Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৩-০৭-২০১৬

ভালোবাসার সম্পর্কটি 'এবিউসিভ' নয় তো?

ভালোবাসার সম্পর্কটি 'এবিউসিভ' নয় তো?

আবেগ আমাদের ভালোবাসার সম্পর্কগুলোকে বেঁধে রাখে আত্মার বন্ধনে। প্রিয় মানুষটিকে আবেগাপ্লুত হয়ে বার বার বলতে ইচ্ছা হয়, ‘ভালোবাসি’। কিন্তু অনেক সময় আবেগের প্রকাশকে নিয়ন্ত্রণ কঠিন হয়ে দাঁড়ায়। ভীষণ ভালোবাসা, শ্রদ্ধা নিয়ে শুরু হওয়া একটা সম্পর্ক ধীরে ধীরে রূপ নিতে পারে অপমান, অবমাননাকর সম্পর্কে। নেতৃত্ব এবং সাংগঠনিক মনোবিজ্ঞানের অধ্যাপক, মনোবিজ্ঞানী রোনাল্ড ই. রিজ্ঞিয় এর ভাষ্যমতে, ৫ টি মাপকাঠিতে বুঝে নিন, ভালোবাসার সম্পর্কটি আপনার জন্য অবমাননাকর কিনা!

১। কাঁটার উপরে হাটছেন আপনি
সঙ্গীকে মর্মাহত করে ফেলতে পারেন এই ভয়ে আপনাকে সারাক্ষণ সতর্ক থাকতে হয় কি? আপনি হয়ত সবসময়ই ভাবছেন, কখন কোন কাজে আবার না তার মনমেজাজ বিগড়ে যায়! অবমাননাকর সম্পর্কে আপনি কী করছেন তা আসলে কোন বিষয় নয়। আপনি হয়ত কোন ত্রুটিই রাখছেন না, তবু আপনি আপনার সঙ্গীর রোষানলে পড়তে পারেন।

২। আপনার সঙ্গী মতামত প্রকাশ করতে পারেন, কিন্তু আপনি পারেন না
অবমাননাকর সম্পর্কগুলো ভারসাম্যহীন হয়। আপনার সঙ্গী হয়ত সহজেই বলছে তার পছন্দ, অপছন্দ। কিন্তু আপনি কোন ব্যাপারে সামান্যতম নেতিবাচক মনোভাব প্রকাশ করলে সে সেটা নিতে পারছে না। তখন সে আপনার বিভিন্নরকম সমালোচনা করছে, মানসিক চাপে পড়ে যাচ্ছেন আপনি। শ্রদ্ধার সম্পর্কে পরস্পরের মতামতের গুরুত্ব থাকা খুবই জরুরী।

৩। আপনার সঙ্গী আপনাকে অবিশ্বাস করেন
প্রায়ই, অবমাননাকর সম্পর্কে ব্যক্তির স্বতঃস্ফূর্ততা নষ্ট হয়ে যায়। যা ধীরে ধীরে সম্পর্কে আনে অবিশ্বাস। তখন আপনার আবেগের প্রকাশগুলোর ভুল মানে বের করতে থাকে আপনার সঙ্গীটি। আপনার নিরানন্দ আচরণে সে দুঃখবোধ করে কিন্তু অর্থ বুঝতে পারে না। তাই আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে।

৪। সম্পর্কের সমস্যাগুলো নিয়ে আলোচনা করা যায় না
আপনি হয়ত অনেকবারই আপনাদের মাঝের দূরত্ব মিটিয়ে ফেলতে চেয়েছেন। কথা বলতে চেয়েছেন সমস্যাগুলো নিয়ে। কিন্তু আপনার সঙ্গীটি যে কোন সমালোচনাকেই ভুল ব্যাখ্যা করছেন, আলোচনা এড়িয়ে যেতে চাইছেন। তখন আপনিও তার মন রাখতে আলোচনা এড়িয়ে যাচ্ছেন। সম্পর্কের এই পরিবেশ আপনার জন্য অবমাননাকর।

৫। আপনি সবসময় বিভ্রান্ত থাকেন এবং ফাঁদে বন্দী বোধ করেন
আপনি যখন অবমাননাকর সম্পর্কের শিকার তখন সবসময়ই প্রিয় মানুষটির আচরণ আপনাকে বিভ্রান্ত রাখে। আপনি বুঝতে পারেন না, কোন আচরণ করা ঠিক হবে আর কোনটি ঠিক হবে না। আপনি এই সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে যেতে চাইলেও আপনার সঙ্গীর ফাঁদে আটকে যান। তিনি গভীর আবেগের সাথে আপনাকে বলেন, ‘আমার তোমাকে প্রয়োজন’ বা বলে ‘তুমি আমাকে একা ছেড়ে যেও না’। খেয়াল করুন, এখানেও সে নিজের কথাই বলছে। আপনার চিন্তা করছে না। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে প্রায়ই আমরা অসহায় বোধ করি এবং সংগীর কথা মেনে নিই।

কী করবেন?
দুইটি উপায় আছে। এক, আপনি কাউন্সেলিং এর সাহায্য নিতে পারেন। আপনার সঙ্গীসহ বা আপনি একাও যেতে পারেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞের কাছে। দুই, যে সম্পর্কে শ্রদ্ধা নেই, যে সম্পর্ক প্রতি মূহুর্তে আপনাকে অপমান করছে বেরিয়ে আসুন সেই সম্পর্ক থেকে। মানসিক বা শারীরিক কোন প্রকার অবমাননাই সহ্য করা উচিত নয়। নিজেকে ভালবাসুন, মুক্ত পৃথিবীর দিকে পা বাড়ান, ভাল থাকুন।

লিখেছেন- আফসানা সুমী

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে