Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.6/5 (8 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৩-০৫-২০১৬

খুলনায় চিকিৎসক ধর্মঘটে ভোগান্তিতে রোগীরা

খুলনায় চিকিৎসক ধর্মঘটে ভোগান্তিতে রোগীরা
ছবি : সাদ্দাম হোসেন এর সৌজন্যে।

খুলনা, ০৫ মার্চ- বেলা সাড়ে ১১টা। খুলনা শিশু হাসপাতালের বহির্বিভাগের সামনের চেয়ারে ১৮ মাসের ছেলেকে বুকের সঙ্গে আঁকড়ে ধরে বসে আছেন মো. মিজান। কোলের মধ্যেই বড় বড় করে শ্বাস নিচ্ছে শিশুটি। কিছুক্ষণ পর পর উঠে ছেলেকে নিয়ে হেঁটে এসে আবার বসছেন মিজান। আবার কিছুক্ষণের জন্য পাশে থাকা স্ত্রীর কাছে ছেলেকে দিচ্ছেন। হতাশার ছাপ মিজানের চোখেমুখে। ছেলেকে নিয়ে কী করবেন, বুঝতে পারছেন না।

ওই অবস্থায় সঙ্গে কথা হয় মিজানের। তিনি জানান, ছেলের নিউমোনিয়া হয়েছে। তাই পিরোজপুরের চিকিৎসকেরা খুলনা শিশু হাসপাতালের চিকিৎসকদের দেখাতে বলেছেন। কিন্তু এসে দেখেন হাসপাতালের বহির্বিভাগ বন্ধ। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, চিকিৎসকদের ধর্মঘট চলছে তাই বহির্বিভাগে চিকিৎসা হবে না। যদি চিকিৎসা করাতে হয় তাহলে রোগী ভর্তি করাতে হবে। কিন্তু বাড়ি থেকে অর্থ ও প্রয়োজনীয় কাপড়চোপড় না নিয়ে আসায় এখন কী করবেন বুঝতে পারছেন না।

খুলনা শিশু হাসপাতালের বহির্বিভাগের সামনে এভাবেই দেখা গেল উদ্বিগ্ন আরও কয়েকজন অভিভাবককে। তাঁদের কোলে ছয় মাস থেকে দুই বছরের শিশু। সন্তানের আরোগ্যের আশায় ছুটে এসেছেন দূর-দূরান্ত থেকে। কিন্তু বহির্বিভাগে চিকিৎসাসেবা বন্ধ থাকায় হতাশ তাঁরা।

শুধু খুলনা শিশু হাসপাতাল নয়, আজ এমন চিত্র দেখা গেছে খুলনা নগরে অবস্থিত অধিকাংশ হাসপাতালে। বহির্বিভাগ বন্ধ থাকায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও খুলনা জেনারেল (সদর) হাসপাতাল থেকে ফিরে গেছে অনেক রোগী। তবে অন্তঃবিভাগে (ইনডোরে) চিকিৎসা অব্যাহত আছে বলে দাবি হাসপাতালগুলোর কর্তৃপক্ষের। কিন্তু হাসপাতালে ভর্তি থাকা কয়েকজন রোগীর অভিযোগ, সকাল থেকে কোনো চিকিৎসকই দেখতে আসেননি। 
আর বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিক ঘুরে দেখা গেছে, সেখানে চিকিৎসাসেবা বন্ধ থাকলেও চলছে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষার কাজ।

খুলনার তেরখাদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসারকে মারধরের প্রতিবাদে ও আসামিদের অবিলম্বে গ্রেপ্তারের দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মতো ধর্মঘট পালন করেছেন চিকিৎসকেরা। এর আগে গত বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে জেলার সব সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল এবং ক্লিনিকে ২৪ ঘণ্টার ধর্মঘট পালন করা হয়। আসামিদের গ্রেপ্তার না করা পর্যন্ত এ ধর্মঘট অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ)। বিএমএ খুলনা শাখা, প্রাইভেট মেডিকেল প্রাকটিশনার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিপিএমপিএ) ও প্রাইভেট ক্লিনিক অ্যান্ড ডায়াগনস্টিক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিপিসিডিওএ) একযোগে এ ধর্মঘট কর্মসূচি পালন করছে।

এদিকে আসামিদের গ্রেপ্তার ও চিকিৎসকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছেন চিকিৎসকেরা। আজ দুপুর ১২টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত খুলনা বিএমএ চত্বরে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিএমএর নেতৃবৃন্দ ছাড়াও বিভিন্ন স্তরের চিকিৎসকেরা অংশগ্রহণ করেন। আগামীকাল রোববার নগরের শিববাড়ী থেকে বিএমএ চত্বর পর্যন্ত তাঁরা পদযাত্রা কর্মসূচি পালন করবেন। 

সমাবেশ শেষে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) খুলনা জেলা সভাপতি শেখ বাহারুল আলম বলেন, ‘চিকিৎসককে মারধরের ১১২ ঘণ্টারও বেশি সময় পার হয়ে গেলেও এখনো পর্যন্ত কোনো আসামিকে গ্রেপ্তার করছে না পুলিশ। যতক্ষণ পর্যন্ত আসামিদের গ্রেপ্তার না করা হবে, ততক্ষণ পর্যন্ত আমাদের এ চিকিৎসক ধর্মঘট অব্যাহত থাকবে। এমন একজন সন্ত্রাসীকে যদি রাষ্ট্র বিচারের মুখোমুখি না করতে পারে, তাহলে রাষ্ট্রের পক্ষ হয়ে চিকিৎসক বা স্বাস্থ্যকর্মীরা কীভাবে সেবা দেবেন?’

ধর্মঘটে রোগীদের ভোগান্তির কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘চিকিৎসকদের ধর্মঘট আসলেই খুব অন্যায় ও অমানবিক। কিন্তু সেই অন্যায় করতে বাধ্য করছে রাষ্ট্র ও রাষ্ট্রের শাসন ব্যবস্থা। কারণ রাষ্ট্র হাসপাতাল করেছে তার নাগরিকদের চিকিৎসা দেওয়ার জন্য। সেখানে রাষ্ট্র নিয়োগ দিয়েছে চিকিৎসকদের। চিকিৎসকেরা রাষ্ট্রের পক্ষে রোগীদের সেবা দিচ্ছেন। কিন্তু রাষ্ট্র যদি তাঁদের নিরাপত্তা না দেয় শুধু সেবা করায়, তাহলে কী সেবা দেওয়া হবে?’

গত ২৮ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ৮টার দিকে তেরখাদা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত অবস্থায় মেডিকেল অফিসার শেখ আবদুল্লাহ আল মামুনকে পিটিয়ে আহত করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান এসএম অহিদুজ্জামান। এ ঘটনায় চেয়ারম্যানকে প্রধান আসামি ও পাঁচজনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও কয়েকজনের নামে ওই রাতেই মামলা করেন আবদুল্লাহ আল-মামুন। পুলিশ অভিযুক্ত এক আসামিকে গ্রেপ্তার করলেও প্রধান আসামিরা এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে।

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে