Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.3/5 (4 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৩-০৩-২০১৬

ট্রাম্পকে সমর্থন দেয়ায় বিপাকে গভর্নর ক্রিস্টি

আরাফাত পারভেজ


ট্রাম্পকে সমর্থন দেয়ায় বিপাকে গভর্নর ক্রিস্টি

নিউজার্সি, ০৩ মার্চ- নিউজার্সি গভর্নর ক্রিস ক্রিস্টি এতদিন রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট মনোনয়ন প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরোধিতা করে এসেছেন। তিনি বলেছিলেন, ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হওয়ার যোগ্যতা রাখেনা। কিন্তু কয়েকদিন আগে তিনি হঠাৎ সুর পাল্টে ফেলেছেন। আর ঠিক এই কারণেই বিপাকে পড়েছেন তিনি।

ট্রাম্প এখন রিপাবলিকানদের এক নম্বর প্রার্থী। তিনি জয় লাভ করতে শুরু করায় গভর্নর ক্রিস্টি হঠাৎ তার আগের অবস্থান বদলে ট্রাম্পকে সমর্থন দেয়া শুরু করেছেন। প্রকাশ্যে হাজির হতে শুরু করেছেন ট্রাম্প প্রচারণায়। এই হাওয়া বদলের খেসারত দিতে হচ্ছে তাকে। নিউ জার্সির ৬টি পত্রিকা একসাথে ক্রিস্টির পদত্যাগ দাবি করেছে।    

ট্রাম্পের দলে ক্রিস্টির নাম লেখানোয় রাজনৈতিক অঙ্গনে বিস্ময়ের সৃষ্টি হয়েছিল। ট্রাম্প অনেক আক্রমণাত্মক কথা বলে ঠিকই কিন্তু সে তার অবস্থানে ঠিক আছে। আক্রমণাত্মক এবং ঘৃণামূলক কথা তিনি অবলীলায় বলেন, কিন্তু সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে সেটা তিনি মনে প্রানে বিশ্বাস করেন। এখন পর্যন্ত ট্রাম্পের জয়ের পেছনের সবচেয়ে বড় কারণ এটাই। মানুষ সরাসরি কথা বলা পছন্দ করে।

রাজনীতিবিদরা খুব সহজেই হাওয়া বদল করে ফেলেন, যেটা জনগণ মোটেই পছন্দ করে না। ক্রিস্টি ঠিক এই ভুলটাই করেছেন। এতে করে এতদিন যারা ক্রিস্টিকে সমর্থন দিয়ে আসছিল তারা পিছিয়ে গেছেন এবং জরিপে তার জনসমর্থন কমে গেছে হুট করে।

মার্চের ১ তারিখে হয়ে যাওয়া সুপার টুয়েসডে ভোটে ট্রাম্প বাকি রিপাবলিকান প্রার্থীদের পেছনে ফেলেছেন বড় ব্যবধানে। ৭টি অঙ্গরাজ্যে জয় পেয়েছেন তিনি। কিন্তু এতদিন ধরে যে লোক ট্রাম্পের কথাবার্তা এবং কার্যক্রমকে নিয়ে মশকরা করেছেন, তিনি হঠাৎ এখন কেন জায়গা বদল করছেন সেটা বুঝতে খুব একটা অসুবিধা হয় না। ক্রিস্টি এখন কামনা করছেন যে, নির্বাচনে জয় লাভ করলে ট্রাম্প হয়তো তাকে ভাইস প্রেসিডেন্টের পদটা প্রস্তাব করবেন।

ক্রিস ক্রিস্টি যে আসলে ক্ষমতালোভী এবং নীতিহীন একজন মানুষ সেটা সবার কাছে জলের মত প্রমাণিত হয়ে গেছে তার এই আকস্মিক ট্রাম্প সমর্থনে। যে কারণে নিউ জার্সির ৬টি প্রভাবশালী পত্রিকা একযোগে লিখেছে, ‘আমরা তার সুবিধাবাদী আচরণে হতাশ, আমরা তার ভণ্ডামিতে হতাশ।’।

এই পত্রিকাগুলোর মধ্যে রয়েছে অশবারি পার্ক প্রেস, দ্যা চেরি হিল কুরিয়ার পোস্ট এবং মরিসটন ডেইলি রেকর্ড। একটি যৌথ বিবৃতিতে তারা ক্রিস ক্রিস্টির পদত্যাগ দাবি করে। তারা বলেছে, ‘ক্রিস্টি দীর্ঘদিন ধরে ট্রাম্পের বিরোধিতা করার পর এখন আবার তার সাথেই যোগ দেয়ায় আমরা তার প্রতি বিতৃষ্ণ।’

গভর্নর ক্রিস ক্রিস্টি প্রেসিডেন্ট দৌড়ে হেরে গিয়েছিলেন প্রত্যাশার অনেক আগেই। গত ফেব্রুয়ারির ১০ তারিখে তিনি দৌড় থেকে সরে দাঁড়ান। ফলে রাজনৈতিক স্পটলাইট থেকেও দূরে সরে গিয়েছিলেন। কিন্তু ঠিক কি করবেন সেটা বুঝে উঠতে পারছিলেন না। শেষে বাধ্য হয়ে ফেব্রুয়ারির ২৬ তারিখে যোগ দিলেন এমন একজনের সাথে, যেটা প্রমাণ করলো গভর্নরের নীতিবোধ বলে কিছু নেই।

তিনি মনে করেছিলেন ট্রাম্পের সাথে যোগ দিলে আবার তিনি আলোচনায় ফিরে আসবেন। তার ধারণা সার্থক হয়েছে। কিন্তু সেটা তিনি যেভাবে পরিকল্পনা করেছিলেন সেভাবে হয় নি। গোটা যুক্তরাষ্ট্র এখন তার দুর্বলতা এবং ভণ্ডামির সমালোচনায় মুখর। তার সমর্থকদের সংখ্যা ৩৩ শতাংশ থেকে কমে দাঁড়িয়েছে ২৭ শতাংশে। সমর্থকদের কথা বাদ দিলেও তিনি সবার কাছে হয়ে দাঁড়িয়েছেন রাজনীতিবিদের ভণ্ডামির আদর্শ একটি উদাহরণ।

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে