Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 5.0/5 (1 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৩-১০-২০১৬

পাকিস্তানকে কলকাতায়ও খেলতে না দেয়ার হুমকি!

পাকিস্তানকে কলকাতায়ও খেলতে না দেয়ার হুমকি!

কলকাতা, ১০ মার্চ- পাকিস্তান পড়েছে মহা এক ঝামেলায়। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলা তাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু ভারতীয়রা যেভাবে তাদের হুমকি দিচ্ছে তাতে তাদের চিন্তার অন্ত থাকছে না। ধর্মশালার পর এবার কলকাতায় খেলা নিয়েও শঙ্কা দেখা দিয়েছে। অ্যান্টি-টেররিস্ট ফ্রন্ট অব ইন্ডিয়া (এটিএফআই) শুরু থেকেই ভারতের মাটিতে পাকিস্তানের খেলার বিরুদ্ধে। গতকাল তারা হুমকি দিয়েছে, ইডেনেও ম্যাচটি হতে দেওয়া হবে না। দরকার হলে ইডেনের পিচ খুঁড়ে খেলার জন্য অনুপযুক্ত করে ফেলা হবে।

ধর্মশালার বেশিরভাগ যুবক সীমান্তরক্ষী বাহিনীতে চাকরি করে। সম্প্রতি পাকিস্তানি জঙ্গিদের সঙ্গে তাদের যুদ্ধ হয়েছে। তাতে অনেকের প্রাণ গেছে। এই ঘটনার পর স্থানীয় রাজনৈতিক নেতারা ঘোষণা দেয়, পাকিস্তানকে তাদের মাটিতে খেলতে দেয়া হবে না। এমনকি স্থানীয় প্রশাসনও স্পষ্ট জানিয়ে দেয়, পাকিস্তানিদের নিরাপত্তা দিতে পারবে না তারা।

পাকিস্তান বাদে অন্য কোনো দেশ হলে খেলতে আসত না- একথা হলফ করে বলা যায়। কিন্তু এরপরও পাকিস্তান অনুরোধ করে অন্য কোথাও ম্যাচ আয়োজনের। সেই সুবাদে ইডেনে ম্যাচ আয়োজনের প্রস্তুতি নেয়ার কথা জানানো হয়। কিন্তু সেখান থেকেও একই ধরনের হুমকি এল।

১৬ মার্চ কলকাতাতেই পাকিস্তানের প্রথম ম্যাচ। এখনো শহীদ আফ্রিদির দল পাকিস্তান থেকে উড়াল দেয়নি। দেশটির সরকার এখনো খেলোয়াড়দের নিরাপত্তার কথা ভাবছে।

এটিএফআইয়ের জাতীয় সভাপতি বীরেশ সানদিল্য সংবাদ সংস্থা আইএএনএসকে বলেছেন, ‘পাকিস্তানকে ভারতের মাটিতে আতিথ্য দেওয়ার মানে হলো সাম্প্রতিক আক্রমণে আমাদের যে বীর যোদ্ধারা শহীদ হয়েছে, তাদের স্মৃতির প্রতি চূড়ান্ত অপমান। যেকোনো মূল্যে এই ম্যাচটি আমরা হতে দেব না, ইডেনের পিচ আমরা খুঁড়ে ফেলব। বড় ধরনের প্রতিবাদ সমাবেশ হবে।’

তার প্রশ্ন, ‘ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড কীভাবে আমাদের শহীদদের বিধবা স্ত্রীদের চোখের জলকে এভাবে অবজ্ঞা করে! পুরো কলকাতায় আমরা প্রতিবাদ সমাবেশ করব, বিমানবন্দরেও।’

আর/১৭:৫৯/১০ মার্চ

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে