Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 1.2/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৩-২৫-২০১৬

অন্তর্বাস থেকে নিঃশ্বাস, সবই বেচেন তারকারা

অন্তর্বাস থেকে নিঃশ্বাস, সবই বেচেন তারকারা

বলা হয়ে থাকে, অন্তর্বাস থেকে নিঃশ্বাস, সব বেচে দেয়ার ফিকির জানেন তারকারা। তাদের ব্যবহার করা কোনো কিছুই যেন ফেলনা নয়। নিলামের মাধ্যমে তারকাদের ব্যবহার্য জিনিসপত্র বিক্রি হয় লাখো কোটি ডলারে। এসব খবর মাঝে মধ্যেই চলে আসে আমাদের নজরে। তারকাদের ব্যবহার করা সামান্য জিনিসপত্রও যে কত দামে বিক্রি হতে পারে তাই জানাব আজ পাঠকদের।

প্রীতি জিনতা: সম্প্রতি বিয়ে করছেন প্রীতি জিন্তা। অথচ তার বিয়ের কোনো ছবিই দেখা গেল না। বিয়েতে নিমন্ত্রিত অতিথিদের নিষেধ করে দেয়া হয়েছিল বর-কনের ছবি তুলতে। কিন্তু কারণটা কী? আসল গল্প হল, প্রীতি তার বিয়ের ছবি নিলামে তুলবেন।

এলিজাবেথ টেলর: হীরা নাকি মেয়েদের সবচেয়ে কাছের বন্ধু। হলিউড অভিনেত্রীদের কাণ্ড দেখলে অবশ্য সে কথা মনে হয় না। এলিজাবেথ টেলর আর রিচার্ড বার্টনের প্রেমকাহিনি বেশ রঙিন। তারা একবার বিয়ে করে ডিভোর্স করে ফের বিয়ে করেন। যদিও আবার ডিভোর্স হয়। বিয়ের সময় রিচার্ড ৬৯.২ ক্যারেটের একটা হীরার আংটি দিয়েছিলেন এলিজাবেথকে। দ্বিতীয়বার ডিভোর্সের পর যেটা লিজ বিক্রি করে দেন ৫০ লাখ মার্কিন ডলারে। সেই টাকা হাসপাতাল তৈরির কাজে লাগিয়েছিলেন তিনি।


মাইকেল জ্যাকসন: নিউ জার্সির এক ব্যবসায়ী কিনে নিয়েছিলেন পপ তারকা মাইকেল জ্যাকসনের অন্তর্বাস। এই অন্তর্বাসের পিছনে একটা গল্পও আছে। ২০০৩ সালে মাইকেল জ্যাকসন যখন শিশু নিগ্রহের মামলায় ফেঁসেছেন, তখন ডিএনএ পরীক্ষার জন্য এই অন্তর্বাসই নমুনা হিসেবে রাখা হয়েছিল। পুলিশের কাছে এভিডেন্স ব্যাগে রাখা এই অন্তর্বাস নিলামে ওঠে। জ্যাকসনের এক ভক্ত সেটা কিনে নেন ১০ লাখ মার্কিন ডলারে।

কিম কার্দাশিয়ান: খবরে কেমন করে থাকতে হয়, সেটা কিম বেশ ভালই জানেন। নিজের ছবি তো তিনি বেশ চড়া দামেই বিক্রি করে থাকেন। কিন্তু সে সব আর নতুন কী! একবার নিজের ব্রা নিলামে তুলে সকলকে চমকে দিয়েছিলেন কিম। তিনি যখন অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন, সেই সময়ের পোশাকও একটি অনলাইন সংস্থাকে চড়়া দামে বিক্রি করেছেন।

লেডি গাগা: তিনি যা-ই ব্যবহার করেন, সেটা শৈল্পিক কর্মের সামিল হয়ে যায়। লেডি গাগার কিছু ছোঁয়া মানেই সেটা স্বর্ণের সমতুল্য। গাগার ব্যবহার করা কাপ-প্লেট নিলাম হয়েছিল ৭৫ হাজার মার্কিন ডলারে। সেটাতে আবার গাগার সইও ছিল।

ব্রিটনি স্পিয়ার্স: তারকার ছোঁয়া থাকলে কী না হয়! ব্রিটনির চিবানো চুইং গাম তার এক ভক্ত কিনে নিয়েছিলেন ৫০ পাউন্ডে। এরপর টরোন্টোতে একজন ব্রিটনির চুইং গাম কিনেছিলেন ১৪ হাজার মার্কিন ডলারে।


ব্র্যাঞ্জোলিনা: কীভাবে নিলাম থেকে ফায়দা তুলতে হয় সেটা ব্র্যাঞ্জেলিনা দম্পতি থেকে শেখা যায়। বিয়ের পোশাক দুটি পত্রিকার কাছে রীতিমতো দর হেঁকে বিক্রি করেছিলেন ব্র্যাড আর জোলি। তাদের ছেলেমেয়েরা মায়ের বিয়ের পোশাকে আনাড়ি হাতে দিব্যি ড্রয়িং করে দিয়েছিল। সেই ছবিও ৫০ লাখ মার্কিন ডলারে বিক্রি করেছিলেন একটি পত্রিকাকে। এ তো গেল পোশাক বিক্রি। ব্র্যাড আর জোলি তাদের কৌটা ভর্তি নিঃশ্বাস পর্যন্ত বিক্রি করেছেন ৫২৩ মার্কিন ডলারে। কে জানে কে কিনেছিলেন!

জাস্টিন বিবার: পপ তারকার ফ্লপি ফ্রিঞ্জ(সামনের অংশের বাড়তি চুল) বেশ জনপ্রিয়ই ছিল। ২০১১ তে তিনি সেটা কেটে ফেলায় ভক্তরা দুঃখিত হয়েছিলেন। তবে কাটার পিছনে কারণও ছিল। জাস্টিন তার সেই চুল নিলামে তুলেছিলেন। এক ভক্ত ৪০ হাজারেরও বেশি মার্কিন ডলার দিয়ে সেটা কিনেও নিয়েছিলেন।

জাস্টিন টিম্বারলেক: একটা রেডিও স্টেশনে বসে নাশতা খাচ্ছিলেন জাস্টিন। ফ্রেঞ্চ টোস্টটা অর্ধেকের বেশি খাননি। ফেলে উঠে গিয়েছিলেন। কে জানত, সেটার দাম উঠবে ৩১৫৪ মার্কিন ডলার! জাস্টিনের নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার অর্থ সংগ্রহের জন্য হয়েছিল সেই নিলাম।

আর/১২:৪১/২৫ মার্চ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে