৫ জন রোগী চিকিৎসায় সম্পূর্ণ ভালো হয়ে গেছে।

রফিকুল ইসলাম জানান, নয় উপজেলায় ব্র্যাকের ৩৮৪টি কফ পরীক্ষাকেন্দ্র আছে। এসব কেন্দ্রের অধীনে মাঠপর্যায়ে কাজ করছেন ১ হাজার ২৮০ জন নার্স। যক্ষ্মা নির্মূলে এলাকাভিত্তিক ব্যাপক প্রচারণাও চালানো হচ্ছে।

সিভিল সার্জন মো. রফিকুল ইসলাম জানান, যক্ষ্মা নির্মূলে সরকার যথেষ্ট তৎপর। কোথাও কোনো ওষুধের স্বল্পতা নেই। সুতরাং আতঙ্কের কিছু নেই। মানুষ একটু সচেতন থাকলেই যক্ষ্মা থেকে প্রতিকার সম্ভব।

যক্ষ্মা দিবস পালন: ‘ঐক্যবদ্ধ হলে সবে, যক্ষ্মামুক্ত দেশ হবে’ স্লোগান নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার খুলনায় পালিত হয়েছে বিশ্ব যক্ষ্মা দিবস। খুলনা স্কুল হেলথ ক্লিনিক প্রাঙ্গণে শোভাযাত্রা-পরবর্তী এক সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান।

সিভিল সার্জন রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সিভিল সার্জন মো. হামে জামাল, স্বাস্থ্য বিভাগের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) মো. আবদুল নাসের ও যক্ষ্মা বিশেষজ্ঞ মো. আনোয়ারুল আজাদ। স্বাস্থ্য বিভাগ, সিভিল সার্জনের অফিস, ব্র্যাকসহ অন্যান্য সহযোগী সংস্থা যৌথভাবে এ কর্মসূচির আয়োজন করে।

এস/০২:৪০/২৫ মার্চ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে