Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৩-১৯-২০১৬

আজ ইডেনে কী হবে? জ্যোতিষ বিচার তো মারাত্মক কথা বলছে

শ্রীমদন


আজ ইডেনে কী হবে? জ্যোতিষ বিচার তো মারাত্মক কথা বলছে

কলকাতা, ১৯ মার্চ- ইডেনে আজ শুধু ব্যাট আর বলের লড়াই হবে না। এই ম্যাচ আসলে স্নায়ুর লড়াই। সেই লড়াই মূলত ধোনি এবং আফ্রিদির মধ্যে। আর তাদের দু’জনের জ্যোতিষগত অবস্থান বলছে খেলা খুব সোজা নয়।

ভারত বনাম ক্রিকেট। সেটা যদি প্র্যাক্টিস ম্যাচ হয় তবেও তা নিয়ে টানটান উত্তেজনা থাকে। সেখানে এই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথমবার মুখোমুখি হচ্ছে দুই চির প্রতিদ্বন্দী দল। কী হবে সেই ম্যাচে? প্রশ্ন শুধু ভারত বা পাকিস্তানের ক্রিকেটমোদীদের নয়, গোটা দুনিয়ার ক্রিকেটপ্রেমীদের। সবার নজর ইডেনের দিকে। তার আগে একবার দুই অধিনায়কের জন্মপত্রের দিকে নজর দেওয়া যাক।


ধোনির জন্ম বিবরণ
নাম- মহেন্দ্র সিংহ ধোনি
জন্মতারিখ- ৭ জুলাই, ১৯৮১
জন্মবার- মঙ্গল
জন্মস্থান- রাঁচি
জন্ম সময়- বেলা ১১টা ১৫ মিনিট


আফ্রিদির জন্ম বিবরণ
নাম- শাহিদ আফ্রিদি
জন্মতারিখ- ১ মার্চ, ১৯৮০
জন্মবার- শনিবার
জন্মস্থান- খাইবার পাস
জন্ম সময়- রাত্রি ১২ টা

একটি বিষয় মনে রাখা দরকার যে জন্ম তথ্য এখানে তুলে ধরা হয়েছে তা সঠিক জ্যোতিষ বিচার করার মতো প্রামাণ্য নয়। তবু তার উপরেই নির্ভর করে দেখা যাচ্ছে ধোনি কন্যা রাশির জাতক এবং আফ্রিদি সিংহ রাশির জাতক। 

কন্যা রাশির জাতক সাধারণভাবে ঠান্ডা প্রকৃতির হন। সেই সঙ্গে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। এই দু’টি গুণই মিস্টার কুল ধোনির মধ্যে বিদ্যমান। আর এই দু’টি গুণের জোরেই তিনি সাফল্য লাভ করে আসছেন। একের পর এক লড়াইয়ের মুখোমুখি হলেও ঠান্ডা মাথায় তা ট্যাকল করেছেন।

অন্যদিকে নিজের ভালবাসার প্রতি সব সময় দৃঢ় মনোভাবের হন সিংহ রাশির জাতকেরা। এটা সকলেই মানবেন যে, ক্রিকেট আফ্রিদির প্রথম ভালবাসা। এঁরা সব সময় আলোর বৃত্তে থাকতে ভালবাসেন। তবে ভাল গুণের মতো সিংহ রাশির একটা নেগেটিভ দিক হল এঁরা বড় একগুঁয়ে।

এত গেল দুই দলের অধিনায়কের চরিত্র বিশ্লেষণ। কিন্তু মুশকিল হল দু’জনেরই বর্তমানে প্রায় একই রকম লড়াইয়ের সময় চলছে। ধোনির রাহুর দশা চলছে। অন্যদিকে চন্দ্রের দশা চলছে আফ্রিদির। রাহুর দশা এমনিতেই ভাল চলছে ধোনির। কিন্তু চন্দ্র সেভাবে সাফল্য দিতে পারছে না আফ্রিদিকে। 

সেদিক থেকে এগিয়ে আছেন ধোনি। কিন্তু সিংহ রাশির আফ্রিদির পক্ষে যেটা সবচেয়ে অনুকূল তা হল এই রাশির জাতকেরা কঠিন সময়ে স্নায়ুর লড়াই বেশি দিতে পারে। সুতরাং ভারত যদি আগে ব্যাট করে এবং রানের পাহাড় তৈরি করতে পারে তা হলেও জোর লড়াই দেবেন আফ্রিদি। কিন্তু উল্টোটা হলেই ভারতের পক্ষে ভাল। পাকিস্তান যত রানই ভারতের সামনে রাখুক, ধোনি বাহিনী সেটা টপকে যাওয়ার লড়াইতে এগিয়ে থাকবে। 

একটা বিষয় আশা করাই যায় যে, ইডেন গার্ডেন্স এদিন ব্যাটসম্যানদের। বড় রান হবে। দুই দলের ক্ষেত্রে একই কথা, নিজেদের ওপর বিশ্বাসটা রাখা চাই। আর এখানেই এগিয়ে রয়েছে ধোনি বাহিনী। খেলার সময়ে তাঁদের বুকে বল জোগাবে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে অস্ট্রেলিয়াকে টি-টোয়েন্টিতে হোয়াইটওয়াশ করার অভিজ্ঞতা আর কদিন আগেই অপরাজিত থেকে এশিয়া কাপ জিতে আসার স্মৃতি। এদিন মাঠে নতুন রূপে ধরা দিতে পারেন যুবরাজ। সম্ভাবনা প্রবল। একই কথা সুরেশ রায়নার ক্ষেত্রেও।

এফ/১০:১৫/১৯মার্চ

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে