Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৩-১১-২০১৬

মেধাবীরাই সমাজকে নেতৃত্ব দেবে: শিক্ষামন্ত্রী

মেধাবীরাই সমাজকে নেতৃত্ব দেবে: শিক্ষামন্ত্রী

ঢাকা, ১১ মার্চ- বিশ্বায়নের যুগে দেশের উন্নয়নে মেধার বিকল্প নেই মন্তব্য করে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, একবিংশ শতাব্দীতে মেধাবীরাই সমাজকে নেতৃত্ব দেবে।

স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের সুপ্ত প্রতিভা খুঁজতে আগামী ১৫ মার্চ থেকে শুরু হতে যাওয়া এবারের সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ প্রতিযোগিতার বিভিন্ন দিক তুলে ধরতে বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে আয়োজিক এক সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন মন্ত্রী।

নাহিদ বলেন, “বিশ্বায়নের যুগে দেশের উন্নয়নে মেধার বিকল্প নেই। একবিংশ শতাব্দীতে মেধাবীরাই সমাজকে নেতৃত্ব দেবে।

“দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে থাকা মেধাবীদের খুঁজে বের করা, তাদের লালন ও পৃষ্ঠপোষকতায় সরকার বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে।”

শিক্ষামন্ত্রী জানান, এবার সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ প্রতিযোগিতার মাধ্যমে নির্বাচিত দেশসেরা ১২ মেধাবীর হাতে পুরস্কার তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা উপজেলা পর্যায়ে ১৫, ১৬, ১৮ ও ১৯ মার্চ; জেলা পর্যায়ে ২২ মার্চ, ঢাকা মহানগরে ২৩ মার্চ, বিভাগীয় পর্যায়ে ২৪ মার্চ এবং জাতীয় পর্যায়ে ৩১ মার্চ সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ প্রতিযোগিতায় অংশ নেবেন।

ষষ্ঠ থেকে অষ্টম, নবম-দশম এবং উচ্চ মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীরা তিন ভাগে ভাগ হয়ে ভাষা ও সাহিত্য, বিজ্ঞান, গণিত ও কম্পিউটার এবং বাংলাদেশ স্টাডিজ ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে প্রতিযোগিতায় অংশ নেবেন।

প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের নামের তালিকা পাঠানোর জন্য স্কুল-কলেজগুলোকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বেঁধে দেওয়া সময় বৃহস্পতিবার শেষ হয়েছে।

প্রত্যেক উপজেলা থেকে সেরা ১২ জন জেলা পর্যায়ের প্রতিযোগিতায় অংশ নেবে।জেলার বিজয়ীরা বিভাগীয় প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবে।

চূড়ান্ত পর্যায়ে সাত বিভাগ ও ঢাকা মহানগরী থেকে নির্বাচিত ৯৬ জন জাতীয় পর্যায়ে প্রতিযোগিতায় অংশ নেবেন।

সেরা ১২ মেধাবীর প্রত্যেককে সনদ ও এক লাখ টাকা করে পুরস্কার দেওয়া হবে।

এছাড়া উপজেলা পর্যায়ের সেরা ১২ জনের সবাইকে এক হাজার, জেলা পর্যায়ে সেরাদের দেড় হাজার এবং বিভাগীয় পর্যায়ে সেরাদের দুই হাজার টাকা করে পুরস্কার ও সনদ দেওয়া হবে।

মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, একজন শিক্ষার্থী সর্বাধিক তিনটি বিষয়ে অংশ নিতে পারবেন। তবে ২০১৬ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা এতে অংশ নিতে পারবেন না।

২০১৩ সাল থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় দেশব্যাপী সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ প্রতিযোগিতার আয়োজন করছে।

২০১৩ সালের ১২ জন সেরা মেধাবীকে মালয়েশিয়া এবং ২০১৪ সালের সেরা ১২ মেধাবীকে সরকার ব্যাংককে শিক্ষা সফরে পঠিয়েছিল বলেও জানান নাহিদ।

শিক্ষা সচিব সোহরাব হোসাইন, মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এ এস মাহমুদ ছাড়াও মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর এবং ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

আর/০১:০৯/১১ মার্চ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে