Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০২-২৯-২০১৬

পাকিস্তানের সামনে অচেনা আরব আমিরাত

পাকিস্তানের সামনে অচেনা আরব আমিরাত

ঢাকা, ২৯ ফেব্রুয়ারী- চির প্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের কাছে বাজেভাবে হার দিয়ে এশিয়া কাপ শুরু করেছে শহীদ আফ্রিদির পাকিস্তান। তাই আফ্রিদি বাহিনীর সোমবারের ম্যাচ এশিয়া কাপে টিকে থাকার লড়াই। এদিন নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আফ্রিদিরা টুর্নামেন্টের সবচেয়ে দুর্বল দল সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে মাঠে নামবে। এই ম্যাচ জিতলে পাকিস্তানের শিরোপা লড়াইয়ের আশা টিকে থাকবে। টি২০ ক্রিকেটে এই দল দুটো এখনো একে অপরের বিপক্ষে খেলেনি। ফলে একে অপরের কাছে দুটি দলই অচেনা। সোমবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শুরু হবে ম্যাচটি।  ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে গাজী টিভি ও বিটিভি।

আরব আমিরাত ছোট প্রতিপক্ষ হলেও শ্রীলংকা ও বাংলাদেশের বিপক্ষে তারা ভালো বোলিং নৈপূণ্য দেখিয়েছে। মিরপুরের উইকেটে অন্যান্য পেসারদের মতো আমিরাতের পেসাররাও ভালো করেছে। এছাড়া তাদের কিছু ভালো মানের ব্যাটসম্যানও রয়েছে। তারা উইকেটে টিকতে পারলে আফ্রিদি বাহিনীর জন্য খারাপ সংবাদই হতে পারে। তবে প্রতিপক্ষ আমিরাতের সঙ্গে পাকিস্তান দলের পরিচিতি অনেক আগে।

এমনকি আমিরাতের অনেক ক্রিকেটারই আছেন পাকিস্তান বংশোদ্ভূত। আফ্রিদির দলের অনেকের সঙ্গেই আমিরাতের ক্রিকেটারদের সখ্যতা রয়েছে। তাছাড়া গত ৭-৮ বছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পাকিস্তানের হোম ভেন্যু হিসেবেই ব্যবহার হচ্ছে সংযুক্ত আমিরাত। তাই ম্যাচটা আপন গন্ডির মধ্যে দুদলের লড়াই বললেও ভুল হবে না। তবে পাকিস্তান-আরব আমিরাতে লড়াইয়ে আফ্রিদির দলকেই বেশি এগিয়ে রাখছে। টি২০তে এই প্রথম দেখা হলেও দল দুটি আগে তিন ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছে। যার সবকটিই জিতেছে পাকিস্তান।

শনিবার মিরপুরের সবুজ উইকেট পেয়ে দারুণ সব ডেলিভারি দিয়েছেন মোহাম্মদ আমির। তার প্রত্যেকটা বলই যেন ভারতের বিপক্ষে একেকটি উইকেট নেয়ার ইঙ্গিত দিচ্ছিল। নিজের প্রথম দুই ওভারে তিন উইকেট নিয়ে ৮৩ রান করার পরও পাকিস্তানকে জয়ের স্বপ্ন দেখাচ্ছিলেন এই বাঁহাতি পেসার। ম্যাচ শেষে ধোনিও আমিরের বোলিংয়ে ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

তবে দলের অন্যান্য পেসারদের নিয়ে বেশি আলোচনা হলেও তারা তেমন কিছু করতে পারেননি। পাকিস্তানের ভয় দুর্বল ব্যাটিং লাইনআপ নিয়ে। ভারতের বিপক্ষে তাদের মাত্র দুই ব্যাটসম্যান দুই অংকের ঘরে পৌছাতে পেরেছেন। বাকিরা পেস, স্পিন কোনোটাই খেলতে পারেননি। আর তাই সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষেও ম্যাচটা সহজভাবে দেখতে পারছেন না পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক।

রোববার মিরপুরে দলের অনুশীলন শেষে এ প্রসঙ্গে শোয়েব মালিক বলেন, ‘এই টুর্নামেন্টে সব ম্যাচই গুরুত্বপূর্ণ। এখানে কাউকে ছোট করে দেখার উপায় নেই। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে দুটি দলই চাপে ছিল। আমরা বেশ কিছু ভুল করেছি। তবে আরব আমিরাতের বিপক্ষে ভালো ম্যাচ হবে বলেই আশা করছি।’

তবে সোমবারের ম্যাচে আমিরাতের বিপক্ষে হেরে গেলে ফাইনালে ওঠা কঠিন হয়ে যাবে শহীদ আফ্রিদির দলের জন্য। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশ ও শ্রীলংকার বিপক্ষে জিতলেও সম্ভাবনা থাকবে খুবই কম।

অপরদিকে বাছাই পর্ব পেরিয়ে আসা আমিরাতের অভিজ্ঞতা এখন পর্যন্ত খুব ভালো নয়। টানা দুই ম্যাচে শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের কাছে হেরেছে তারা। মূল পর্বে দলটির মূল চিন্তার কারণ আমিরাতের ভঙ্গুর ব্যাটিং লাইনআপ। এশিয়ার টেস্ট খেলুড়ে দেশগুলোর শক্তিশালী বোলিং আক্রমণ সামলাতে পারছে না আমিরাতের অনভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানরা।

তবে বল হাতে আশা জাগানিয়া পারফরম্যান্স দেখিয়েছে আমিরাত। শ্রীলঙ্কাকে ১২৯, বাংলাদেশকে ১৩৩ রানের বেশি যেতে দেয়নি আমজাদ জাভেদের দল। পাকিস্তানের বিরুদ্ধেও বোলিংয়ের সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চাইবে তারা।

তবে ব্যাটিংয়ে জেগে উঠাই মূল চ্যালেঞ্জ আরব আমিরাতের জন্য। সোমবার সেই কাজ কঠিন থেকে কঠিনতর হয়ে উঠবে পাকিস্তানের দুর্দান্ত বোলিং আক্রমণের বিপক্ষে। ব্যাটিংয়ে ভালো প্রতিরোধ গড়তে পারলে পাকিস্তানের জন্য হুমকিও হতে পারে আমজাদ জাভেদের দল।

এখন দেখায় বিষয়, পাকিস্তানের বিপক্ষে গ্রুপ পর্বে চমক দেখিয়ে আরব আমিরাত কি আরেকটি চমক দেখাতে পারবে। নাকি সহজ জয় দিয়ে এশিয়া কাপের লড়াইয়ে টিকে থাকবে আফ্রিদি-মালিকরা।

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে