Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 1.3/5 (6 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০২-২৫-২০১৬

প্রশংসা ও সমালোচনায় জুকারবার্গ

প্রশংসা ও সমালোচনায় জুকারবার্গ

ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জুকারবার্গ সোমবার মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে মোবাইল নির্মাতা প্রতিষ্ঠানদের প্রশংসা এবং সমালোচনা উভয় করেছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো প্রতিদিন তাদের গ্রহণযোগ্যতা বৃদ্ধি করছে আর ফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো অগ্রসর হচ্ছে ধীর গতিতে।  তিনি মোবাইল নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোকে তাদের শাখা বৃদ্ধি করতে পরামর্শ দেন। মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে টেলিকম কর্মকর্তাদের বার্ষিক সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওয়্যারলেস ইন্ডাস্ট্রির সাথে মিলে সমস্যাগুলোর সমাধান করে জুকারবার্গ নিজের প্রতিষ্ঠানকে আরও দামী প্রতিষ্ঠানে রুপান্তরিত করতে চান। তিনি বর্ণনা করেন ফেসবুক এখন নেতৃত্ব দেয়া টেলিকম প্রতিষ্ঠান গুলোর সাথে কাজ করছে। নকিয়া, ডাচ টেলিকম, এসকে টেলিকম এবং ইন্টেল কম খরচে দ্রুতগতির মোবাইল নেটওয়ার্ক তৈরিতে ভূমিকা রাখছে। ফেসবুক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের তালিকা করে নেটওয়ার্ক বৃদ্ধির কনটেন্ট তৈরি এবং তথ্য সমৃদ্ধ নেটওয়ার্ক বৃদ্ধিতে সহযোগিতা করছে। তিনি প্রতিষ্ঠানগুলোর সমালোচনা করে তার দাবিগুলো উপস্থাপন করেন।

জুকারবার্গ পরবর্তী প্রজন্মের ৫জি নেটওয়ার্ক নিয়ে কাজ করার চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে বলেন যা মোবাইল নেটওয়ার্ক নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো ২০২০ সালের মধ্যে দেয়ার জন্য কার্যক্রম শুরু করেছে।তিনি ‘দ্রুত গতি ধনী লোকের জন্য’ এই নীতিতে ইন্টারনেট গতি বাড়ানোর চেয়ে পৃথিবীর সবাই যেন ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারে এমন চিন্তা করতে বলেন নেটওয়ার্ক সরঞ্জামাদি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোকে।

তিনি বলেন, ‘সারা পৃথিবীতে এখনও ৪ বিলিয়নের বেশি মানুষ ইন্টারনেট সুবিধা বঞ্চিত রয়েছে।’

জুকারবার্গ জানান, ফেসবুক এবং গুগলের মতো ওয়েবসাইট গুলো চালাতে হেভি মোবাইল সার্ভিসের দরকার হয়। যদিও তা বিনামূল্যে লোড হয়। এতে নেটওয়ার্ক দুর্বল হয়ে পড়ে। তবে এই প্রতিষ্ঠানগুলো বড় অংকের বিনিয়োগ করে নির্দিষ্ট একটি লাইন তৈরি করতে পারে এবং মোবাইল নেটওয়ার্ককে গতিশীল করতে পারে।

জুকারবার্গের মন্তব্যের পর ফররেস্টার গবেষণা কেন্দ্রের গবেষক থমাস হোসন বলেন, ‘ফেসবুকের সাথে সবসময় নেটওয়ার্ক নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর ভালোবাসা আর ঘৃণার সম্পর্ক থাকে।’

এই অভিযোগের পর জুকারবার্গ বলেন, ‘ভিডিও চিত্র দেখা ফেসবুকের অন্যতম আরেকটি বড় পদক্ষেপ। যা বর্তমান নেটওয়ার্ককে চাপে রাখবে। প্রতিদিন ফেসবুক ব্যবহারকারীরা ১০০ মিলিয়ন ঘণ্টা ব্যয় করে ভিডিও দেখতে। যখন নেটওয়ার্ক নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো ব্যর্থ হচ্ছে বিপুল পরিমাণ মানুষকে সংযুক্ত করতে তখন আমরা ভার্চুয়াল ক্যামেরা প্রবর্তনের নেতৃত্ব দিচ্ছি। যা ৫জির জন্য গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপস হিসেবে বিবেচিত হবে এবং নেটওয়ার্কের চাহিদা সৃষ্টি করবে।’

ফেসবুকের এই প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফ্রি বেসিক প্রোগ্রামে যে অপারেটর যৌথ প্রযোজনায় কাজ করেছে এবং ফ্রি ইন্টারনেট সার্ভিস প্রদান করেছে তাদের পক্ষে নিজের যুক্তি উপস্থাপন করে।

জুকারবার্গ বৃহস্পতিবার ইউরোপের বার্লিনের টাউন হলে অনুষ্ঠিত একটি সমাবেশ উদ্বোধন করবেন। জার্মানিতে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক রাজনীতিবিদ এবং নিয়ন্ত্রকদের সমালোচনায় পড়ে।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে