Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০২-২৭-২০১৬

২৫১ টাকার ফোন নির্মাতার বিরুদ্ধে উঠল আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ

২৫১ টাকার ফোন নির্মাতার বিরুদ্ধে উঠল আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ

নয়াদিল্লি, ২৭ ফেব্রুয়ারী- ফের বিতর্কে ২৫১ টাকার স্মার্ট ফোন নির্মাতা রিংগিং বেলস। যে কল সেন্টার কাস্টমার সার্ভিস দিচ্ছিল রিংগিং বেলস-এর হয়ে, তারা প্রতারণার অভিযোগ করেছে। সাইফিউচার নামে ওই কল সেন্টারের দাবি, পরিষেবা নিয়ে টাকা মেটায়নি রিংগিং বেলস। টাকা চাইতেই কাস্টমার সার্ভিস দেওয়ার বরাত বাতিল করে দেওয়া হয়েছে বলেও অভিযোগ। রিংগিং বেলস-এর তরফে অবশ্য সে অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। সংস্থার শীর্ষ কর্তারা জানিয়েছেন, ফ্রিডম ২৫১ ফোন বুক করার জন্য যাঁরা ফোন করছিলেন, সাইফরচুন তাঁদের ঠিক মতো পরিষেবা দিতে পারেনি।

বাজারে এসেই সব দিক দিয়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ফ্রিডম ২৫১ তথা রিংগিং বেলস। মাত্র আড়াইশো টাকায় স্মার্ট ফোন দেওয়ার কথা ঘোষণা করে প্রথমেই হইচই ফেলে দিয়েছিল সংস্থাটি। বুকিং শুরু হওয়ার মাত্র কয়েক দিনের মধ্যে বিপুল সংখ্যক ক্রেতার চাপে পুরো বুকিং ব্যবস্থাই বসে গিয়েছিল। হইচই শুরু হয় তা নিয়েও। কী ভাবে মাত্র আড়াইশো টাকায় স্মার্ট ফোন দেওয়া সম্ভব হবে, তা নিয়েও ধোঁয়াশা তৈরি হয়। রিংগিং বেলস জানিয়েছিল, কর ছাড়ের কারণে কম দামে ফোন দিতে পারবে তারা। কিন্তু পরে জানা যায়, সরকার কোনও কর ছাড়ের কথা ঘোষণা করেনি।

এমন নানা বিতর্ক এবং ধোঁয়াশা সত্ত্বেও ফোন বুকিং চলেছে। কিন্তু তার মধ্যেই আরও একটি নতুন বিতর্কে জড়িয়ে পড়ল রিংগিং বেলস। সরাসরি প্রতারণার অভিযোগ উঠল সংস্থাটির বিরুদ্ধে। সাইফিউচার নামে একটি বিপিও-কে কাস্টমার সার্ভিসের বরাত দিয়েছিল রিংগি বেলস। ফ্রিডম ২৫১ কিনতে ইচ্ছুক যাঁরা, তাঁদের ফোন রিসিভ করে অর্ডার নেওয়ার দায়িত্ব ছিল ওই কল সেন্টারের উপর। কল সেন্টারটির কর্তা অনুজ বইরাঠির অভিযোগ, ‘‘আমরা প্রথম থেকেই রিংগিং বেলস-এর কার্যকলাপ নিয়ে সন্দেহে ছিলাম। ওঁরা বলেন, শাসক দলের অনেক বড় বড় নেতা ওঁদের সঙ্গে রয়েছেন। ফ্রিডম ২৫১ লঞ্চিং-এর অনুষ্ঠানে তাঁদের উপস্থিতির ছবিও দেখান। তার পর আমরা ওদের কাস্টমার সার্ভিসের দায়িত্ব নিতে রাজি হই।’’ বইরাঠির আরও দাবি, ‘‘প্রতিদিন আমাদের কল সেন্টারের কর্মীরা লক্ষ লক্ষ ফোন রিসিভ করছিলেন এবং ফ্রিডম ২৫১-এর অর্ডার বুক করছিলেন। রিংগিং বেলস আমাদের দেওয়া পরিষেবা নিয়ে খুশিও ছিলেন। প্রতি সপ্তাহের ওরা আমাদের টাকা দেবে বলে ঠিক হয়েছিল। এক সপ্তাহ পার হওয়ার পর আমরা টাকা চাইতেই, রিংগিং বেলস আমাদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করা শুরু করল। বলল, পরিষেবা ঠিক মতো হয়নি। তাই বরাত বাতিল। আমাদের বকেয়া টাকাও ওরা মেটায়নি।’’

রিংগিং বেলস কিন্তু সাইফিউচারের তোলা অভিযোগ সম্পূর্ণ উড়িয়ে দিয়েছে। সংস্থার প্রেসিডেন্ট অশোক চাড্ডা বলেছেন, ‘‘ফ্রিডম ২৫১ বুক করার জন্য প্রতি ঘণ্টায় ১২ লক্ষ করে ফোন কল আসছিল। এত ফোন কল সাইফিউচার কর্মীরা রিসিভ করতে পারছিলেন না। অনেকেই সরাসরি আমাদের ফোন করে অভিযোগ জানিয়েছেন। তাই আমরা ওই বিপিও-কে দেওয়া বরাত বাতিল করেছি।’’

অশোক চাড্ডা যা-ই বলুন, পিছু হঠতে রাজি নয় সাইফিউচার। অনুজ বইরাঠি জানিয়েছেন, সাইফিউচার আইনজীবীদের পরামর্শ নিচ্ছে। ন্যূনতম এক বছরের জন্য চুক্তি করেছিল রিংগিং বেলস। তাদের বিপুল সংখ্যক ফোন কল সামলানোর জন্য কল সেন্টারে ১০০ জন অতিরিক্ত কর্মী নিয়োগ করা হয়। কিন্তু রিংগিং বেলস চুক্তির শর্ত না মেনে বরাত বাতিল করেছে। তাদের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ দায়ের করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দক্ষিণ এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে