Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০২-২৬-২০১৬

অপারেটরদের ফের সতর্ক করলো বিটিআরসি

অপারেটরদের ফের সতর্ক করলো বিটিআরসি

ঢাকা, ২৬ ফেব্রুয়ারী- বায়োমেট্রিক বা আঙুলের ছাপের মাধ্যমে মোবাইল সিম  নিবন্ধন ও পুনঃ নিবন্ধনে গ্রাহক হয়রানি বন্ধে আবারও নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।  ২৩ ফেব্রুয়ারি দেশের মোবাইল অপারেটরদের কাছে ৬টি নির্দেশনা সম্বলিত একটি চিঠি পাঠিয়েছে কমিশন।

বিটিআরসির মহাপরিচালক (সিস্টেম এন্ড সার্ভিস) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এমদাদ উল বারী স্বাক্ষরিত এ নির্দেশনা পত্রে বলা হয়েছে, বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে গ্রাহক পরিচিতি যাচাই কার্যক্রমে কিছু অভিযোগ এসেছে। এগুলো হলো রিটেইলাররা পরিচিতি যাচাইয়ের সময় বিভিন্ন অংকের চার্জ নিচ্ছে, পুনঃ নিবন্ধনে শৈথিল্য হচ্ছে।

পত্রে বলা হয়, অপরেটরদের  যেকোনো উপায়েই বিনামূল্যে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধন নিশ্চিত করতেই হবে। অনিবন্ধিত সিমের মাধ্যমে সংগঠিত সন্ত্রাসী কার্যক্রম রোধে গত বছর ১৬ ডিসেম্বর থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধন ও পুনঃনিবিন্ধন শুরু হয়। শুরু থেকেই এ কার্যক্রম নিয়ে নানা অভিযোগ ছিল। এমনকি ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমের  ফেইসবুক পেইজে সিম নিবন্ধনে গ্রাহকের কাছ থেকে টাকা নেওয়া হচ্ছে এমন অভিযোগ আসে। 

এর প্রেক্ষিতে এ বছরেরর শুরুতে ২৮ জানুয়ারি মোবাইল অপারেটরদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রতিনিধিদের সঙ্গে এক বৈঠকে গ্রাহকের কাছ থেকে অর্থ নিয়ে নিবন্ধন কার্যক্রম চালানো যাবে না। এমন অভিযোগ পেলে অভিযুক্ত রিটেইলারের অনুমোদন বাতিল করার নির্দেশ দেন তিনি। এরপর অভিযোগের বিষয়টি সরেজমিনে খতিয়ে দেখতে গত ১০ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর মিরপুর এলাকার বিভিন্ন মার্কেটে অভিযান চালান তারানা হালিম। 

সে সময় তিনি বলেন, ‘গ্রাহক হয়রানি রোধে মাঠ পর্যায়ে  বিটিআরসি মোবাইল টিম কাজ করবে। এর পরদিন (১১ ফেব্রুয়ারি) এক সংবাদ সম্মেলনে টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী বলেন,  গ্রাহক হয়রানি রোধে প্রয়োজনে অপারেটরদের জরিমানার বিধান রাখা হবে।

এরপরও পুনঃনিবন্ধনে অর্ধ নেওয়াসহ নানা অভিযোগ আসায় বিটিআরসি এ নির্দেশনা দিলো।

অন্যান্য নির্দেশনার মধ্যে রয়েছে, রিটেইলার পর্যায়ে এক অপারেটর অপর অপারেটরের ডিভাইস শেয়ার করবে, বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে পরিচিতি যাচাইয়ে অনলাইনে সংগৃহীত তথ্য যেনো রিটেইলার পর্যায়ে সংরক্ষণ না হয় তা নিশ্চিত করতে হবে ।

এতে বলা হয়,  জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) আবেদন প্রক্রিয়াধীন থাকলে আবেদনের রশিদের সাহায্যে অনলাইনে এনআইডি নম্বর নিশ্চিত হতে হবে, এক্ষেত্রে অপারেটররা গ্রাহককে প্রয়োজনীয় সহায়তা করবে।  সিম নিবন্ধন ও পুনঃনিবিন্ধন কার্যক্রম আরও গতিশীল করতে এনআইডির তথ্য ভাণ্ডারের সঙ্গে আরও দ্রুত গতির নির্ভরযোগ্য সংযোগ নিশ্চিত করতে হবে। সিম নিবন্ধন ও পুনঃ নিবিন্ধন  প্রক্রিয়া সম্পর্কে গ্রাহককে স্বচ্ছ ধারনা দিতে আরও বিজ্ঞাপন দিতে হবে।  

বিটিআরসির হিসাব অনুসারে গত জানুয়ারি দেশে ছয় অপারেটরের সক্রিয় মোবাইলফোন সিমের সংখ্যা ১৩ কোটি ১৯ লাখ ৫৬ হাজার।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে