Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.1/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৩-১৭-২০১৬

রিজার্ভ চুরির তদন্ত টিমের সদস্য ‘নিখোঁজ’

রিজার্ভ চুরির তদন্ত টিমের সদস্য ‘নিখোঁজ’

ঢাকা, ১৭ মার্চ- বাংলাদেশ ব্যাংকের ১০১ মিলিয়ন ডলার রিজার্ভ চুরির বিষয়ে র‌্যাবের ছায়া তদন্ত টিমের সদস্য আইসিটি মন্ত্রণালয়ের তথ্যপ্রযুক্তিবিদ তানভির হাসান জোহাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। নিখোঁজের বিষয়ে অবগত নয় পুলিশের ক্রিমিনাল ইনভেসটিগেশন ডিপার্টমেন্টও (সিআইডি)। জোহা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) মন্ত্রণালয়ের সাইবার নিরাপত্তা বিভাগের ডিরেক্টর (অপারেশন) হিসেবে কর্মরত। যদিও ওই প্রকল্প দু’মাস ধরে স্থগিত রয়েছে।

জোহার পরিবার জানায়, রাজধানীর কচুক্ষেত এলাকা থেকে নিখোঁজ হয়েছেন জোহা। তারা তার সন্ধানে থানায় থানায় ঘুরছেন কিন্তু পুলিশ তাতে গা করছে না।

বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে কথা হলে সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার (অর্গানাইজড ক্রাইম) মির্জা আব্দুল্লাহেল বাকী বাংলামেইলকে বলেন, ‘বিষয়টি আমরা অবগত ছিলাম না। মিডিয়ার মাধ্যমেই জানলাম। তবে এইটুকু বলতে পারি যে, সিআইডি এখনো এ ঘটনায় (বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি) কাউকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেনি।’

তিনি বলেন, ‘সিআইডি এখন শুধু বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাক অফিসের দুর্বলতা এবং কর্মকর্তাদের গতিবিধি নজরদারি করছে। কাউকে যদি সন্দেহভাজন মনে হয় সে ক্ষেত্রে তাকে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।’

সিআইডির এ কর্মকর্তা আরো বলেন, ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের মামলাটি অফিসিয়াল সিস্টেমে আমরা তদন্ত করছি। তবে আন-অফিসিয়ালি র‌্যাব ঘটনাটির ছায়া তদন্ত করছে।  তাছাড়াও বেশ কয়েকটি সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান অর্থ চুরির তদন্তে নেমেছে।

পরে র‌্যাব সদর দপ্তর থেকে গণমাধ্যমে জানানো হয়েছে, তারাও জোহা নিখোঁজের বিষয়ে অবগত নন।

এদিকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপির) গণমাধ্যম শাখার ডিসি মারুফ হোসেন সর্দার বলেন, ‘বাংলাদেশ ব্যাংকের অর্থচুরির মামলাটি সিআইডি তদন্ত করছে।  এখানে আমদের সম্পৃক্ততা খুবই কম।  তাই জোহাকে তুলে আনার প্রশ্নই আসে না।’

জোহার পরিবার অভিযোগ করছে, গতকাল বুধবার অফিস শেষ করে বাসায় ফেরার সময় রাত ১২টার দিকে সর্বশেষ স্ত্রীর সঙ্গে ফোনে কথা হয় জোহার। এর আগে দুইদিনও তিনি বাসায় ফেরেননি।

পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, বুধবার রাতে বাসায় ফেরার সময় জোহার সঙ্গে তার বন্ধু ইয়ামিন আহমেদ ছিলেন। তিনিই ফোন করে জোহার অপহরণের ঘটনা জানান পরিবারকে।  বন্ধু ইয়ামিনের বর্ণনা অনুযায়ী, অফিস থেকে বের হওয়ার পর সিএনজিতে ওঠেন জোহা।  কচুক্ষেত এলাকায় দুই-তিনটি গাড়ি তার সিএনজিকে ঘিরে ধরে তাকে তুলে নিয়ে যায়।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ ব্যাংকের ১০১ মিলিয়ন ডলার চুরির পর প্রায় দেড় মাস বিষয়টি গোপন রাখে বাংলাদেশ ব্যাংক। পরে ফিলিপাইন মিডিয়ায় এ সম্পর্কিত সংবাদ প্রকাশিত হলে তা ছড়িয়ে পড়ে বাংলাদেশ মিডিয়ায়ও।  এ ঘটনায় বেশ বিব্রতকর অবস্থার মুখোমুখি হয় সরকার।  অবশেষে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরকে পদত্যাগ করতে হয়।

দেশের মিডিয়ায় এ বিষয়ে সংবাদ আসার চারদিন পর মতিঝিল থানায় মামলা করে বাংলাদেশ ব্যাংক।  আর সেই মামলার তদন্ত করছে পুলিশের ক্রিমিনাল ইনভেসটিগেশন ডিপার্টমেন্টও (সিআইডি)।

আর/১৭:৪৯/১৭ মার্চ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে